গোমূত্রের দাম লিটারে ৩০ টাকা!

  অনলাইন ডেস্ক

২৪ জুলাই ২০১৮, ১৯:০২ | আপডেট : ২৪ জুলাই ২০১৮, ১৯:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

পুরোনো ছবি

গরুর দুধ মিলে প্রতি লিটারে ২০ থেকে ২৫ টাকা। আর গোমূত্রের দাম প্রতি লিটার প্রায় ৩০ টাকা। অর্থাৎ গরুর দুধের চেয়ে মূত্রের দাম বেশি।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, আশ্চর্যজনক এই ঘটনাটি ভারতের রাজস্থানের। সেখানে গোমূত্রের চাহিদা অনেক। পাইকারি বাজারে চাহিদা এতটাই যে দুধ ছেড়ে গোমূত্র সংগ্রহে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন গরু পালনকারীরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মূত্র সংগ্রহে খামারে রাত জাগছেন গরু পালনকারীরা। এক ফোঁটা গোমূত্রও যেন নষ্ট না হয় সেদিকে সজাগ দৃষ্টি তাদের। কেননা সকাল হলেই এই গোমূত্র বিক্রি হয় চড়া দামে। আবার কোনো কোনো বিক্রেতা অন্যের খামার থেকে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন গোমূত্র। তারপর তা বিক্রি করছেন বাজারে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে দাম উঠছে লিটারে ৫০ টাকাও। এই নিয়েই ব্যস্ততা রাজস্থান জুড়ে।

কিন্তু গোমূত্রের কেন এত চাহিদা? গোমাতার প্রতি ভক্তি! আপাতত সে ভক্তি বজায় রেখেছেন গোপালকরা। কারণ যা নষ্ট হত, তাও সোনা ফলাচ্ছে। অবশ্য যাদের চাহিদা, তারা এসব ভাবছেন না। তাদের উদ্দেশ্য আলাদা। অরগ্যানিক ফার্মিংয়ের চাহিদা এখন তুঙ্গে। সে কারণে কৃষকরা রাসায়নিকের বদলে গোমূত্র কিনছেন। গাছ-গাছালি পতঙ্গ থেকে বাঁচাতে গোমূত্রই তাদের ভরসা।

উদয়পুরের মহারাণা প্রতাপ ইউনিভার্সিটি অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি অরগ্যানিক ফার্মিংয়ের প্রজেক্ট নিয়েছে। সরকার পরিচালিত এই সংস্থায় মাসে প্রায় ৩০০-৩৫০ লিটার গোমূত্র ব্যবহার করা হচ্ছে। যার জন্য রাজ্যের গোপালকদের উপরই গোমূত্র সরহবরাহের দায়িত্ব পড়েছে। এতে লাভ হচ্ছে দু’দিকে। এক, অরগ্যানিক ফার্মিংয়ের প্রচার হচ্ছে। রাসায়নিকমুক্ত ভাল ফসল পাচ্ছেন অধিবাসীরা। অন্যদিকে গোপালকরাও গোমূত্র বেচে লাভের মুখ দেখছেন। তাই দুধ বিক্রি থেকে মন তুলে এখন গোমূত্র সংগ্রহ করতেই রাত জাগছেন গোপালকরা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে