শিশু নিনাদ হত্যা

সাক্ষীকে হুমকি একজন গ্রেপ্তার

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:৫৫ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীর খিলগাঁওয়ের শিশু নিনাদ হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে খাদিজা আক্তার রানী নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বুধবার তাকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ রয়েছেÑ খাদিজা আক্তার রানীকে গ্রেপ্তারের পর মামলার সাক্ষীকে হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে খিলগাঁও থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।
সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে গত ১৫ জুন রাতে খিলগাঁওয়ের ২১৫/৫ মেরাদিয়ার ভূঁঁইয়াপাড়ার পলিথিন পেঁচিয়ে শ^াসরোধে ৮ বছরের শিশু সাফওয়ান আল নিনাদকে হত্যা করা হয়। শিশুটির মায়ের মামা জহিরুল ইসলাম হত্যাকারী বলে অভিযোগ রয়েছে। ঘটনার পর জহিরুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। নিনাদ হত্যাকা-ের তিন মাস পর অভিযুক্ত জহিরুল ইসলাম ল্্্ড্ডুুর স্ত্রী খাদিজা আক্তার রানীকেও গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ।
ঢাকা মুখ্য মহানগর আদালত দুপক্ষেরই বক্তব্য শুনে খাদিজা আক্তার রানীর বিরুদ্ধে রিমান্ড নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানো হয়।
মামলার তদন্তরত ডিবি উপকমিশনার উত্তর খন্দকার নুরুন্নবী বলেন, জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে এ হত্যাকা-। সাক্ষ্য-প্রমাণ ও প্রযুক্তিগত বিশ্লেষণে সেটা স্পষ্ট। এর পরও পুরো ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটনে আমরা তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি।
নিনাদ বনশ্রী ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্র ছিল। ১৫ জুন রমজানের ঈদের আগের রাতে বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় শিশুটি। ঈদের দিন দুপুরে বেকারি পণ্য বহনকারী পরিত্যক্ত ভ্যানের ভেতরে নিনাদের মৃতদেহ দেখতে পায় পাড়ার শিশুরা। পরিবারের ভাষ্য, আসামিদের সঙ্গে শিশুর পরিবারের সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলছিল।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে