ছেলেরা ভুলেও এই খাবারগুলো কেন খাবেন না জানেন?

  অনলাইন ডেস্ক

১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৩:১২ | অনলাইন সংস্করণ

বর্তমানে সারা বিশ্বে ইনফার্টিলিটিতে আক্রান্ত দম্পতির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০-৮০ মিলিয়নে। এক্ষেত্রে আমাদের দেশের অবস্থাও যে খুব একটা আশাপ্রদ, এমন নয় কিন্তু। একাধিক সমীক্ষায় দেখা গেছে ২৫-৩৫ বছর বয়সিরা তাদের কর্মজীবনের কারণে বেশিরভাগ সময়ই বাড়ির বাইরে খেয়ে থাকেন। এক্ষেত্রে জাঙ্কফুডই হয় তাদের প্রথম পছন্দ। ফলে একদিকে যেমন নানাবিধ জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়, তেমনি স্পার্ম (শুক্রাণু) কাউন্ট কমে যাওয়ার কারণে বাচ্চা হওয়ার ক্ষেত্রেও নানাবিধ সমস্যার সম্মুখিন হতে হয়।

একাধিক গবেষণার পর কিছু খাবারকে এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। তাদের মতে এসব খাবার নিয়মিত খেলে পুরুষদের শরীরে এমন কিছু নেতিবাচক পরিবর্তন হয় যাতে ধীরে ধীরে বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। তাই বাবা হওয়ার ইচ্ছা থাকলে এইসব খাবার থেকে দূর থাকাই বাঞ্ছনীয়। এক্ষেত্রে যে যে খাবারগুলো এড়িয়ে চলতে হবে, সেগুলো হল...

ঠান্ডা পানীয়

বেশ কিছু গবেষণা এ তথ্য প্রমাণ করেছে যে নিয়মিত কোল্ড ড্রিঙ্ক পান করলে স্পার্ম কাউন্ট চোখে পরার মতো কমে যেতে থাকে। ফলে একটা সময় পর বাবা হওয়ার ক্ষমতাই চলে যায়। তাই এবার থেকে তৃষ্ণা পেলে গলা ভেজাতে কোল্ড ড্রিঙ্কের পরিবর্তে জুস খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন ক্ষতি হবে কম, উপকার পাবেন বেশি।

প্রক্রিয়াজাত মাংস

প্রক্রিয়াজাত মাংস খাওয়া তো প্রায় রেওয়াজে পরিণত হয়েছে। অফিসের চাপে এখন আর কারও হাতেই রান্না করার সময় নেই। তাই অগত্যা এমন ধরণের খাবারেই ফ্রিজ ভরাতে বাধ্য হচ্ছে অনেকে। কিন্তু তারা জানতে পারছেন না এমন খাবার খাওয়ার কারণে শরীরের কতটা ক্ষতি হচ্ছে। ২০১৪ সালে হার্ভাড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক একটি পরীক্ষা দেখা গেছেন, প্রক্রিয়াজাত মাংস খেলে স্পার্ম কাউন্ট প্রায় ৩০ শতাংশ কমে যায়। আর এমনটা হলে বন্ধ্যাত্বের সমস্যা যে আর দূর থাকে না, সে কথা তো বলাই বাহুল্য!

সোডা

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে নিয়মিত সোডা ওয়াটার পান করলে শরীরের ভেতরে অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের মাত্রা বাড়তে শুরু করে। সেই সঙ্গে ইনসুলিনের কর্মক্ষমতাও কমতে থাকে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই স্পার্ম কাউন্ট কমতে থাকে। তাই বাবা হওয়ার পরিকল্পনা যদি করে থাকেন, তাহলে এই ধরনের পানীয় থেকে দূরে থাকাই শ্রেয়।

চিজ ও ফুলক্রিম দুধ

২০১৩ সালে হিউমেন রিপ্রোডাকশনের ওপর করা এক গবেষণা অনুসারে দীর্ঘ দিন ধরে চিজ ও ফুল ফ্যাট মিল্ক খেলে স্পার্ম কাউন্ট অনেক কমে যায়। তবে তাই বলে দুধ খাওয়া বন্ধ করবেন না যেন। শুধু ফুল ফ্যাট মিল্কের বিকল্প কিছু একটা খুঁজে নিলেই চলবে।

অ্যালকোহল

অ্যালকোহল বেশি হলে তো কোনো সুযোগই নেই, কিন্তু অল্পতেও পুরুষের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। কারণ অ্যালকোহল শরীরে প্রবেশ করা মাত্র নানাবিধ ক্ষতি সাধন করে থাকে। এর মধ্যে অন্যতম হল স্পার্ম কাউন্ট কমিয়ে দেওয়া। তাই এবার থেকে যখন পানীয়ের গ্লাস হাতে আয়েশ করবেন, তখন একবার ভাববেন এমনটা করাতে আপনার ভবিষ্যৎ অন্ধকার হয়ে যাচ্ছে না তো!

এই খাবারগুলোর পাশাপাশি আরও কতগুলো বিষয় আছে। যেমন টাইট জাঙ্গিয়া, মাত্রাতিরিক্ত হারে স্মোকিং ও কোলে ল্যাপটপ রাখলে স্পার্মের স্বাস্থ্যের মারাত্মক অবনতি ঘটে থাকে।  

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে