কলার খোসার এত গুণ!

  অনলাইন ডেস্ক

২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৩:৩০ | আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৪:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

কলার নানা পুষ্টিগুণের কথা সবার জানা। কিন্তু কলার খোসার পুষ্টিগুণ সম্পর্কে জানি কি? জানলে কিন্তু একটু অবাক হবেনই। কারণ, যে জিনিসটিকে আপনি ফেলনা মনে করছেন, সেটি আসলেই অতোটা ফেলনা নয়।

কলার খোসার পুষ্টিগুণ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিজনেস ইনসাইডার। সেখানে বলা হয়—  

১. কলার খোসার মধ্যে থাকা শতকরা ১২ ভাগ আঁশ হজমে সাহায্য করে। এটি ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়। এটি খেলে ওজনও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

২. এতে শতকরা ১৭ ভাগ ভিটামিন সি থাকে। এটি আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আরও বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

৩. খোসার মধ্যে রয়েছে ২০ শতাংশ ভিটামিন বি-৬। এটি আমাদের শরীরের শক্তি যোগানের উৎস হিসেবে কাজ করে।

৪. কলার খোসায় রয়েছে শতকরা ১২ ভাগ পটাশিয়াম। এটি শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বাড়তে সাহায্য করে।

৫. এ ছাড়া কলার খোসার মধ্যে থাকা শতকরা আট ভাগ ম্যাগনেশিয়াম শরীরে শক্তির যোগান দেয়। পাশাপশি এটি গ্লুকোজ এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ রাখে।

কলার খোসার ভিন্ন ব্যবহার

কয়েকটি কলার খোসা নিয়ে এক বালতি পানিতে মিশিয়ে চার থেকে পাঁচ দিন রেখে দিন। এরপর ওই পানি গাছে দিতে পারেন। যা গাছের শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

আপনি চাইলে কলার ভিনেগার বানাতে পারেন। যা সালাদে এবং বিভিন্ন সবজিতে ব্যবহার করতে পারেন।

যেভাবে খাবেন কলার খোসা

কাঁচা কলার খোসা সেদ্ধ করে ভর্তা করে বা সবজির  মতো রান্না করে খেতে পারেন। এ ছাড়া খোসাকে কাঁচাও খাওয়া যায়। তবে খাওয়ার আগে কলাকে ভালোভাবে পাকার জন্য সময় দিন এবং খোসাকে পাতলা হতে দিন। তখন এটির স্বাদ কিছুটা মিষ্টি হবে এবং খেতে ভালো লাগবে। পাকা কলার খোসা খেলে খোসার ভেতরের সাদা দিকটি খাবেন। তবে অনেকে পাকা কলার খোসাও খাওয়ার আগে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নেন।  

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে