শ্বশুরবাড়িতে মানিয়ে চলতে.....

  অনলাইন ডেস্ক

১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:৩০ | আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৫:২০ | অনলাইন সংস্করণ

প্রেমের বিয়ে কিংবা পারিবারিক। যেভাবেই হোক না কেন, বিয়ের পর স্বামীর বাড়িই হয়ে যায় মেয়েদের আসল ঘর। তারপরও নতুন এই পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে চলতে নারীদের অনেক বেগ পেতে হয়। কখনও শাশুড়ি, আবার কখনও ননদের সঙ্গে ঝগড়া লেগেই থাকে। এতে স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েন শুরু হয়। অনেকেই আছেন যারা ঝগড়া এড়াতে স্বামীকে নিয়ে আলাদা থাকার বন্দোবস্ত করেন। অনেকে আবার পরিবারের সবার সঙ্গে থেকেও বুদ্ধি করেই বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়িয়ে চলেন। এতে ওই নারী শুধু নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণ রাখেন না, একইসঙ্গে ভালো স্ত্রীর তকমাটাও পেয়ে যান। মনে রাখবেন, একটু সামলে চললেই কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে নিজেকে মানিয়ে নেওয়া অনেক সহজ।

এক্ষেত্রে বিয়ের পর নতুন পরিবেশে মানিয়ে নিতে যা করতে পারেন-

ঝগড়া নয়

বিয়ের পর যে কোন বিষয় নিয়ে শাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া হতেই পারে। তাই সংসারে শান্তি ধরে রাখতে যতটা সম্ভব ঝগড়া এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

ছুটির দিনগুলো পরিবারের সঙ্গে কাটান

বিয়ের পর টাইম ম্যানেজমেন্ট একটা বড় সমস্যা। বিশেষ করে কর্মজীবী নারীদের জন্য তা আরও কঠিন। তাই ছুটির দিনগুলোতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটানোর চেষ্টা করুন।

পরস্পরকে সময় দিন

বিয়ের পরপরই স্বামী-স্ত্রী একে অপরকে পর্যাপ্ত সময় দিন। এতে করে পরস্পরের মধ্যে বোঝাপড়াটা আরও মজবুত এবং দৃঢ় হবে।

পারিবারিক সমস্যার সমাধান

পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে একসঙ্গে থাকতে গিয়ে যে কোন সমস্যা হতেই পারে। এই সমস্যাগুলো নিজেই সমাধানের চেষ্টা করুন। আপনি যদি কোন ভুল করে থাকেন তাহলে তার জন্য সরি বলুন। এভাবে করলে দেখবেন আপনার মধ্যকার সম্পর্কগুলো আবার আগের মতো হয়ে গেছে। কোন সমস্যা নিজে সমাধান করতে না পারলে পরিবারের অন্যদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে তার সমাধান করুন।

একে অপরকে ‘স্পেস’ দিন

সম্পর্কে একে অপরকে ‘স্পেস’ দেওয়াটা অনেক বেশি জরুরি। বিয়ে মানেই বাইরের দুনিয়া থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়া নয়। তবে মনে রাখবেন, সামাজিক যোগাযোগ যেন ব্যক্তিগত জীবনে প্রভাব না ফেলে।

স্বাভাবিক সম্পর্ক বজায় রাখুন

শ্বশুর শাশুড়ির সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক বজায় রাখুন। ডিনার টেবিলে সবাই একসঙ্গে কিছুক্ষণ সময় কাটান। হাসি ঠাট্টা আর গল্প গুজবের মধ্যে দিয়ে নতুন সম্পর্কগুলো সহজ করুন।

কাজ শেয়ার করুন

ঘরের কাজ শেয়ার করুন। নিজেদের ঘর দুজন মিলে সাজান। এতে সম্পর্ক মধুর হবে।

রোমান্স বজায় রাখুন

নিজেদের মধ্যে রোমান্স বজায় রাখুন। সম্পর্ক যেন একঘেয়ে না হয়ে ওঠে সেদিকে খেয়াল রাখুন।

উপহার দিন

মাঝেমধ্যেই একে অপরকে ছোট ছোট সারপ্রাইজ দিন। এতে দুজনের মধ্যে ভালোবাসা আরও বাড়বে। চাইলে মাঝেমধ্যে পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্যও গিফট কিনতে পারেন। এতে তাদের সঙ্গেও মধুর সম্পর্ক গড়ে উঠবে। সূত্র: ইনসাইডার ও আয়ুরভেদা ডট কম।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে