সিনহাকে কাঠগড়ায় তোলার দাবিতে নিউইয়র্কে র‌্যালি

  এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে

২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:১৯ | আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা আজগুবি তথ্যে শেখ হাসিনা ও তার সরকারের বিরুদ্ধে হাসি-তামাশার অবতারণা করেছেন। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে মন্তব্যের জেরে অমার্জনীয় অপরাধ করেছেন তিনি। এ জন্য ‌‘সিনহাসহ মদদদাতাদের কাঠগড়ায় তোলার বিকল্প নেই’-এমন দাবিতে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির ডাইভার্সিটি প্লাজায় একটি র‌্যালি হয়েছে।

নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে অনুষ্ঠিত এ র‌্যালির এক পর্যায়ে এস কে সিনহার কঠোর সমালোচনামূলক সমাবেশে পরিণত হয়। এ সময় অনেকের হাতেই ছিল ‘ধর রশি মার টান-তারেক সিনহা হবে খান খান’, ‘সিনহার বই এ ব্রোকেন ড্রিম-পুরোটাই দুর্নীতির ক্রিম’ ইত্যাদি লেখা প্লেকার্ড।

যুক্তরাষ্ট্র শেখ হাসিনা মঞ্চ, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ প্রভৃতি সংগঠনের ব্যানারে এ অনুষ্ঠানে সাধারণ প্রবাসীরাও ছিলেন। সভাপতিত্ব করেন কায়কোবাদ খান।

অ্যাডভোকেট শাহ বখতিয়ারের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগ নেতা ড. প্রদীপ কর, আব্দুর রহিম বাদশা, কাজী কয়েস, মিসবাহ আহমেদ, ফরিদ আলম, হিন্দুল কাদির বাপ্পা, চন্দন দত্ত, আর আমিন, ফারুক আহমেদ, শাহীন আজমল, হেলাল মাহমুদ, জালালউদ্দিন জলিল, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহবায়ক জামাল হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক ইফজাল চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তারা এস কে সিনহাকে সর্বকালের সেরা দুর্নীতিবাজ বিচারক হিসেবে অভিহিত করে বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের প্ররোচনায় জুডিশিয়াল ক্যু করতে চেয়েছিলেন এস কে সিনহা। সেটি ব্যর্থ হওয়ার পর মুচলেকা দিয়ে দেশত্যাগ করে পুনরায় জামায়াত-শিবিরের অর্থে নতুন খেলায় মেতে উঠেছেন। এহেন জঘন্য অপতৎরতা রুখে দিতে প্রবাসীরাও ঐক্যবদ্ধ।’

আওয়ামী লীগ নেতা মিসবাহ আহমেদ বলেন, ‘বিশ্ব নেতাদের প্রশংসায় ধন্য হচ্ছেন শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সূচকেও যখন বাংলাদেশের মানুষের জীবনমানের উন্নয়নের চিত্র প্রস্ফুটিত হচ্ছে, সন্ত্রাস নির্মূলে জিরো টলারেন্স সত্যিকার অর্থেই কার্যকর রয়েছে, এমন সময়ে এস কে সিনহার মতো জাতীয় বেঈমানরা জঘন্য ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।’

যুক্তরাষ্ট্রে আয়েশি জীবন-যাপনকারী এস কে সিনহাকে বিচারে সোপর্দ করার দাবিতে গতকাল রাতে নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আরেকটি সভা হয়েছে পালকি চায়নিজ সেন্টারে। এতে সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী এবং নেতৃবৃন্দের মধ্যে ছিলেন আলহাজ্ব মফিজুর রহমান, আব্দুল কাদের মিয়া, মাসুদ হোসেন সিরাজি, আব্দুল হাই জিয়া, নূরল আমিন বাবু, সুব্রত চৌধুরী, আবুল কাশেম প্রমুখ।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে