নিয়মিত ২টি টমেটো কেন খাবেন?

  অনলাইন ডেস্ক

১৬ জুলাই ২০১৮, ১২:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

শরীরকে সুস্থ-সবল রাখতে টমেটোর জুড়ি মেলা ভার। সারা বছরই পাওয়া যায় এমন সবজিগুলোর মধ্যে টমেটো অন্যতম। সুস্বাদু ও পুষ্টিসমৃদ্ধ এই সবজিটি কাঁচা এবং রান্না দুই ভাবেই খাওয়া যায়। তবে কাঁচায় টমেটোর যে পুষ্টিগুণ থাকে তা রান্নার পর কিছুটা কমে যায়। তাই সর্বাধিক উপকার পেতে টমেটো কাঁচা খাওয়ার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা।

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, উচ্চ রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে টমেটো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এতে লাইকোপেন এবং বিটা ক্যারোটিন রয়েছে, যা শরীরে উপস্থিত ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানকে বের করে দেয়। একই সঙ্গে মানসিক চাপের মাত্রা কমাতেও ভূমিকা রাখে টমেটো। ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আসতে সময় লাগে না। 

গবেষকরা বলেছেন, টমেটোতে উপস্থিত ভিটামিন ই, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং পটাশিয়ামও রক্তচাপকে দূরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। তাই সুস্থ জীবন নিশ্চিতে নিয়মিত দুটি টমেটো খাওয়ার পরামর্শ দেন তারা। 

টমেটো খেলে কী কী উপকার পাওয়া যায় তা জানিয়ে দিয়েছে লাইফস্টাইলবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই ডট কম-

খারাপ​ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়

শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়তে থাকলে হার্টের অনেক ক্ষতি হয়। এর ফলে যে কেউ হঠাৎ করে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হতে পারেন। কাজেই হার্ট অ্যাটাক থেকে বাঁচতে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় টমেটো রাখুন। এতে বিদ্যমান ফাইবার শরীরে প্রবেশ করে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে আনে। এর ফলে হার্টের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও কমে যায়। 

হাড় মজবুত করে

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, টমেটোতে উপস্থিত ক্যালসিয়াম হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে। একই সঙ্গে অস্টিওআর্থ্রাইটিসের মতো হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও কমিয়ে দেয়। এ কারণে নিয়মিত দুটো করে টমাটো খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

ভিটামিন এবং খনিজের ঘাটতি মেটায়

নিয়মিত দুটি কাঁচা  টমেটো খাওয়া শুরু করলে শরীরে ভিটামিনের মোট চাহিদার প্রায় সিংহভাগই মিটে যায়। একই সঙ্গে শরীরের প্রয়োজনীয় খনিজের ঘাটতিও মিটতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই দেহের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। এ ছাড়া একাধিক রোগ থেকে শরীরকে দূরে রাখে টমেটো।

ডায়াবেটিসের প্রকোপ কমায়

রক্তে শর্করার মাত্রাকে নিয়ন্ত্রণে রেখে টাইপ ১ এবং টাইপ ২ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে টমাটোর বিকল্প নেই। এতে উপস্থিত ফাইবার এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। 

ক্যান্সার থেকে দূরে রাখে

টমেটোতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি শরীরে ক্যান্সার সেলের জন্ম আটকাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। ফলে প্রতিদিন যদি দুটি করে টমেটো খাওয়া যায় তাহলে এই মারণ রোগ নিয়ে আর চিন্তায় থাকতে হবে না, এমনটাই দাবি চিকিৎসকদের। বিশেষত প্রস্টেট এবং কলোরেকটাল ক্যান্সারকে দূর রাখতে টমাটোর বিকল্প হয় না বললেই চলে। 

হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে

ফাইবার, পটাশিয়াম, ভিটামিন সি এবং কোলিন হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়াতে ভূমিকা রাখে। আর এই সবকটি উপাদানই প্রচুর মাত্রায় রয়েছে টমাটোতে। তাই হার্টকে দীর্ঘদিন সুস্থ রাখতে প্রতিদিনের ডায়েটে এই খাবারটি রাখুন। 

দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায়

টমেটোতে বিদ্যমান লাইকোপেন, লুটেন এবং বিটা-ক্যারোটিন দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি ছানির মতো রোগকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। এ ছাড়া কোষ্ঠকাঠিণ্যের মতো সমস্যা দূরে রাখতেও ভূমিকা রাখে টমেটো। এতে উপস্থিত ফাইবার হজম ক্ষমতার উন্নতি এবং পেটের নানা রোগ উপশমে সাহায্য করে। তাই সুস্থতায় প্রতিদিন দুটি করে টমেটো খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে