ফাইনালে যেতে যে সমীকরণ বাংলাদেশের সামনে

  স্পোর্টস ডেস্ক

২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:০১ | আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

দুবাইয়ে এশিয়া কাপের শুরুটা দুর্দান্ত শুরু করলেও গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বাজেভাবে হারতে হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে হেরে মাশরাফিরা সুপার ফোর পর্বের টিকিট পেয়েছিল গ্রুপের রানার্স আপ হিসেবে। লক্ষ্য ছিল ভারতকে হারিয়ে সুপার ফোরের সাবলীল যাত্রার। কিন্তু রোহিত শর্মার দলের কাছে ৭ উইকেটে হেরে নানা সমীকরণের সামনে টাইগাররা।

টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে না গেলেও আশঙ্কাটা বেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। দলের ওপেনিং ভিত শক্ত না হওয়ায় শঙ্কা এড়াতে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ফর্মে না থাকা সৌম্য সরকার এবং দলের বাইরে থাকা ইমরুল কায়েসকে। লিটন ও শান্তর ওপর ভরসা করতে না পেরে টিম ম্যানেজমেন্ট ঝুঁকেছে তামিম ইকবালের পছন্দের দুই সতীর্থের দিকে।

সৌম্য-ইমরুল দুবাই যাচ্ছেন তা আগে থেকে না জানলেও এখন ফাইনাল খেলার স্বপ্ন দেখছেন মাশরাফি। ভারতের বিপক্ষে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমরা তো এখনো টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাইনি। একটা দিন সময় পাচ্ছি চিন্তাভাবনা করার। এখনো ফাইনাল খেলা সম্ভব। হতাশ হওয়ার কিছু নেই। কামব্যাক করার সুযোগ আছে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে যদি জিততে পারি, পাকিস্তানের সঙ্গে ম্যাচটা ফিফটি-ফিফটি হয়ে যাবে।’

মাশরাফির কথাতেই রয়েছে ফাইনালের সমীকরণ। কিভাবে? এখন পর্যন্ত সুপার ফোরে আফগানিস্তান জিতেছে একটি ম্যাচ। হেরেছে পাকিস্তানের বিপক্ষে। আবার পাকিস্তান হেরেছে ভারতের বিপক্ষে। জয় পেয়েছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। সে হিসেবে আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পেলেই বাংলাদেশ ২৬ তারিখের ম্যাচ খেলার স্বপ্ন বুঁনতে পারবে।

তবে তাতেও বাধা আছে। ফাইনাল খেলতে হলে বাংলাদেশের তাকিয়ে থাকতে হবে ভারতের দিকে। কেননা বাংলাদেশ ভারতের বিপক্ষে আগেই হেরেছে। আশা করতে হবে বাকি ম্যাচগুলো যেন ভারত জেতে, সুপার ফোরের সেরা দল হিসেবে ফাইনালে যায়, আর বাংলাদেশ যদি আফগান জয় করে পাকিস্তানের বিপক্ষে জেতে, তাহলে দ্বিতীয় সেরা হিসেবে ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

পাকিস্তান সুপার ফোরে একটি জয় পেয়েছে। অপর দিকে বাংলাদেশের শূন্য। আজ  বাংলাদেশ জিতলে আফগানিস্তান ও পাকিস্তান দলের সমান পয়েন্ট হবে। আবার ২৬ তারিখে যদি বাংলাদেশ জেতে তবে পয়েন্ট হবে ভারত ৬, বাংলাদেশ ৪, পাকিস্তান ২ ও আফগানিস্তান ০।

এতে সবার আগে বিদায় নেবে আফগানিস্তান। তৃতীয় হয়ে বাড়ি ফিরতে হবে পাকিস্তানকে। যদি এই সমীকরণ দাঁড়ায় তবে বাংলাদেশ খেলবে টানা দ্বিতীয় এশিয়া কাপ ফাইনাল।

আজ বিকেলে বাংলাদেশের কাছে হেরে আসগর আফগানের দল যদি ভারতের বিপক্ষে জয় পায়, এতে সমস্যা হবে না টাইগারদের। পাকিস্তানকে হারালেই ভারতকে নিয়ে ফাইনালে যাবে বাংলাদেশ। যদি তাই হয়, তখন সমীকরণ দাঁড়াবে ভারত ৪, বাংলাদেশ ৪, পাকিস্তান ২ ও আফগানিস্তান ২। আবার ভারত যদি আফগানদের বিপক্ষে হেরে আবার পাকিস্তানের কাছে হারে তখন সমীকরণ হবে পাকিস্তান ৪, বাংলাদেশ ৪, ভারত ২ ও আফগানিস্তান ২। এতে ফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ-পাকিস্তান।

আবার আজ যদি আবারও টিম টাইগার হারে, তবে তাকিয়ে থাকতে হবে ভারতের দিকে। ভারতকে সব ম্যাচ জিততে হবে। আর পাকিস্তানকে একটি ম্যাচ হারতে হবে। আফগানিস্তানকেও প্রতি ম্যাচ হারতে হবে।

অপরদিকে ভারত বাদে বাকি দলগুলো একটি করে ম্যাচ জেতে তাহলে সমীকরণ দাঁড়ায় ভারত ৬ আর বাকি দলগুলোর পয়েন্ট ২ করে। এক্ষেত্রে রানরেটের ব্যাপারটা আসবেই। আর তা হলে বাংলাদেশের এশিয়া কাপে টিকে থাকার বিষয়টি চিন্তার বাইরে রাখতে হবে।

সমীকরণ সহজ হোক কিংবা জটিল। বাংলাদেশের জয়ের বিকল্প শুধু জয়ই। তামিমের পরিবর্তে সৌম্য-ইমরুল যদি জ্বলে ওঠেন আর মাশরাফি তার বোলিং টিম নিয়ে আফগানদের ধরাশায়ী করতে পারে, তবেই হয়তো তৃতীয়বারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনাল উপভোগ করা যাবে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে