মালয়েশিয়ায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত

  মো: শাহাদাত হোসেন, মালয়েশিয়া থেকে

০১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৭:৩২ | আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৭:৩৫ | অনলাইন সংস্করণ

যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়ায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত হয়েছে। কুয়ালালামপুরের তিতিওয়াংসা সূরাও বায়তুল মোকাররামে প্রবাসী বাংলাদেশিদের দ্বারা পরিচালিত এ মসজিদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করে মসজিদ কর্তৃপক্ষ। বায়তুল মোকাররম ছাড়াও মালয়েশিয়ার বিভিন্ন প্রাদেশিক রাজ্যেও ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করেছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় মাগরিবের নামাজের পর শুরু হওয়া মিলাদ অনুষ্ঠান চলে রাত ৯টা পর্যন্ত।

বিশ্বনবী ও মহামানব হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও মৃত্যুর এ দিনটিতে দেশ ও জনগণের মঙ্গল কামনায় মোনাজাত করেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ মাওলানা মো. একরামুল হক।

মিলাদ ও দোয়া উপলক্ষে সন্ধ্যা থেকেই তিতিওয়াংসার দামাই কমপ্লেক্সে জড়ো হতে থাকেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। কর্মব্যস্ততা সেরে দেশ ও পরিবারের মঙ্গল কামনায় দোয়া করতে দলে দলে অংশ নেন ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বায়তুল মোকাররাম মসজিদ কর্তৃপক্ষের কবির ভূইয়া, মনিরুজ্জামান মনির, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ডা: আহমেদ বোরহান, মো: জাকির হোসেন, ফরিদ গাজী, মো: মিনারুল, মো: সেলিম, তারভির, শেখ মো: জহিরসহ শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি।

প্রায় ১ হাজার ৪০০ বছর আগে এই দিনে আরবের মরু প্রান্তরে মা আমেনার কোলে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)। আবার এই দিনেই তিনি পৃথিবী ছেড়ে চলে যান। মহামানব হজরত মুহাম্মদ (সা.) এসেছিলেন তৌহিদের মহান বাণী নিয়ে। প্রচার করেছেন শান্তির ধর্ম ইসলাম। ইসলাম ধর্মমতে, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব হজরত মুহাম্মদ (সা.) শেষ নবী। তাই তার জন্ম ও ওফাত দিবস ১২ রবিউল আউয়াল মুসলমানদের কাছে পবিত্র দিন। মুসলমানরা প্রতিবছরই দিনটি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে