খাশোগি হত্যা : সৌদি কনসাল জেনারেলের বাসভবনে এসিডের আলামত

  অনলাইন ডেস্ক

০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১০:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনসাল জেনারেলের বাসভবনে হাইড্রোফ্লরিক এসিড ও অন্যান্য রাসায়নিকের আলামত পাওয়া গেছে।  ধারণা করা হচ্ছে, সৌদির সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার পর তার দেহ গলিয়ে ফেলার কাজে তা ব্যবহার করা হয়েছে।

তুরস্কের অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ের এক সূত্র এই তথ্য জানিয়েছে বলে প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে আল জাজিরা।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার প্রায় দুই সপ্তাহ পর কনস্যুলেটে ভবনে তল্লাশির সুযোগ পান তুরস্কের তদন্তকারীরা।  ধারণা করা হচ্ছে, খাশোগিকে হত্যার পর তার দেহ নিশ্চিহ্ন করতে ওই দুসপ্তাহ সময় নিয়েছিলো সৌদি আরব।

তদন্ত চলাকালীন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের একজন উপদেষ্টা দাবি করেন, সাংবাদিক খাশোগির মরদেহ এসিডে গলিয়ে নিশ্চিহ্ন করা হয়েছে।

এই তথ্যের উপর ভিত্তি করে আল জাজিরা তাদের প্রতিবেদনে সামনে আনে সৌদি কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ আল-ওতায়বির নাম। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, খাশোগিতে হত্যার পর ওতায়বির বাসভবনে মরদেহটিপ এসিডে গলিয়ে ফেলা হয়েছে।

তুর্কি বাগদত্তা হেতিস চেঙ্গিসের সঙ্গে বিয়ের প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র আনতে গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর খুন হন ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার কলাম লেখক ও স্বেচ্ছা-নির্বাসিত সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি।  শুরুতে অস্বীকার করলেও ১৯ অক্টোবর সৌদি জানায়, তুরস্কের ইস্তাম্বুল কসন্যুলেটে গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে খাশোগির মৃত্যু হয়। এর দুদিন পরই খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলেও স্বীকার করেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সৌদি আরবের দাবি, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গোয়েন্দা সংস্থার উপ-প্রধান এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দেহরক্ষিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে মোট ১৮ জনকে। 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে