ইন্টারনেট জগতে বাংলার স্বীকৃতি

চালু হল ডটবাংলা ডোমেইন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০১ জানুয়ারি ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ০১ জানুয়ারি ২০১৭, ০০:৩৩ | প্রিন্ট সংস্করণ

ডটবাংলা ডোমেইন চালুর মাধ্যমে ইন্টারনেট জগতে শুরু হলো বাংলা ভাষার পথচলা। ইন্টারনেটে রাষ্ট্রীয় ভাষার এ ব্যবহার এখন বিশ্বজুড়ে জাতীয় পরিচয়েরর স্বীকৃতি। ডটবাংলা কেবল একটি ডোমেইনের নাম নয়, এটি আজ বাঙালি জাতির আত্মপরিচয়ের একটি প্রতীক বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ডটবাংলার বিজয় ভাষা শহীদদের বিজয়। এ বিজয় মহান মুক্তিযুদ্ধের, এ বিজয় সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের।

গতকাল শনিবার গণভবনে ডটবাংলা ডোমেইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তিনি আরও বলেন, বাংলা ডোমেইন চালুর ফলে আইসিটি খাতে ব্যবসার আরও প্রসার ঘটবে। যারা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণার সমালোচনা করেছিলেন, তারাও ডটবাংলা ডোমেইন ব্যবহার করতে পারবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, টেলিযোগাযোগ সচিব মো. ফয়জুর রহমান চৌধুরী, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, বিটিসিএলের এমডি মাহফুজ উদ্দিন আহমদসহ আরও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার।

ডটবাংলা কী?

ওয়েব ঠিকানায় বাংলা বর্ণে লেখা সাইট নাম হচ্ছে ডটবাংলা। উদাহরণ হিসেবে এখন যেমন আমাদেরসময়ের ওয়েবসাইট পরিচয়ে রয়েছে ইংরেজি শব্দে dainikamadershomoy.com, ডটবাংলায় সেটা হবে আমাদেরসময়.বাংলা।

কী পাব ডটবাংলায়

ইন্টারনেট দুনিয়ায় বাংলার স্বীকৃতি এই ডটবাংলা। ইন্টারনেটে রাষ্ট্রীয় ভাষার এ ব্যবহার জাতীয় পরিচয়েরও স্বীকৃতি। ওয়েব ব্রাউজারের অ্যাড্রেস বারে লেখা ইউআরএল বা ইউনিফর্ম রিসোর্স লোকেটর হবে বাংলায়।

খরচ কেমন পড়বে

ডটবাংলায় ডোমেইন পাওয়া যাবে এক হাজার টাকায়। এই টাকা বছরপ্রতি ৫০০ টাকা সাবস্ক্রিপশন ফি হিসেবে এককালীন পরিশোধ ধরা হবে। মানে ডোমেইন নিতে হলে প্রথমেই দুই বছরের ফি দিতে হবে।

এতে বিশেষ শব্দের ডোমেইনের ক্ষেত্রে ফি ধরা হয়েছে ১০ হাজার টাকা। এই ডোমেইনের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর, কোম্পানি ও সংস্থাকে।

মেয়াদ শেষে ডোমেইনের নবায়ন ফি দিতে হবে বছরপ্রতি ৫০০ টাকা। মেয়াদ শেষে নবায়নের ক্ষেত্রে এক মাস ও তিন মাস সময়ের বিলম্বে ৫০০ ও এক হাজার টাকা জরিমানার কথা বলা হয়েছে। আর ৩ মাসের মধ্যে নবায়ন না করলে ডোমেইন হারাতে হবে।

কেউ ডোমেইন বিক্রি করলে তাতে মালিকানা পরিবর্তনের ফি রাখা হয়েছে ১৫০০ টাকা। ডোমেইন কেনার সময় যদি কেউ একসঙ্গে ৫ বছর ও ১০ বছরের ফি পরিশোধ করেন সে ক্ষেত্রে যথাক্রমে ২০ ও ৩০ শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে।

ডটবাংলা পেতে গ্রাহককে যেতে হবে বিটিসিএলের ওয়েবসাইটে (www.btcl.com.bd) বা এর কার্যালয়ে। ওয়েবসাইটে গিয়ে সহজেই অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ও ফরম পূরণ করে ডটবাংলা পাওয়া যাবে। এতে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের নিয়ম ও শর্ত দেওয়া রয়েছে। বিটিসিএলের কার্যালয়ে সরাসরি গিয়েও এই সেবা পাওয়া যাবে। এ ছাড়া কল সেন্টার নম্বার ১৬৪০২ এ কল করে সাহায্য নেওয়া যাবে।

প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এর আগে আমাদের সময়কে জানিয়েছিলেন, আনুষ্ঠানিক শুরুটা হয় ২০১০ সালে। ওই বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডটবাংলার জন্য আইক্যানে অনলাইনে আবেদন করেন। বাংলাদেশের আবেদনের পর সংস্থাটি বাংলা ভাষাকে মূল্যায়ন করে। ২০১১ সালে ইন্টারন্যাশনালাইজড ডোমেইন নেইমে (আইডিএন) লেখার ভাষা হিসেবে বাংলার আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পায় বাংলাদেশ। এরপর ইন্টারনেট অ্যাসাইনড নাম্বারস অথরিটির (আইএএনএ) অনুমোদনও মেলে। প্রধানমন্ত্রীর সেই উদ্যোগের ফসল এখন আমরা নিজেদের ঘরে তুলতে পেরেছি।

 

"

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে