আফগান ঘূর্ণিতে শেষ লঙ্কানদের এশিয়া কাপ

  স্পোর্টস ডেস্ক

১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:০৬ | আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:১১ | অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তান স্পিনের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে শ্রীলঙ্কা। আফগানদের দেওয়া ২৫০ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ১৫৮ রানেই গুটিয়ে যায় হাথুরুসিংহের শিষ্যরা। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ও আজ রশিদ-মুজিবদের কাছে হেরে এশিয়া কাপের গ্রুপপর্বে বিদায়ঘণ্টা বাজে শ্রীলঙ্কার।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করে আফগানিস্তান ২৫০ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কার সামনে। টার্গেটে খেলতে নেমে ৫২ বল বাকি থাকতেই ১৫৮ রানে সবকটি উইকেট হারিয়ে ফেলে লংকানরা। ৯২ রানের বড় হারে গ্রুপপর্বেই শেষ হয় শ্রীলঙ্কার এশিয়া কাপ মিশন।

ইনিংসের দ্বিতীয় বল থেকেই উইকেট হারাতে থাকা শ্রীলঙ্কা শেষ পর্যন্ত অসহায় আত্মসমর্পণ করে অপেক্ষাকৃত অনভিজ্ঞ আফগানদের কাছে। ওপেনিংয়ে নেমে থারাঙ্গার করা ৩৬ রানই সর্বোচ্চ। মাঝে সিলভা (২৩) ও পেরেরা (১৭) ক্রিজে থিতু হওয়ার চেষ্টা করেও পারেননি টিকে থাকতে।

এ ছাড়া অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলা মেথুস ২২, জয়সুরিয়া ১৪ রান করে সাজঘরে ফিরে যান। তবে ক্রিজে থিসারা পেরেরা থাকায় কিছুটা সম্ভবানা উঁকি দিচ্ছিল। কিন্তু নিজের ২৮ ও দলীয় ১৫৬ রানের মাথায় পেরেরা ফিরে গেলে লংকানদের লড়াই করার স্বপ্ন একদম ভেস্তে যায়। রশিদ খানের বলে মালিঙ্গা এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হলে খেলার ইতি ঘটে। আফগানিস্তানের হয়ে মুজিব-রশিদ-নাইব-নবী নিয়েছেন দুটি করে উইকেট করে উইকেট। দুজন লঙ্কান ব্যাটসম্যান (সিলভা-জয়সুরিয়া) রানআউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরে যান।

এর আগে পুরো ৫০  ওভার ব্যাট করে  সবকটি উইকেট হারিয়ে  ২৪৯ রান করে আফগানিস্তান।সর্বোচ্চ রান আসে রহমত শাহের ব্যাট থেকে। ৫ চারের মারে ৯০ বলে ৭২ রান করেন তিনি। এ ছাড়া ৩০ রানের ঘর পেরিয়েছেন তিন আফগান ব্যাটসম্যান। দুই ওপেনার শাহজাদ-ইহসানুল্লাহ করেন ৩৪ ও ৪৫ রান করে। এ দুজনের ওপেনিং জুটিতে আসে ৫৭ রান। 

মাঝে রহমত শাহের সঙ্গে ৮০ রানের জুটি গড়ে ৩৭ রান করেন হাসমতুল্লাহ শাহীদি। এ জুটিই আজকের ম্যাচে আফগানিস্তানের সর্বোচ্চ জুটি। শেষ দিকে মেরে খেলতে গিয়ে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান নবী (১৫) ও জর্দান (১২)। তবে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন দলনেতা আসগর আফগান। তিনি মাত্র ১ রান করে সাজঘরে ফিরে যান। বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ ধসিয়ে দেওয়া শ্রীলঙ্কান ফাস্ট বোলার লাসিথ মালিঙ্গাকে আফগানদের বিপক্ষে ছিলেন সাদামাটা। প্রথম ওভার থেকেই তার উপর চড়াও হয়েছিলেন শাহজাদ-ইহসানুল্লাহরা। ১০ ওভার করে ৬৫ রান খরচ করেন। বিনিময়ে একটি উইকেট পান।

লঙ্কানদের মধ্যে একমাত্র সফল বোলার থিসারা পেরেরা। ৯ ওভারে ৫৫ রান দিয়ে তিনি তুলে নেন পাঁচ উইকেট। ধনাঞ্জয়া সিলভার নেন দুই উইকেট। এ ছাড়া মালিঙ্গা-চামিরা-জয়সুরিয়ার ঝুলিতে একটি করে উইকেট জমা হয়। 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে