ভারতকে সুবিধা দিতে সূচি পরিবর্তন, নাখোশ মাশরাফি

  স্পোর্টস ডেস্ক

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৫৭ | আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্বের ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই গ্রুপের এক নম্বর ও দুই নম্বর ঠিক করে নতুন সূচি দিয়েছে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। নতুন সূচিতে বাংলাদেশকে খেলতে হবে টানা দুই ম্যাচ। এতেই চটেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

এসিসির দেওয়া সংশোধিত সূচিতে এ গ্রুপ থেকে ভারতকে এক নম্বর ও পাকিস্তানকে দুই নম্বর দল হিসেবে ধরা হয়েছে। অন্যদিকে ‘বি’ গ্রুপ থেকে আফগানিস্তানকে এক নম্বর ও বাংলাদেশকে দুই নম্বর দল হিসেবে ধরে দেওয়া হয়েছে সুপার ফোরের সূচি। যদিও এখনো গ্রুপ পর্বের ম্যাচই শেষ হয়নি!

বাংলাদেশ-পাকিস্তান উভয় দলই যদি গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ জিতে তবুও তারা গ্রুপের দুই নম্বর দল হিসেবেই থাকবে এসিসির নতুন সূচি অনুযায়ী।  আর এমন নজিরবিহীন কাণ্ড ঘটানো হয়েছে একমাত্র ভারতকে সুবিধা দেওয়ার জন্য। কারণ ভারত চায় না দুবাই থেকে আবুধাবিতে গিয়ে ম্যাচ খেলতে। আগের সূচি অনুযায়ী আবুধাবিতে ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল ভারতের। তাই হংকংয়ের সঙ্গে ভারতের জয়ের পর তড়িঘড়ি করে নতুন সূচি দেয় এসিসি।

আগের সূচিতে এ১-বি২ দুবাইতে এবং বি১-বি২ খেলার কথা ছিল আবুধাবিতে। ভারতকে এ১ ধরাতে সব ম্যাচ এখন দুবাইতেই খেলবেন রোহিত শর্মারা। নতুন সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশকে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের সঙ্গে ম্যাচের পরদিনই আবার সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে নামতে হবে ভারতের বিপক্ষে। বাংলাদেশ যদি আফগানিস্তানকে হারিয়ে গ্রুপের একনম্বর দলও হয় তবুও গ্রুপের দুই নম্বর দল হিসেবে ভারতের বিপক্ষে নামতে হবে।

বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা এসিসির এমন কাণ্ড মেনে নিতে পারছেন না। মাশরাফি বলেন, ‘এটা খুবই হতাশাজনক, আমরা এখানে (দুবাইতে) একটি পরিকল্পনা নিয়ে এসেছি, কিন্তু গ্রুপ পর্বের ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই আমাদেরকে দুই নম্বর দল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।’

মাশরাফি আরও বলেন, ‘আমরা ভালো খেলে যদি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হই তাহলে আমাদের সুপার ফোরে লড়তে হবে এ গ্রুপের রানার্সআপের সঙ্গে। কিন্তু সকালে আমাদের শুনতে হয়েছে আমরা ‘বি’ গ্রুপের রানার্স আপ (দুই নম্বর দল)। এটা অবশ্যই হতাশাজনক।

মাশরাফি গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচ নিয়ে বলেন, ‘এটা আন্তর্জাতিক ম্যাচ, যেখানে আমরা আমাদের দেশকে উপস্থাপন করি। যখন আপনি গ্রুপ পর্ব কিংবা সুপার ফোরের ম্যাচ নিয়ে কথা বলবেন, নিশ্চয় এখানে কোনো নিয়ম-কানুন আছে। কিন্তু আমরা এখন নিয়মের বাহিরে চলে গেছি, এটা হতাশার বিষয়।’

বাংলাদেশ আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে। আবার পরদিন শুক্রবার খেলতে হবে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে