নির্বাচনী ইশতেহারে প্রবাসীদের অধিকার ইস্যু অন্তর্ভুক্তির দাবি

  মোহা. আবদুল মালেক হিমু, প্যারিস

০৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:০০ | আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

কাজী এনায়েত উল্লাহ (বাঁয়ে), আলীম আল রাজি (ডানে উপরে) ও ফকরুল আকম সেলিম

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী ইশতেহারে প্রবাসীদের অধিকার ইস্যু অন্তর্ভুক্তির দাবি জানিয়েছেন প্রবাসীরা। সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রবাসীরাদের অধিকার নিয়ে সোচ্চার থাকা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশি কমিউনিটির বিশিষ্টজনেরা এ মতামত ব্যক্ত করেছেন।

বিশিষ্টজনরা বলেন, বিভিন্ন সময় সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে প্রবাসীদের মৌলিক দাবি পুরণের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও তা পরে বাস্তবায়ন  করা হয়নি। তাই আসন্ন নির্বাচনে রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী ইশতেহারে প্রবাসী সংক্রান্ত বিষয় উল্লেখ থাকা প্রয়োজন বলে মনে করেন প্রবাসীরা।  

নির্বাচনে প্রবাসীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ বলেন, ‘সংবিধানে সব নাগরিকের সমান অধিকারের কথা বলা হলেও স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৭ বছরে এক কোটির অধিক প্রবাসী বাংলাদেশির মৌলিক অধিকার আজও প্রতিষ্ঠিত হয়নি। অথচ স্বাধীনতা যুদ্ধে আন্তর্জাতিক সমর্থন ও জনমত গঠনে প্রবাসীদের অবদান অনেক। সেই সাথে স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে এখন পর্যন্ত দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রেখে চলেছেনে এই প্রবাসীরা। তাই প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রলালয়ে প্রবাসীদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করা করা, মরদেহ বিনা খরচে দেশে প্রেরণ, ভোটাধিকার নিশ্চিত, ঢাকা বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধসহ এ সংক্রান্ত বেশ কিছু বিষয় নির্বাচনী ইশতেহারে থাকা জরুরি।’

তুলুজ বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্সের সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফকরুল আকম সেলিম বলেন, ‘দেশের উন্নয়নের প্রবাসীদের নিরাপদ বিনিয়োগের পরিবেশ সৃষ্টি ও সামাজিক নিরাপত্তার উদ্যোগকে নির্বাচনী ইশতেহারে আরও গুরুত্ব দিবে হবে । প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় বিভিন্ন পদক্ষেপ নিলেও সেগুলি সম্পর্কে বেশির ভাগ প্রবাসী তেমন ভালোভাবে অবহিত নন।’

আর্জেন্টিনা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আলীম আল রাজি বলেন, ‘আমরা রেমিটেন্স পাঠিয়েই দেশের প্রতি দায়িত্ব শেষ করতে চাই না। আমরা আমাদের মেধা, অভিজ্ঞতা এবং যোগ্যতাকে কাজে লাগিয়ে দেশের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পর্যটন এবং কৃষিতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিরাপদে বিনিয়োগ করতে চাই। নিরাপদ বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশকে রাজনৈতিক দলগুলির এইবারের নির্বাচনী ইশতেহারে বেশি করে গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন। তাই প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে প্রবাসী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে হবে।  এ ছাড়া বাংলাদেশের জনশক্তি রপ্তানির দিকেও বেশি করে নজর দিতে হবে।’

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এক কোটিরও বেশি বাংলাদেশি এবার ভোটে অংশগ্রহণ করতে পারছেন না, যদিও নির্বাচন কমিশন থেকে পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে প্রবাসীদের ভোটে অংশ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। কিন্তু এত বিপুল সংখ্যক প্রবাসীর ভোটারাধিকার নিশ্চিত করা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার বলে জানানো হয়েছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে