গভর্নর হতে চায় কিশোর

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০১৭, ০০:২৬ | প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নির্বাচনে ভোট দিতে হলে নির্দিষ্ট বয়সের গ-ি পার হতে হয়। হাই স্কুলপড়–য়া জ্যাক বার্গেসনের বয়স মাত্র ১৬ বছর। কিন্তু এই বয়সেই ক্যানসাস রাজ্যের গভর্নর নির্বাচনে দাঁড়াতে প্রচারণা চালাচ্ছে সে। এ নিয়ে দেশটিতে শুরু হয়েছে হইচই।

ভোট দেওয়ার বয়স হয়নি, তার পরও জ্যাক নির্বাচনে দাঁড়াল কীভাবেÑ এমন প্রশ্ন যাদের মনে, তারা হয়তো জানেন না যে, ক্যানসাস রাজ্যে গভর্নরের কার্যালয়ে শাসকসংক্রান্ত কোনো পদে প্রার্থী হতে বয়সের কোনো সীমারেখা নেই। যুক্তরাষ্ট্রের অন্য সব রাজ্যে এ ব্যাপারে ন্যূনতম বয়স বেঁধে দেওয়া আছে।

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে কোনো রাজ্যের গভর্নর পদে নির্বাচনে এই প্রথম কোনো কিশোর প্রচার চালাচ্ছে। জ্যাক ২০১৮ সালের নির্বাচনে সর্বকনিষ্ঠ গভর্নর হতে চায়। গত বুধবার এবিসি নেটওয়ার্কের কমেডি শো ‘জিমি কিমেল লাইভে’ উপস্থিত হয় সে। তার ডেপুটি হিসেবে নির্বাচনে লড়বে আরেক শিক্ষার্থী আলেকজান্দার ক্লাইন।

উপস্থাপকের প্রশ্নের জবাবে কিশোর জ্যাক জানায়, শিশু-কিশোরদের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত করতে চায় সে। শোয়ের দিন সে উইচিটায় নিজের বাড়িতে ছিল। সেখান থেকে সরাসরি এক ভিডিওবার্তায় জ্যাক বলে, ‘অন্যতম প্রধান বিষয় হলো, আমি চাই শিশুরা যেন রাজনীতিতে যুক্ত হয়।’

এরই মধ্যে বেশ প্রচার চালাচ্ছে জ্যাক, বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তহবিলে উঠেছে ১৩শ ডলারেরও বেশি অর্থ। ডেমোক্র্যাটদের সমর্থন করে সে। সামাজিক যোগাযোগের একটি মাধ্যমে জ্যাক লিখেছেÑ আমরা বুঝি যে, যখন তরুণরা অফিস চালাতে চায়, তখন অনেকেই তাদের গুরুত্ব দিতে চায় না; কিন্তু একবার যদি ভোটাররা আমাদের অনন্য বার্তা শোনে, তবে বুঝতে পারবে যে এতে উভয় পক্ষেরই লাভ হবে। আমরা বিশ্বাস করি, পুরনো ধাঁচের রাজনীতি ও সরকার টেকসই আর কার্যকর নয়। এ ধরনের সরকার ভোটারদেরও বুঝতে পারে না।

জ্যাক বার্গেসন প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, নির্বাচিত হলে রাজ্যের বর্তমান স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনা হবে এবং স্কুলের শিক্ষকদের বেতন বাড়ানো হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে