শাস্ত্রীয় সংগীতের মুগ্ধতা

  সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

২৬ এপ্রিল ২০১৮, ০১:৩৬ | প্রিন্ট সংস্করণ

সংগীতের উৎপত্তি মানব সৃষ্টির মতোই অজানা। কখন কোথায় এ রহস্য আজও তা উন্মোচিত হয়নি। কোনটা কার আগে সৃষ্টি তার সঠিক তথ্য আজও মেলেনি।
কিন্তু সৃষ্টিতত্ত্ব¡ অজ্ঞাত থাকলেও রয়েছে এর ধারাবাহিকতা। এই ধারাবাহিকতার আদলে উদ্ভব হয়েছিল সংগীত ও নৃত্যের নতুন নতুন ধারা ও রূপ। শাস্ত্র যাই বলুক মনের কথা সুর দিয়ে প্রকাশ করাই সংগীত। সে হোক যন্ত্র, মন্ত্র, কণ্ঠ কিংবা নৃত্যের মাধ্যমে। বাঙালি জাতির গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসকে ধরে রাখতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় একাডেমির জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলাকেন্দ্র মিলনায়তনে আয়োজন করা হয় শাস্ত্রীয় সংগীত ও নৃত্যানুষ্ঠানের। অনুষ্ঠানের শুরুতেই বক্তব্য প্রদান করেন মহুয়া মুখার্জী। এরপর আয়োজনে প্রথম পরিবেশনায় শাস্ত্রীয় কণ্ঠসংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী সানি জুবায়েরÑ ঠুমরি, প্রিয়াংকা গোপÑ খেয়াল ও ঠুমরি এবং শাস্ত্রীয় গৌড়ীয় নৃত্য পরিবেশন করেন র‌্যাসেল এগনেস প্যারিস প্রিয়াংকাÑ কালি ও কারা এবং পুতনাবধ। উপস্থাপনায় ছিলেন আবৃত্তিশিল্পী ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যয়।
তিন গুণী পাচ্ছেন বজলুর রহমান স্মৃতিপদক : বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে ২ মে প্রতিষ্ঠিত হয় খেলাঘর। শিশু-কিশোর সংগঠন খেলাঘরের প্রতিষ্ঠার ৬৬ বছর উপলক্ষে বজলুর রহমান ভাইয়া পদকে ভূষিত হচ্ছেন বিশিষ্ট লোকগবেষক শামসুজ্জামান খান, খেলাঘর সংগঠক কামাল চৌধুরী এবং নুরুর রহমান সেলিম।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে