ফুসফুসের নিকোটিন দূর করবেন যেভাবে

  অনলাইন ডেস্ক

৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

অন্য খাবারের মতো সিগারেট খাওয়া কিছু কিছু মানুষের কাছে অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। এটি খাওয়ার ফলে শরীর শতকরা ৯০ শতাংশ নিকোটিন শুষে নেয়। আর সেই নিকোটিন জমতে শুরু করে ফুসফুসের ওপর। এক সময় এই নিকোটিন আপনাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। অনেকেই আছেন, যারা শরীরের ক্ষতির কথা ভেবে সিগারেট খাওয়া এক সময় ছেড়ে দেন। তার পরেও কিন্তু নিকোটিন শরীরে দীর্ঘদিন থেকে যায়।

যদি কেউ সপ্তাহে একদিন সিগারেট খায়, তাহলে তার শরীর থেকে নিকোটিন দূর হতে সময় লাগে ২ থেকে ৩ দিন। আর যদি কেউ রোজ সিগারেট খায়, সে ক্ষেত্রে সিগারেট ছাড়ার পর সেই নিকোটিন এক বছর সময় নেয় শরীর থেকে বের হতে।

তবে শরীর থেকে নিকোটিন বের করার বেশ কিছু উপায় রয়েছে। এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক সেই উপায়-

ফুসফুসের ওপর জমে থাকা নিকোটিন দূর করতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার বেশি করে খান। এসব খাবারের তালিকায় রয়েছে যেকোনো লেবুজাতীয় ফল। এর ফলে আপনার শরীরে মেটাবলিজম রেট বাড়বে এবং শরীরের ক্ষত সারবে।

পান করতে পারেন হলুদ চা। ৪০০ গ্রাম কুচনো পেঁয়াজ, ১টি আদার টুকরো এবং ২ চামচ হলুদ গুঁড়ো। ১ লিটার জলে ভালো করে ফুটিয়ে নিন কয়েক মিনিট। এই চা দিনে দুবার পান করুন।

হলুদে সারকিউমিন রয়েছে, যা আপনার শরীর থেকে বিষ বের করতে সাহায্য করে। আদা বমি বমি ভাব দূর করে। এই চা পান করার পর এক হাত বুকে ও অপর হাত পেটের ওপর রেখে ওপর থেকে নিচের দিকে হাত বুলিয়ে নিন কিছুক্ষণ। ৩ থেকে ১০ বার এটি করতে হবে।

একই সঙ্গে ক্যাফিন, ডেয়ারি প্রোডাক্ট ও মিষ্টান্নদ্রব্য খাওয়া বন্ধ করুন। এগুলো ফুসফুসের শ্বাসপ্রশ্বাসের সিস্টেমকে জটিল করে তোলে। তবে প্রচুর পরিমাণে জল পান করুন। জল লিভার ও কিডনির বর্জ্য দূর করতে সাহায্য করে।

চাইলে প্রতিদিন কিছুক্ষণ ওয়ার্কআউট করতে পারেন। এর ফলে শরীরে রক্ত চলাচল বাড়ে এবং ঘামের মাধ্যমে বিষ দূর হতে থাকে। কখনো কখনো ম্যাসাজও নিতে পারেন। এর ফলে শরীর রিল্যাক্সড হয় এবং বিষক্ষয় করতে শুরু করে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে