• অারও

আস্থার নাম সালাহ

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৬ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ০৬ এপ্রিল ২০১৮, ০১:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে আবার দলের আস্থার প্রতিদান দিলেন লিভারপুলের মিশরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহ। এবারের মৌসুমে লিভারপুলের হয়ে প্রায় প্রতি ম্যাচেই গোল করে চলেছেন এই গোলমেশিন। বুধবার রাতের ম্যাচে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল লিভারপুল এবং ম্যানচেস্টার সিটি। দুই ইংলিশ ক্লাবের লড়াইয়ে গোলবন্যার আশঙ্কা করেছিলেন ফুটবলপ্রেমীরা। তবে ইয়ুর্গেন ক্লপের লিভারপুল যে এভাবে একচেটিয়া লড়াই করে যাবে, তা ধারণা করেননি অনেকেই। ম্যাচে সিটিকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে লিভারপুল।

ঘরের মাঠে দলের হয়ে প্রথম গোলটি করেন সালাহ। ১২ মিনিটের মাথায় রবার্তো ফার্মিনোর পাস থেকে গোল করেন তিনি। রবার্তোর শট প্রতিহত হয়ে তার কাছেই ফিরলে তা সালাহর দিকে বাড়িয়ে দেন ফার্মিনো। ক্লোজ রেঞ্জার শটে বল ম্যান সিটির জালে জড়িয়ে দেন মিশরীয় তারকা। এটি ছিল মৌসুমে সালাহর ৩৮তম ও চ্যাম্পিয়নস লিগে সপ্তম। এরপর একে একে অ্যালেক্স অক্সালেড-চেম্বারলেইন ও সাদিও মানের দুই গোলে প্রথমার্ধেই লিভারপুলের জয় নিশ্চিত হয়ে যায়। তৃতীয় গোলেও সালাহর অবদান ছিল। তার ক্রসেই মানে হেড দিয়ে দলকে তৃতীয় গোল উপহার দেন। প্রথমার্ধের উজ্জীবিত লিভারপুলকে অবশ্য দ্বিতীয়ার্ধে দেখা যায়নি। এর কারণ হতে পারে সালাহর অনুপস্থিতি। কুঁচকির ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে ৫৩ মিনিটে মাঠ ছাড়েন এই মিশরীয় তারকা। আগামী সপ্তাহে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচের আগে ক্লাবের সর্বোচ্চ গোলদাতার ফিটনেস নিয়ে চিন্তিত হতেই পারেন ক্লপ। এরপর পুরো ম্যাচে লিভারপুলের গোলপোস্ট লক্ষ্য করে একটিও সরাসরি শট নিতে পারেননি জেসুসরা। বরং অ্যানফিল্ডে লিভারপুলের ক্রমাগত আক্রমণ প্রতিহত করার চেষ্টায় হলুদ কার্ড দেখে বসেন সিটির গ্যাব্রিয়েল জেসুস, কেভিন ডি’ব্রুইন, নিকোলাস ওতামেন্দি ও রহিম স্টার্লিং। সিটির ঘরের মাঠে ফিরতি লেগের খেলা এখনো বাকি থাকলেও ইয়ুর্গেন ক্লপের দল একই রকম ফর্ম বজায় রাখলে চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার থেকেই বিদায়ঘণ্টা বেজে যেতে পারে গার্দিওলার দলের। প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা নিশ্চিত হলেও চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের খেলা এখন অনেকটাই অনিশ্চিত সিটিজেনদের।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে