sara

সৌদি যুবরাজ একজন ‘পশু’, এক বার্তায় খাশোগি

  অনলাইন ডেস্ক

০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৫:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কড়া সমালোচনা করে কমপক্ষে ৪০০ বার্তা আদান-প্রদান করেছেন জামাল খাশোগি ও তার সহযোগী।  এর জের ধরেই খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার সহযোগী সৌদি সাংবাদিক ওমর আব্দুলআজিজ।

সিএনএন এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত দেড় বছরে হোয়াটসঅ্যাপে সৌদি রাজ পরিবার নিয়ে খাশোগির সঙ্গে একাধিক কথাবার্তা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সৌদি থেকে নির্বাসিত অ্যাক্টিভিস্ট আব্দুলআজিজ।  সেখানে সালমানের কড়া সমালোচনা ছাড়াও বিভিন্ন ছবি, ভয়েস রেকর্ড আদান প্রদান করেছেন তারা।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিনএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ওমর জানান,  হোয়াটসঅ্যাপে খাশোগি সালমানকে ‘পশু' এবং ‘প্যাক ম্যান' বলে উল্লেখ করেন।  এ ছাড়া খাশোগি বার্তায় বলেন, সালমানের পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়ালে সে সবাইকে গ্রাস করতে চায়।

গত বছরের মে মাসে যুবরাজ সালমান ধরপাকড় ও গ্রেপ্তার অভিযান শুরু করলে সেই সময় ওমর আব্দুলআজিজকে দেওয়া এক বার্তায় যুবরাজকে নিয়ে খাশোগি বলে, ‘যত লোক তার ক্ষতি করবে, তত লোককেই সে ‘খেয়ে’ ফেলবে। আমি অবাক হবো না, তার গুণগান গেয়েছে এমন ব্যক্তিরাও যদি তার দ্বারা অত্যাচারিত হয়।’

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি ও তার আরেক সহযোগী যুবরাজ সালমানের বিরুদ্ধে অনলাইনে প্রতিরোধ গড়তে চেয়েছিলেন।  কিন্তু এর আগেই গত আগস্ট মাস থেকে তাদের দুই জনের বার্তা হ্যাক করে সৌদি প্রশাসন।

সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে বিস্তারিত টেনে আব্দুলআজিজ জানান, খাশোগিসহ তারা সৌদি রাজতন্ত্রকে জবাবদিহিতার মুখোমুখি করতে অনলাইনে যুবকদের নিয়ে আন্দোলন শুরু করার পরিকল্পনাও করছিলেন।  তিনি বলেন, ‘খাশোগি বিশ্বাস করতো এর পেছনে সালমানই হলো মূল ইস্যু ও সমস্যা। এই ধাপ্পাবাজকে অবশ্যই থামাতে হবে।’

এরইমধ্যে আগস্টে সৌদি কর্তৃপক্ষ নজরদারির বিষয়টি অনুধাবন করতে পারেন খাশোগি।  এ সময় তিনি আব্দুলআজিজকে বলেছিলেন, ‘ভয় পেও না, আল্লাহ আমাদের পাশে আছে।’ আর এ ঘটনার ঠিক দুই মাস পর ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে নির্মমভাবে খুন হন খাশোগি।

সম্প্রতি তুর্কি সংবাদমাধ্যম টিআরটি জানিয়েছে, হত্যার পর খাশোগির মোবাইল ফোন হ্যাক করার চেষ্টা করে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।  ইসরায়েলের হ্যাকারদের তত্ত্বাবধানে তা করা হয়েছে বলে দাবি করে সংবাদমাধ্যমটি।

ইসরায়েলের হ্যাকারদের মাধ্যমেই খাশোগি ও তার মোবাইল ফোন হ্যাক হয়েছে বলে আরও জানান আব্দুল্লাজিজ। তিনি অশ্রুসিক্ত অবস্থায় বলেন, খাশোগির ঘটনায় আমার ফোনে হ্যাকিং একটি বড় ভূমিকা রেখেছে।  এরজন্য আমি সত্যি দুঃখিত।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে