ইফতারে অতিরিক্ত খাওয়ার ব্যাপারে সতর্কতা চিকিৎসকদের

  অনলাইন ডেস্ক

২৩ মে ২০১৮, ০৯:১৮ | আপডেট : ২৩ মে ২০১৮, ১১:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

পবিত্র রমজান মাসে ইফতারের সময় অতিরিক্ত খাওয়ার ব্যাপারে সর্তক করেছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। পাকস্থলির রোগের কারণ হতে পারে অতিরিক্ত খাবার। প্রতি বছর রমজানে ভাজা-পোড়া খাওয়ার ফলে অনেকের পেটে ব্যথায় ভুগে থাকেন।

চিকিৎসকদের মতে, ‌রোজায় অতিরিক্ত খাবার গ্রহণ পাকস্থলিতে আলসার ও অন্যান্য গ্যাস্ট্রিকের সমস্যার সাধারণ কারণ। ইফতার ও সেহরিতে অতিরিক্ত খাওয়া শুধু শরীরের ক্ষতি করে না, এটি ক্লান্তি, তৃষ্ণা এবং অস্থিরতা সৃষ্টি করে ব্যক্তির আত্মার শুদ্ধিতেও হস্তক্ষেপ করে।

পাকিস্তানের গ্যাস্ট্রোলোজির চিকিৎসক ডাক্তার ইয়াসির জানান,পবিত্র এই মাসে রোজা রাখলে স্বাস্থ্যের উন্নতি হতে পারে কিন্তু অনেকেই সঠিক ডায়েট পদ্ধতি অনুসরণ করেন না। সাধারণত এই খাদ্য অভ্যাস অতিরিক্ত কার্বোহাইড্রেট পরিবর্তন করে।
অনিয়মিত খাওয়া এবং অনেক দ্রুত ওজন হ্রাস করায় রামজান মাস শেষ হওয়ার পর এক অনিয়ন্ত্রিত ক্ষুধা তৈরি করে। এক্ষেত্রে ডাক্তার ইয়াসিরের পরামর্শ, 'যারা অতিরিক্ত খায় তারা সব কিছুই খেতে পারে। কিন্তু তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হলো কম ক্যালরিযুক্ত চর্বি ছাড়া খাবার খাওয়া।'

আরেক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বলেছেন, ‘ইফতার ও সেহরির পর ঘুমের কারণে এসিডিটির প্রবণতা দেখা যায়।’

এছাড়া ধূমপানের মতো খুব সাধারণ একটি বদঅভ্যাস ইফতারের সময় বেড়ে যেতে দেখা যায়।  এই বদ অভ্যাস গ্যাস্ট্রাইটিস রোগীদের জন্য অস্থিরতা এবং অ্যাসিডিটির ঝুঁকি বহন করে। তাই এসব রোগীরা যখন ইফতার করেন। তখন তাদের খুব হালকা খাবার খওয়া উচিত। খেজুর ও হালকা খাবার দিয়ে ইফতার করার পর রাতের খাবার খাওয়া পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। 
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
ashomoy-todays_most_viewed_news