• অারও

তাসকিনের ফেরার লড়াই

  ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৩ মে ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৩ মে ২০১৮, ০৩:৩৫ | অনলাইন সংস্করণ

‘পাঁচ সপ্তাহ পর বোলিং করলাম। কোনো সমস্যা অনুভব করিনি। অবশ্য ২-৩ দিন পর বুঝতে পারব, সমস্যা পুরোপুরি কেটে গেছে নাকি এখনো আছে।’

ইনজুরিকে (পিঠের ব্যাথা) জয় করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তাসকিন আহমেদ। এতদিন জিম ও রানিং করেছেন। গতকাল প্রথমবার বিসিবি একডেমি মাঠে বোলিং করলেন তিনি। নেটে ব্যাটিং করছিলেন তামিম ইকবাল। ড্যাশিং ওপেনারের উইকেট একবার উপরে দিলেন তাসকিন। বোলিং অনুশীলন শেষে আমাদের সময়কে বললেন, ‘চার ওভার বোলিং করলাম। ভালো লাগছে।’

রিহ্যাবে থাকা তাসকিন কদিন থেকেই নিয়মিত বিসিবি একাডেমি ভবনে আসছেন। শরণাপন্ন হচ্ছেন ফিজিওর। পাশাপাশি জিম ও রানিং করছেন। ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠা তার লক্ষ্য।

সময়টা ভালো যাচ্ছে না তাসকিন আহমেদের। বল হাতে নিজের ছায়া হয়ে আছেন। জাতীয় দলে সুযোগ পেলেও নিজেকে প্রমাণ করতে পারছেন না। তার খেসারতও দিতে হয়েছে। পারফরম্যান্সের অবনতিতে বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়েছেন ডানহাতি এ পেসার।

ইনজুরির কারণে বিসিএলের শেষ তিন রাউন্ডে খেলা হয়নি তাসকিনের। নিজেকে ফিরে পেতে কঠোর পরিশ্রম করছেন ডানহাতি পেসার। সামনে জাতীয় দলের ব্যস্ত সূচি রয়েছে। জুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এর পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর রয়েছে। এশিয়া কাপও দূরে নয়। কিছুদিন আগেই তাসকিন বলেছিলেন, ‘আমার পারফরম্যান্সে আমি অবশ্যই সন্তুষ্ট নই। আমি জানি আমি আরও ভালো বোলার, আগেও প্রমাণ করেছি। সামনের সুযোগ পেলে ভালো খেলার চেষ্টা করব। কী কী ভুল ছিল, কী কী শোধরানো যেতÑ সেগুলো নিয়ে চিন্তা করছি। সিনিয়রদের সঙ্গে কথা বলছি, সব মিলিয়ে চিন্তা করলাম ফিটনেস আরও বাড়াতে হবে।’

মার্চে শ্রীলংকায় অনুষ্ঠিত নিদাহাস ট্রফির বাংলাদেশ দলে ছিলেন তাসকিন। প্রথম দুই ম্যাচ একাদশে ছিলেন তিনি। তবে আশানুরূপ পারফরম্যান্স করতে না পারায় এর পর আর সুযোগই পাননি। সাইডবেঞ্চে বসে থাকতে হয়েছিল তাকে। সামনের সিরিজগুলোয় দলে ডাক পাবেন কিনা, সে শঙ্কাও থাকছে! জাতীয় দলের পাশাপাশি লড়াইটা তাসকিনের স্বরূপে ফেরারও বটে!

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে