ছোট পুঁজিটাই আক্ষেপ

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৮ মার্চ ২০১৮, ২৩:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

ক্যাচ মিসের মহড়ার পরও ভারতের বিপক্ষে বড় সংগ্রহ তুলতে পারেনি টাইগার বাহিনী। ছোট পুঁজিটাই শেষ পর্যন্ত আক্ষেপ হয়ে ধরা দেয়। ১৩৯ রানের লক্ষ্যটি ৮ বল বাকি থাকতেই টপকে যায় ভারত।

টি-টোয়েন্টিতে বরাবরের মতই দুর্বল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তার উপর দলে নেই বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সেই দুর্বল যায়গায়টাতেই আঘাত করেছে টিম ইন্ডিয়া। সুযোগে সদ্ব্যবহার করে টাইগারদের স্বল্প পুঁজিটাকেই আক্ষেপে পরিনত করে জয় বগলদাবা করেছে রোহিত শর্মার দল।

ভারতের জয়ের মূল ভিত গড়ে দেয় আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি থেকে ১০ রান দুরে থাকা শিখর ধাওয়ান। ৪৩ বলে ৫৫ রান করা এই ব্যাটসম্যনের ইনিংসটি সাজানো ছিল পাচঁটি চার এবং দুটি ছয়ে। বাঁহাতি ওপেনার শিখর ধাওয়ানকে ফেরান তাসকিন আহমেদ। অফ স্টাম্পের ফুল লেংথ বল উড়াতে চেয়েছিলেন ধাওয়ান। টাইমিং করতে পারেননি। বল উঠে যায় আকাশে। কিছুটা এগিয়ে এসে ক্যাচ মুঠোয় নেন লিটন দাস।

ভারতীয় শিবিরে প্রথম ধাক্কা দেয় ‘দ্য কাটার’ খ্যাত মুস্তাফিজুর রহমান। বাঁহাতি এই পেসার ফিরিয়ে দেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে। শরীরের কাছের বল লেট কাট করতে গিয়ে স্টাম্পে টেনে এনে বোল্ড হয়ে যান রোহিত। ১৩ বলে তিনটি চারে তিনি করেন ১৭ রান।

মানিশ পাণ্ডে ২৭ ও দিনেশ কার্তিক ২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। ১ রানে জীবন পাওয়া সুরেশ রায়নার ব্যাট থেকে আসে ২৮। ৪০ রানে দুই উইকেট হারানোর পর দুজনের ৬৮ রানের তৃতীয় উইকেট জুটিতে জয়ের পথ ধরে ভারত। রোহিত শর্মা ১৭, রিশভ প্যান্ট ৭ রান করে আউট হন। রুবেল হোসেন দুটি উইকেট লাভ করেন। একটি করে নেন মোস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ।

এদিকে, ভারতের বোলারদের শর্ট বলের বিপরীতে তাসের ঘরের মত লুটিয়ে পড়ে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ। শুধু লিটন দাস এবং সাব্বির রহমান বাদে আর কেউই সেভাবে টিকে থাকতে পারেননি। তারপরেও ঠুনকো ব্যাটিংয়ে ১৪০ রানের টার্গেটটি ছিল দলের জন্য উপকারী। এটি পেরুতে ১৮ ওভার চার বল খেলতে হয়েছে ভারতের।

ব্যাটিংয়ে নেমে ঝড়ো শুরু করেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল এবং সৌম্য সরকার। কিন্তু ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের চতুর্থ বলে জয়দেব উনাদকাতকে শর্ট ফাইন অঞ্চল দিয়ে উড়িয়ে মারতে গিয়ে যুজভেন্দ্র চাহালের তালুবন্দি হন এই ওপেনার। তামিম-সৌম্য জুটি থামে ২০ রানে এর আগে ১১৬ স্টাইক রেটে ১২ বলে ১৪ রান করেন সৌম্য। একটু পরই শার্দুল ঠাকুরকে পরপর দুই বলে চার হাঁকিয়ে ফিরে যান তামিম ইকবাল। সৌম্যের মতো তিনিও ধরা পড়েন শর্ট ফাইন লেগে।

থিতু হওয়ার আগেই ফিরে যান মুশফিকুর রহিম। চারে নেমে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ১৪ বলে করেন ১৮ রান। ক্রিজে এসে রানের জন্য ছটফট করা মাহমুদউল্লাহ বেশিক্ষণ টিকলেন না। দলকে বিপদে ফেলে ৮ বলে ১ রান করে ফিরে যান ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক।

ভালো খেলতে থাকা লিটন দাস ৩০ বলে তিনটি চারে ৩৪ রান করেন । ক্রিজে সেট হয়েও লেগ স্পিনার যুজবেন্দ্র চেহেলের ফ্লাইটেড ডেলিভারিকে বাজে শট খেলে আউট হন তিনি । এরপর সাব্বির রহমানের দিকে তাকিয়ে ছিল বাংলাদেশ। জয়দেব উনাদকাটের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরে গেছেন সাব্বির। এর আগে ২৬ বলে ৩০ রান করা সাব্বির রিভিউ নেন। কিন্তু তাতে পাল্টায়নি সিদ্ধান্ত। এরপর সেভাবে আর কেউই রানের গতি পারেননি। মেহেদি হাসান মিরাজ ৩, তাসকিন আহমেদ ৮ এবং রুবেল হোসেন শূণ্য রান করেন।

ভারতের হয়ে দুই পেসার জয়দেব উনাদকাত তিনটি ও বিজয় শংকর দু’টি উইকেট লাভ করেন। একটি করে নেন শারদুল ঠাকুর ও স্পিনার যুজভেন্দ্র চাহাল। রানআউট হন রুবেল হোসেন (০)।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে