কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা

স্পেনে প্রতিবাদ সভা

  কবির আল মাহমুদ, মাদ্রিদ, স্পেন থেকে

১২ জুলাই ২০১৮, ১০:০১ | আপডেট : ১২ জুলাই ২০১৮, ১০:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশে কোটা সংস্কার নিয়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে প্রতিবাদ সভা করেছে ভয়েস ফর বাংলাদেশ স্পেন। গতকাল বুধবার স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের বাংলা টাউন রেস্টুরেন্টে এই সভা আয়োজিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ভয়েস ফর বাংলাদেশ স্পেন- এর যুগ্ন আহবায়ক সুহেল ভূঁইয়া।

সাবেক ছাত্র নেতা হুমায়ূন কবির রিগ্যাননের সঞ্চালনায় আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সধারণ সম্পাদক কবি মিনহাজুল আলম মামুন, সাংবাদিক বকুল খান। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন সাবেক ছাত্রদল অর্গানাইজেশন ইউরোপ-এর আহবায়ক ও স্পেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু জাফর রাসেল। 

আরও বক্তব্য দেন- বিএনপি নেতা সোহেল আহমদ সামসু, মুরশেদ আলম তাহের, স্পেন যুবদলের কাজী জসিম, সংগঠক আবু সায়েম,খলিলুর রহমান, জেন্স শিপার, সাংবাদিক কবির আল মাহমুদ, আসাদ আলী খান, ইয়াসিন আহমেদ, তোফাজ্জেল হোসাইন, ইকবাল হোসাইন প্রমুখ। 

সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আখতারুজ্জামান ছাত্রদের জঙ্গির সঙ্গে তুলনা করে দেওয়া বক্তব্য প্রত্যাহার করার দাবি জানানো হয়। তা না হলে ব্যর্থতার দায় নিয়ে ভিসিকে পদত্যাগ করে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে কলঙ্কমুক্ত করার আহ্বান জানান বক্তারা।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে আবু জাফর রাসেল বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমগ্র ছাত্রসমাজের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। ছাত্ররা তার বক্তব্যকে বিশ্বাস করে মাদার অব এডুকেশন উপাধি দিয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্তের কথা পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন। কিন্তু দীর্ঘ চার মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও তিনি তার বক্তব্যের গেজেট প্রকাশ না করায় শুধু ছাত্রসমাজ না, সমগ্র জাতির সঙ্গে প্রতারণা ও বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন।

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে গেজেট প্রকাশ না করলে স্পেন থেকে বৃহত্তর আন্দোলন ঘোষণা করা হবে। ৫২’র ভাষা আন্দোলনের মতো আপামর ছাত্রসমাজ তাদের যৌক্তিক দাবি বাস্তবায়ন করতে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

সভাপতির বক্তব্যে সুহেল ভূঁইয়া বলেন, কালের সাক্ষী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা করেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, পেটানোর সময় অনেক মানুষ পাশে থাকলেও কেউ এগিয়ে আসেনি।

সুহেল ভূঁইয়া আরও বলেন, ‘কোটা আন্দোলনকারীদের জঙ্গি বলে আখ্যা দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি। ইস্যুটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত চেষ্টা করছেন। আমরা অবিলম্বে তার বক্তব্য প্রত্যাহারের জোর দাবি জানাচ্ছি।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে