নারী দেখলেই ভয় পাচ্ছেন ৫০ শতাংশ পুরুষ

  অনলাইন ডেস্ক

২৭ অক্টোবর ২০১৮, ১০:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বব্যাপী চলমান #মিটু আন্দোলনের জেরে প্রকাশ্যে আসছে কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্থার নানা ঘটনা। ন্যাকারজনক ঘটনাগুলো কখনও ঘটছে শুটিং সেটে কখনও বা আন্তর্জাতিক সংস্থা গুগলের সদর দপ্তরে।এই আন্দোলনের প্রভাব হিসেবে এখন কর্মক্ষেত্রে নারীদের সঙ্গে কথা বলতে ভয় পাচ্ছে ৫০ শতাংশ পুরুষ। সম্প্রতি ভারতের একটি সমীক্ষায় এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

যৌন হেনস্থার দায়ে সরল মুখোশের আড়ালে লুকিয়ে থাকা হায়েনাদের চরিত্র একে একে বেরিয়ে আসছে প্রতিনিয়তই। তবে নারী-পুরুষের সম্পর্কে এর প্রভাব জানতে এক সমীক্ষা করেছেন ‘দ্য উইগভ ইন্ডিয়া’ নামে সংস্থাটি। সেখানে অংশ নেন  কয়েক হাজার প্রাপ্তবয়স্ক কর্মজীবী নারী-পুরুষ।

গত অক্টোবরের ১৬ থেকে ২২ তারিখ পর্যন্ত করা হয় সমীক্ষাটি। যেখানে ৫১ শতাংশ পুরুষ ও ৪৯ শতাংশ নারী ছিলেন। সেখানে দেখা গেছে, যৌন হেনস্থা রুখতে #মিটু আন্দোলনের ব্যাপক প্রভাব পড়েছে সমাজে।

দেখা গেছে, প্রতি দুজন পুরুষের মধ্যে একজন পুরুষ নারীদের সঙ্গে কথা বলতে বেশি সতর্কতা অবলম্বন করছেন। একই সঙ্গে প্রতি তিনজন পুরুষের মধ্যে একজন নারীদের সঙ্গে কথা বলতে অনিচ্ছা প্রকাশ করছেন। শুধু কাজ সম্পর্কিত কথা ছাড়া আলোচনায় রাজি নন তারা।

এই ৫১ শতাংশ পুরুষের তিন ভাগের বক্তব্য,কর্মক্ষেত্রে দলে নারীদের অংশগ্রহণ করা নিয়ে তারা অত্যন্ত বেশি সচেতন হয়ে উঠেছেন।

সব মিলে ৭৬ শতাংশ মানুষ বিশ্বাস করেন,কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্থা একটি ভয়াবহ সমস্যা। এ বিষয়ে ৮৭ শতাংশ নারী ও ৬৬ শতাংশ পুরুষ সোচ্চার।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে