sara

আরিফুল-মিরাজে মিরপুরে ফিরেছে স্বস্তি

  ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৩ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:২০ | আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি : এএফপি

তাইজুলের ভেলকিতে জিম্বাবুয়ে ব্যাটিং লাইনাপে ধস নেমেছিল। কিন্তু ব্রেন্ডন টেইলর-পিটার মুরের দারূণ জুটিতে ঘুরেও দাঁড়িয়েছিল। মোস্তাফিজ-খালেদ কিংবা তাইজুল-মিরাজ যখন জুটি ভাঙ্গতে ব্যর্থ তখন বল হাতে ত্রাতা হয়ে এসেছেন আরিফুল হক। পিটার মুরকে ফিরিয়ে মিরপুরে স্বস্তি এনে দেন। এরপরই সেঞ্চুরিয়ান টেইলরকে ফেরান মিরাজ।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ৯৯ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ২৯০ রান। ক্রিজে আছেন জার্ভিস ০ ও চাকাবা ৫ রানে। টেইলর-মুরের অবিচ্ছেদ্য জুটি থেকে রান আসে ৮১।  জিম্বাবুয়ে হাতে ৯ উইকেট এবং ২৫ রান নিয়ে ব্যাট করতে নেমেছিল। টাইগাররা প্রথম ইনিংসে ৫২২ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেন। জিম্বাবুয়ে এখনো পিছিয়ে আছে ২৩২ রানে।

তাইজুল-মিরাজের দারুণ বোলিংয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে আজ মঙ্গলবার তৃতীয় দিন দারুণ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। লাঞ্চের পর তাইজুলের ভেলকিতে ধস নামে সফরকারীদের ব্যাটিং লাইনআপে। কিন্তু ধসের শোককে শক্তিতে পরিণত করে  ঘুরে দাঁড়ান ব্রেন্ডন টেইলর-পিটার মুর।  ৬ষ্ঠ উইকেটে ১৩৯ রানের জুটি ভাঙ্গে পিটার মুরের (৮৩) আউট হওয়ার মাধ্যমে। মুরের পর ফিরে যান টেইলরও। তার ব্যাট থেকে আসে ১১০ রান।

তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনে তিন উইকেট নিয়ে লাঞ্চে যান টাইগাররা। লাঞ্চ থেকে ফিরে তাইজুল বোল্ড করে সাজঘরে পাঠান সিকান্দার রাজা ও ভয়ংকর হতে থাকা শেন উইলিয়ামসকে। সিকান্দার রাজা বিনা রানে ফিরে গেলেও উইলিয়ামসের ব্যাট থেকে আসে ১১ রান।

তাইজুল নাইটওয়াচম্যান ডোনাল্ড টিরিপানোকে ফিরিয়ে উইকেটের সূচনা করেন। এরপর মিরাজ ফিরান ক্রিজে থিতু হওয়া ব্রিয়ান চারিকে। টিরিপানো ৪৬ বলে ৮ রান করেন। ব্রিয়ান চারির ব্যাট থেকে ১২৮ বলে ৫৩ রান। গতকাল দ্বিতীয় দিনের  শেষ মুহূর্তে মাসাকদজাকে ১৪ রানে ফিরতে বাধ্য করেন তাইজুল।

এদিকে প্রথম ইনিংস মুশফিক-মিরাজ অপরাজিত ছিলন। ক্যারিয়ার সেরা ২১৯ রান করে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে দুই ডাবল সেঞ্চুরির মালিক হন। ৪২১ বল খরচ করে ১৮টি চার ও ১টি ছক্কার মারে তিনি রান করেন। মিরাজ ১০২ বলে ৬৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। মুমিনুল হক খেলেন ১৬১ রানের ঝকঝকে ইনিংস। মাহমুদুল্লাহ ৩৬ রান করে ফিরে যান সাজঘরে।

রোববার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৯টায় ম্যাচটি শুরু হয়। ইমরুল-লিটনের উইকেট পতনের মাধ্যমে টাইগারদের জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শুরু হয়েছিল। কিন্তু মুশফিক-মুমিনুলের ব্যাটে টাইগাররা ভালোভাবেই দিন পার করে দিয়েছে। চতুর্থ উইকেটের রেকর্ড জুটিতে দুজনেই তুলে নিয়েছিলেন সেঞ্চুরি। প্রথম দিন শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ছিল পাঁচ উইকেট হারিয়ে ৩০৩ রান।

মুমিনুল ১৬১ রান করে আউট হলেও মুশফিকুর রহিম অপরাজিত ছিলেন ১১১ রানে। চতুর্থ উইকেটে এ দুজনের জুটি থেকে আসে ৪৪৮ বলে ২৬৬ রান। নাইটওয়াচম্যান হিসেবে ব্যাট করতে নেমে চার রান করে ফিরে গিয়েছিলেন  তাইজুল ইসলাম। মাহমুদুল্লাহ কোনো বল খেলার আগেই আম্পায়ার প্রথম দিনের খেলার সমাপ্তি টানেন। ব্যাটিংয়ে নেমে দিনের শুরুতেই লিটন ৯ রান করলেও ইমরুল রানের খাতা খোলার আগেই ফিরে যান সাজঘরে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে