সাক্ষাৎকার

‘কথা ও সুর নয়, নজর ভিডিওর দিকে’

  তারেক আনন্দ

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী শফিক তুহিন। ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সাউন্ডটেকের ব্যানারে প্রকাশ হচ্ছে তার নতুন গান ‘অন্তর আত্মা জানে’। এই গান ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় এ শিল্পীর সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেনÑ তারেক আনন্দ

দীর্ঘদিন পর নতুন গান প্রকাশ হচ্ছে। এটি নিয়ে প্রত্যাশা কেমন?

আমার অনেক পছন্দের একটি গান। প্লাবন কোরাইশীর কথা ও সুরে সংগীতায়োজন করেছেন ইমন চৌধুরী। নিটোল প্রেমের গান। শ্রোতাদের সব সময় ভালো লাগবে।

অন্যের কথা সুরে, খুব একটা গাইতে দেখা যায় না। এই গানটি গাওয়ার উদ্দেশ্য?

সে আমাকে অনেকগুলো গান শুনিয়েছিল। ‘অন্তর আত্মা জানে’ গানটি আমার পছন্দ হয়। তাই গানটিতে কণ্ঠ দেওয়া।

শফিক তুহিন জনপ্রিয় শিল্পী। গত কয়েক বছর আপনাকে সেভাবে শ্রোতারা পাননি?

গত বছর বেশ কিছু গান করে রেখেছি। এ বছরও নতুন গানের কাজ করছি। সবগুলো গানই ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ হবে। আশা করছি শ্রোতারা তাদের মনমতো গান পাবেন।

অনেক গান, মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হচ্ছে। আপনার কি মনে হয় শ্রোতারা মান সম্মত গান পাচ্ছেন?

আমরা হৃদয় ছোঁয়া গানের কথা, সুরের দিকে না গিয়ে লক্ষাধিক টাকার মিউজিক ভিডিও তৈরির দিকে মনোযোগী হচ্ছি। অথচ প্রথমত হওয়া উচিত গানের বাণী, সুর-সংগীতের দিকে খেয়াল রাখা। আমরা ভিউয়ের দিকে খেয়াল রাখতে গিয়ে শ্রোতাদের মানসম্মত গান উপহার দিতে পারছি না।

আপনার কথা ও সুর-সংগীতে কুমার বিশ্বজিৎ ও রকস্টার জেমস জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছে। বর্তমানে চলচ্চিত্রের গান নিয়ে ব্যস্ততা কেমন?

এ সপ্তাহে মুক্তি পেয়েছে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত আমার কণ্ঠে থিম সং ‘চারিদিকে এত আলো’, ইফতেখার হোসেনের ‘বজলী’ চলচ্চিত্রের টাইটেল সং গেয়েছেন লেমিস। দেবাশীষ বিশ্বাসের ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ ২’ ছবির গান করেছি। এ ছাড়া অনেক পরিচালকের সঙ্গে কথা হচ্ছে।

অডিওতে আর কী কী গান প্রকাশ হতে যাচ্ছে?

কনা, ন্যানসি, সালমা, এফ এ সুমন, পড়শীর গান রেকর্ড করা হয়েছে। সবগুলো আমার কথা ও সুরে। এগুলো এ বছর প্রকাশ হবে।

সংগীতের এ বছরটা আপনার মতে কেমন যাবে?

আসলেই এ সময়টা একটু খারাপ যাচ্ছে। সব মনোযোগ ভিউ ও ভিডিওর দিকে। সব আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু যেন মিউজিক ভিডিও। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো গীতিকার, সুরকার ও কণ্ঠশিল্পীদের প্রাপ্ত সম্মানী দেওয়ার চেয়ে ভিডিওর পেছনে লাখ লাখ টাকা খরচ করছে। গান তৈরি এবং ভিডিও তৈরির বাজেটের সঙ্গে যদি সমন্বয় না থাকে, তা হলে প্রতিষ্ঠানগুলোই এক সময় হোঁচট খেয়ে পড়বে। গানটাকেই আগে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। গান হচ্ছে প্রাণ দিয়ে শোনা ও অনুভবের বিষয়। আমরা কি সেই ধরনের গান তৈরি করতে পারছি?

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে