অভিজ্ঞতায় এগিয়ে বাংলাদেশ : মিরাজ

  ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৭ মে ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৭ মে ২০১৮, ০৮:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

কাঁধের ইনজুরিতে পড়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছিলেন, মিরাজের ইনজুরি কাটিয়ে উঠতে এক-দেড় মাস লেগে যাবে। এরই মধ্যে এক মাসের বেশি অতিবাহিত হয়েছে। মিরাজ জানালেন, যে ভয়টা করেছিলেন, সেটা কাটিয়ে উঠেছেন। সার্জারি লাগছে না। বর্তমানে যে অবস্থায় আছেন, তাতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের আগেই শতভাগ ফিট হয়ে যাবেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে যে মিরাজ খেলার জন্য মুখিয়ে আছেন, তা বাড়িয়ে বলার অপেক্ষা রাখে না। অন্যদিকে মিরাজ জানান, আফগানিস্তানের চেয়ে অভিজ্ঞতায় এগিয়ে বাংলাদেশ।

বর্তমানে থ্রোয়িং প্রোগ্রাম চলছে মিরাজের। এখনো শতভাগ দিয়ে থ্রোয়িং করতে পারছেন না। মিরাজ বলেন, ২০ মিটার, ২৫ মিটার দূরে বল ছুড়ে থ্রোয়িংয়ের ব্যালান্সগুলো আনার চেষ্টা করছি। বোলিংয়ে আগে যে সমস্যাটা ছিল সেটা এখন নেই। থ্রোয়িংয়ে অনেক সমস্যা ছিল, বোলিংয়ের সময়ও ব্যথা করত। এখন ওই রকম ব্যথা আর করছে না। থ্রোয়িংটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ব্যথা আস্তে আস্তে অনেক কমেছে। এখন ২৫ মিটারের মতো ভালো করে থ্রোয়িং করেছি। এটা দিন দিন উন্নতি করতে হবে। জিম করে, রিহ্যাভ করে, যখন শক্তি বাড়বে তখন মিটার আস্তে আস্তে বাড়াব।

ভারতের দেরাদুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। তখন সেখানকার তাপমাত্রা ৩৬-৩৮ ডিগ্রি থাকতে পারে। সিরিজে কন্ডিশন কোনো প্রভাব ফেলবে না বলে মনে করেন মিরাজ। কন্ডিশন নিয়ে ভাবছেন না তারা। আফগানিস্তান দলে ভালো দুজন স্পিনার রয়েছেন। তবে অভিজ্ঞতায় বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখতে চান মিরাজ। তিনি বলেন, আফগানিস্তানের অবশ্যই দুজন ভালো স্পিনার রয়েছে। তবে আমাদেরও অভিজ্ঞতা আছে। বিশেষ করে সাকিব ভাই আছেন। রিয়াদ ভাইও ভালো বোলিং করেন। আরও যারা পেস বোলার আছেন, বলব যে সব মিলিয়ে আমাদের স্পিনাররা যারা আছেন তাদের মধ্যে ভালো একটা যোগাযোগ আছে। আমাদের টিমে অনেক অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছেন। এটা আমাদের অনেক এগিয়ে রাখবে।

আইপিএলে সাকিব-রশিদ খান আইপিএলে একই দলে খেলছেন। এটা কাজে দেবে কিনা? মিরাজ বলেন, সাকিব ভাই আইপিএল খেলেন এটা সবাই জানেন। বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার। এটা আমাদের জন্য বড় সুবিধা। রশিদ খানের সঙ্গে একসঙ্গে খেলছেনÑ এটা একটা সুবিধা। প্র্যাকটিস করেন, নেটে খেলেছেন। রশিদ খানও তো আমাদের দেশে প্রিমিয়ার লিগ খেলেছেন। আমাদের ব্যাটসম্যানরা সবাই ওর বিরুদ্ধে ব্যাটিং করেছেন। আমার কাছে মনে হয় যে, যার যার শক্তি অনুযায়ী খেললে আশা করা যায় ভালো কিছু হবে ইনশাল্লাহ। এদিকে গতকাল ছিল মিরাজের জন্মদিন। এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিকেটার এবং বাংলাদেশ দলের সাবেক কোচ গর্ডন গ্রিনিজ এসেছিলেন মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। গ্রিনিজ যখন টাইগারদের কোচ ছিলেন তখন মিরাজের বয়স ছিল মাত্র তিন বছর। মিরাজ বলেন, গ্রিনিজের সঙ্গে পরিচয় ও কথাবার্তা হয়েছে। ক্রিকেটের বিষয় নিয়ে সব কথা বলেছেন তিনি এবং উপদেশ দিলেন যে কষ্ট করতে হবে, কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। এগুলো করলে ভালো খেলা সম্ভব।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে