জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে আজ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

ভূষিত হবেন দুটি পুরস্কারে

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:৫০ | আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৮:৩৫ | প্রিন্ট সংস্করণ

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ার পাশাপাশি এ সংকট মোকাবিলায় দূরদর্শী ভূমিকা রাখার জন্য দুটি পুরস্কারে ভূষিত হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন চলাকালে নিউইয়র্কে তার হাতে পুরস্কার দুটি তুলে দেওয়া হবে। এ অধিবেশনে যোগ দিতে আজ শুক্রবার সকালে নিউইয়র্কের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর সফর সম্পর্কে জানাতে গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, মানবিক কারণে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়ে নজির স্থাপন করায় ‘প্রেস সার্ভিস নিউজ এজেন্সি’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘ইন্টারন্যাশনাল অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ দেবে।

জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান ও ফিনল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট মার্তি আহতিসারি এর আগে এ পুরস্কার পেয়েছেন বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ ছাড়া রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে দাতব্য সংগঠন ‘গ্লোবাল হোপ কোয়ালিশন’-এর পরিচালনা পর্ষদ প্রধানমন্ত্রীকে ‘স্পেশাল রিকগনিশন ফর আউটস্ট্যান্ডিং লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড দেবে।

সাধারণ অধিবেশনের এবারের প্রতিপাদ্য ঠিক করা হয়েছে ‘মেকিং দি ইউএন রিলিভেন্ট টু অল পিপল : গ্লোবাল লিডারশিপ অ্যান্ড শেয়ারড রেসপনসিবিলিটিস ফর পিসফুল, ইকুইটেবল অ্যান্ড সাসটেইনেবল সোসাইটিস’। রোহিঙ্গা সংকটের টেকসই সমাধানের চ্যালেঞ্জগুলো এবারের অধিবেশনে তুলে ধরবে বাংলাদেশ।

আন্তর্জাতিক চাপের মুখে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে গত বছরের শেষ দিকে বাংলাদেশের সঙ্গে একটি চুক্তি করলেও এখনো প্রত্যাবাসন কাজ শুরু করা সম্ভব হয়নি। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে গত বছর সাধারণ অধিবেশনে দেওয়া বক্তৃতায় পাঁচ দফা প্রস্তাব তুলে ধরেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে রাখাইনের পরিস্থিতি নিয়ে কফি আনান কমিশনের সব সুপারিশ বাস্তবায়ন করার কথাও ছিল।

নিউইয়র্কের উদ্দেশে আজ ঢাকা ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগ দিতে ছয় দিনের সরকারি সফরে আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় নিউইয়র্কের উদ্দেশে রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যুক্তরাজ্যের লন্ডন হয়ে তিনি নিইউয়র্ক যাবেন। সফরে তিনি ৫০ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন। এ ছাড়া ব্যবসায়ীদের ২০০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলও তার সঙ্গে যাবে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় সাধারণ পরিষদের  অধিবেশনে ভাষণ দেবেন এবং একই দিন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে তার বৈঠক করারও কথা রয়েছে। অধিবেশনের ফাঁকে প্রধানমন্ত্রীর একাধিক বিশ্বনেতার সঙ্গেও দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। তাদের মধ্যে রয়েছেনÑ এস্তোনিয়ার প্রেসিডেন্ট ক্রেস্টি কালিজুলেইদ এবং নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট। প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আয়োজিত সংবর্ধনায় যোগ দেবেন।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট আজ সকালে লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবে। একই দিনে লন্ডনের স্থানীয় সময় ৩টা ৫৫ মিনিটে বিমানটির হিথরো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা রয়েছে। যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার নাজমুল কাওনাইন প্রধানমন্ত্রীকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানাবেন।

দুদিনের যাত্রাবিরতির পর প্রধানমন্ত্রী রবিবার সকালে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে নিউইয়র্কের পথে লন্ডন ত্যাগ করবেন। বিমানটির ওইদিনই স্থানীয় সময় ১টা ৪০ মিনিটে নিউইয়র্ক লিবার্টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, নিউজার্সিতে অবতরণের কথা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন ও জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন প্রধানমন্ত্রীকে বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা জানাবেন। সফরকালে তিনি নিউইয়র্কের গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলে অবস্থান করবেন। আগামী ১ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টায় প্রধানমন্ত্রীর দেশের ফেরার কথা রয়েছে। 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে