কর্মস্থলেই কমবে ওজন!

  অনলাইন ডেস্ক

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৩:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

দিনের বেশিরভাগ সময়ই মানুষ কর্মক্ষেত্রে কাটায়। আপনাকেও হয়তো অফিসে বসে একটানা সাত থেকে আট ঘণ্টা কাজ করতে হয়। সবসময় নিজের আসনে বসে কম্পিউটারে টাইপ করছেন। এমনকি খাওয়ার কাজটাও ডেস্কে বসেই সারছেন। কর্মক্ষেত্রে আপনাকে নানা মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে কাজ করতে হয়। আবার একটানা কাজ করতে গিয়ে ক্ষুধাও লাগে। ফলে বার বার খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে। এতে ওজনও দ্রুতগতিতে বাড়ে। আবার কোন বিরতি না নিয়ে একটানা কাজ করলে আপনার হজমশক্তি কমে যায়। এটিও ওজন বাড়ার জন্য দায়ী।

কাজেই ওজন কমাতে অফিসে নিজের লাইফস্টাইলে এমন কিছু পরিবর্তন আনা দরকার যাতে কাজের মাঝেও আপনার ওজন কমবে। এ ক্ষেত্রে লাইফস্টাইল বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই ডট কম অবলম্বনে জেনে নিন অফিসে কাজের ফাঁকে ওজন কমাবেন কীভাবে-

প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন
ওজন কমাতে অফিসে কাজের ফাঁকে প্রচুর পরিমাণে পান করুন। প্রচুর পরিমাণে পানি পান আপনার শরীরের পানিশূন্যতা পূরণের পাশাপাশি মাথা ব্যাথা এবং অপ্রয়োজনীয় খাবার খাওয়া থেকে বিরত রাখবে। আমেরিকান এক্সারসাইজ কাউন্সিলের মতে, প্রতিদিন নারীদের কমপক্ষে ২.৭ লিটার এবং পুরুষদের ২.৮ লিটার পানি পান করা উচিত। পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান শরীরের শক্তি বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এর ফলে সহজেই ওজন কমে।   

চুইংগাম চিবানো
কাজের ফাঁকে ফাঁকে চুইংগাম চিবালে তা আপনাকে সতর্ক থাকতে সাহায্য করে। এতে করে উদ্বিগ্নতা, মানসিক চাপ কমে। একই সঙ্গে করটিসল নামের হরমোন পেটে চর্বি জমতে দেয় না। ফলে সহজেই ওজন কমে।

দুপুরে পুষ্টিকর খাবার খান
প্রতিদিন দুপুরের খাবারে ফাস্টফুড এড়িয়ে চলুন। এসব খাবারে উচ্চ মাত্রার ক্যালরি থাকায় তা ওজন বাড়াতে ভূমিকা রাখে। একই সঙ্গে এসব খাবার আপনার ক্ষুধা আরও বাড়িয়ে তোলে। এর পরিবর্তে ওজন কমাতে দুপুরে বাড়ি থেকে আনা পুষ্টিকর খাবার খান।      

গ্রিন টি পান
সকালে অফিসে এসেই এক কাপ কফি পান করুন। কফি পানে কর্মক্ষেত্রে আপনার চাঞ্চল্য ফিরে আসবে। এতে ক্যাটসিন বিদ্যমান থাকায় তা চর্বি কমাতে ভূমিকা রাখে। তাই ওজন কমাতে কাজের শুরুতে এক কাপ কফি পান করলে মন্দ হয় না।     

সিড়ি ব্যবহার
ওজন কমাতে অফিসে লিফট ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। এর পরিবর্তে পায়ে হেঁটে সিড়ি বেয়ে উঠুন। নিয়মিত সিড়ি ব্যবহারে দেখবেন ওজন অবিশ্বাস্য রকমভাবে কমে গেছে।  

ডেস্কে সোজা হয়ে বসা
গবেষণায় দেখা গেছে, ডেস্কে সোজা হয়ে বসলে শরীরের অতিরিক্ত ক্যালরি ক্ষয় হয়। যা প্রতি ঘণ্টায় ৫০ ক্যালরি। এভাবে বসলে রক্তে শর্করার মাত্রার উন্নতি ঘটে। শরীরে শক্তির পাশাপাশি আপনার মানসিক স্বাস্থ্যেরও উন্নতি ঘটায় সোজা হয়ে বসা।   

সালাদ খান
অফিসে বসে কাজ করলে দুপুরের খাবারে সালাদ খাওয়ার চেষ্টা করুন। তবে এই সালাদ হওয়া চাই প্রোটিন সমৃদ্ধ। এতে থাকবে মুরগী, ডিম এবং তন্তুজাতীয় খাবার। চাইলে সালাদে টমেটো এবং বাদামও যোগ করতে পারেন। এসব খাবারেও ওজন কমবে।    

ঘণ্টায় দুই মিনিট করে হাঁটুন

কাজের ফাঁকে প্রতি ঘণ্টায় দুই মিনিট করে হাঁটার চেষ্টা করুন। অফিসে ২০ সেকেণ্ড করে হাঁটার পরিবর্তে কয়েক মিনিটের জন্য আপনার সহকর্মীদের সঙ্গে কথা বলুন। আমেরিকান সোসাইটি অব নেফ্রোলজির ক্লিনিক্যাল জার্নালের মতে, বসে থাকলে শরীরের ওপর যে প্রভাব পড়ে প্রতি ঘণ্টায় দুই মিনিট হাঁটলে সে প্রভাবটা আর পড়ে না। এর ফলে সহজেই ওজন কমে।  

স্বাস্থ্যকর নাস্তা
যখনই আপনার ক্ষুধা লাগবে তখনই শুকনো খাবার না খেয়ে বরং স্বাস্থ্যকর নাস্তা করুন। এই খাবার আপনার ওজন কমাতে ভূমিকা রাখবে। স্বাস্থ্যকর নাস্তায় রাখতে পারেন-শস্যদানা, বাদাম, আপেল, কলা, গাজর, শসা প্রভৃতি। এই খাবারগুলো আপনার শরীরে পুষ্টি জোগানোর পাশাপাশি ওজন কমাতে সাহায্য করবে।  

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে