সুস্বাস্থ্যে কমলার খোসা

  অনলাইন ডেস্ক

০৩ মার্চ ২০১৮, ১২:৪৭ | আপডেট : ০৩ মার্চ ২০১৮, ১৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

শুধু সুস্বাদু নয়, স্বাস্থ্যের জন্যও অনেক উপকারী কমলা।  ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি আমাদের নানা অসুখ-বিসুখ থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।  শুধু ফল নয়, গুণেও অনন্য কমলার খোসা।  এই খোসা কার্বোহাইড্রেটের সমৃদ্ধ উৎস।  এতে স্বাস্থ্যকরী পলিমেথোক্সিলেটেড ফ্লাভোনস বিদ্যমান থাকায় তা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ভালো।  তাই কমলার খোসা ছাড়িয়ে তা ফেলে না দিয়ে বরং কাজে লাগানো উচিত।

কমলার খোসার নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা জানিয়ে দিচ্ছে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট লাইফস্ট্রং ডট কম।

খারাপ কোলেস্টেরল কমায়

কমলার খোসায় পলিমিথোক্সিলেটেড ফ্লাভোনস বিদ্যমান থাকায় তা শরীরের খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।  ২০১৪ সালের মে মাসে কানাডিয়ান এবং যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকদের এক গবেষণায় দেখা গেছে, কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে কাজ করে কমলার খোসা।  এতে হেসপারিডিন, ফ্লাভোনয়েড থাকায় তা কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।  এ ছাড়া কমলার খোসায় পেকটিন, প্রাকৃতিক তন্তু উপাদানগুলোও খারাপ কোলেস্টেরলকে কমিয়ে আনে।

ক্যান্সারের বৃদ্ধি রোধ করে

ক্যান্সারে আক্রান্ত হলে তা দেহের ভালো কোষ থেকে অক্সিজেন মৌলকে দূর করে দেয়।  এতে ক্যান্সারের কোষ বাড়তে থাকে। কমলা, লেবু প্রভৃতিতে প্রচুর পরিমাণে লিমোনিন রয়েছে।  এই লিমোনিন দেহে অক্সিজেনের প্রক্রিয়া সক্রিয় রাখে যা ক্যান্সার কোষগুলোর বৃদ্ধি রোধ করে।  এ ছাড়া কমলার খোসায় হেসপারিন বিদ্যমান থাকায় তা স্তন ক্যান্সার এবং কোলন ক্যান্সারসহ নির্দিষ্ট কিছু ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে।  

ক্ষুধা এবং রক্তের শর্করা

কমলার খোসা প্রাকৃতিক তন্তু প্যাক্টিনের একটি ভালো উৎস।  এটি রক্তে শর্করার বৃদ্ধি হ্রাস করে।  একই সঙ্গে ক্ষুধা কম লাগাতেও সাহায্য করে কমলার খোসা।  এর ফলে সহজেই ওজন কমে।

গ্যাসের সমস্যা কমায়

পেক্টিন বিদ্যমান থাকায় কমলার খোসা শরীরে উপকারী ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি বাড়াতে সাহায্য করে।  এ ছাড়া এতে উচ্চমাত্রার ফাইবার বিদ্যমান থাকায় তা গ্যাসের নানা সমস্যা সমাধানেও ভূমিকা রাখে।  আবার হজমের সমস্যা, পেটের সমস্যা, কোষ্ঠ্যকাঠিন্য, ডায়রিয়া প্রভৃতি রোগ নিরাময়েও ভালো কাজ করে কমলার খোসা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে