ফাগুনের মোহনায়...

  জাহিদ ভূঁইয়া

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শীতের রুক্ষতা ঝেড়ে প্রকৃতি সেজেছে নতুন রূপে। গাছে গাছে সবুজ-সজীব পাতা। সেই পাতার আড়ালে কোকিলের কুহুতান। কৃষ্ণচূড়ার ডালে ডালে আগুনরঙা ফুলের সমাহার। বসন্তের এই আগমনী বার্তা নিয়ে এলো পহেলা ফাল্গুন। ফাগুনের আগুনে পুড়ছেন সবাই! অন্যদের মতো পুড়ছেন তারকারাও! লিখেছেনÑ জাহিদ ভূঁইয়া

জাকিয়া বারী মম

আজ শুধুই গাইতে ইচ্ছা করছে ‘ফাগুনের মোহনায়, মন মাতানো মহুয়ায়।’ যখন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছিলাম, তখন বন্ধুরা সবাই মিলে পহেলা ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবসে অনেক আনন্দ করতাম। এবারের বসন্তের এই দিনটি আমি কাটাতে চাই নাটকের বন্ধুদের সঙ্গে। সবার সঙ্গে ভাগ করে নিতে চাই বসন্তের আনন্দ। বাসন্তী শাড়ি পরব।

বিদ্যা সিনহা মিম

প্রতিবছরই একটা করে বসন্ত জীবনের খাতায় সঞ্চিত হয়। এর চেয়ে রোমাঞ্চকর ব্যাপার আর কী হতে পারে? একটা সময় বসন্ত এলে বাসন্তী শাড়ি পরে বন্ধুদের নিয়ে ঘুরে বেড়াতাম। জমিয়ে আড্ডা দিতাম। আরও কত কী! কিন্তু যখন অভিনয়ে এলাম, তখন থেকে উৎসবগুলো যেন কেমন হয়ে যেতে থাকল। বিশেষ দিনগুলোয় কাজের চাপ বেশি থাকে। তার পরও পহেলা ফাল্গুন অনেক আনন্দের।

পরীমণি

বসন্তে কোকিলের ডাক আমার মধ্যে প্রেম জাগায়। নস্টালজিক করে তোলে। পহেলা ফাল্গুনের অনেক স্মৃতি রয়েছে আমার। ছোটবেলায় ফাল্গুন এলেই পাড়াজুড়ে পড়ে যেত মিষ্টি খাওয়ার ধুম। বাসন্তী সাজে নিজেদের রাঙিয়ে নিত সবাই। মনে পড়ে যেত রবিঠাকুরের সেই বিখ্যাত গান ‘আজি বসন্ত জাগ্রত দ্বারে...।’ বসন্ত তো জীবনের অনুষঙ্গ। অভিনয়ে আসার পর সব ফাল্গুনই কেটেছে কাজের মধ্য দিয়ে। এবারও কাজের মধ্যেই কাটবে ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিনটি। সময় পেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বসন্ত উৎসবে যাওয়ার ইচ্ছা আছে।

মৌসুমী হামিদ

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘আজি দখিন-দুয়ার খোলাÑ এসো হে এসো হে...’ এই গানের লাইনটির মাঝেই খুঁজে পাই বসন্তের আনন্দ। এ যেন ঝরা পাতার খেলা শেষে নতুনের ডাক। ফাল্গুনের প্রথম ভোরটি যেন ভিন্ন আবেগের। আজ নাটকের কাজ আছে। আজকের দিনটি কাজের মধ্য দিয়ে কেটে যাবে। তবে একখানা হলুদ শাড়ি অন্তত অঙ্গে জড়াতে নিশ্চয় ভুলব না।

মেহজাবিন চৌধুরী

দেশের বাইরে বেড়ে উঠেছি। এ কারণে ছোটবেলায় খুব বেশি ফাল্গুনের আয়োজনে অংশ নিতে পারিনি। ঢাকায় আসার পর এই উৎসবের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়েছি। ফাল্গুনে চারদিকে ফুলের বাহার দেখে কী যে ভালো লাগে! বসন্তের বাতাসে সবকিছু এলোমেলো হয়ে যায়। এবারের ফাল্গুনের প্রথম দিনটি পরিবারের সবার সঙ্গে কাটাব। বিকালে সবাই মিলে কোথাও ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে