মুখোমুখি মিম-পূজা

  ফয়সাল আহমেদ

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আগামীকাল ঢাকাসহ সারা দেশের সিনেমা হলে মুক্তি পাচ্ছে ‘আমি নেতা হব’ ও ‘নূর জাহান’। দুই ছবিতে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন যথাক্রমে বিদ্যা সিনহা মিম ও পূজা চেরি। এর মধ্যে দীর্ঘদিন পর শাকিবের সঙ্গে পর্দায় ফিরলেন মিম অন্যদিকে পূজার হচ্ছে অভিষেক। দুই ছবি ও দুই নায়িকাকে নিয়ে লিখেছেনÑ

ফয়সাল আহমেদ

বিদ্যা সিনহা মিম চলচ্চিত্রে প্রতিষ্ঠিত নায়িকা। ভালো গল্পের ছবিতে অভিনয় করে নিজেকে আলাদা একটা অবস্থানে নিয়েছেন তিনি। ফলে তার ভক্তের সংখ্যাও কম নয়। এবার এই মিমের মুখোমুখি হচ্ছেন নবাগত পূজা চেরি। শিশুশিল্পী হিসেবে তিনিও অনেকের পছন্দের তালিকায় আছেন। কিন্তু নায়িকা হিসেবে কতটা মন জয় করতে পারেনÑ সেটাই দেখার বিষয়। আর মিমের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারেন কিনা, সেটাও বোঝা যাবে আগামীকাল। কারণ কালই মুক্তি পাচ্ছে মিমের ‘আমি নেতা হব’ এবং পূজার ‘নূর জাহান’।

অনেকে বলছেন, এগিয়ে থাকবেন মিম। কারণ তার বিপরীতে আছেন সুপারস্টার শাকিব খান। আর গত কোরবানির ঈদের পর এবং নতুন বছরে এটাই শাকিবের প্রথম ছবি। এটি পরিচালনা করেছেন উত্তম আকাশ। শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত এই ছবিতে শাকিব-মিম জুটি হয়েছেন প্রায় আট বছর পর। এরই মধ্যে ছবির একাধিক গান ও লুকের বদৌলতে ব্যাপক আলোচনায় রয়েছে ‘আমি নেতা হব’। ফলে ব্যবসায়িক দিক দিয়ে এই ছবি অনেকটাই এগিয়ে থাকবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

আবার ‘নূর জাহান’ পরিবেশনা করবে জাজ মাল্টিমিডিয়া। যাদের আয়ত্তে রয়েছে দেশের অধিকাংশ সিনেমা হল। ফলে এই ছবিটি লড়াইয়ে বেশ শক্ত প্রতিযোগী হয়ে উঠবে। এ ছাড়া ট্রেলার ও গান দিয়ে এই ছবিটিও দারুণ আলোচনা তৈরি করেছে। নতুন নীতিমালায় যৌথ প্রযোজনার প্রথম চলচ্চিত্র হিসেবে সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পেল ‘নূর জাহান’। ‘শিশুশিল্পী পূজা চেরি এবার চলচ্চিত্রের নায়িকা’Ñ এই শিরোনামে শুরু হয়েছিল ‘নূর জাহান’-এর যাত্রা। ছবিতে তার বিপরীতে আছেন কলকাতার আদৃত। এটি যৌথ প্রযোজনার ছবি। বাংলাদেশ থেকে প্রযোজনা করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া আর ভারত থেকে রাজ চক্রবর্তী প্রডাকশন। মারাঠি ছবি ‘সাইরাত’-এর রিমেক ভার্সন ‘নূর জাহান’। পরিচালনা করছেন রাজের সহকারী অভিমন্যু মুখোপাধ্যায় আর আবদুল আজিজ। কাহিনি লিখেছেন আবদুল্লাহ জহির বাবু ও অভিমন্যু। ‘নূর জাহান’ রোমান্টিক গল্পের ছবি। একটা ছেলে একটা মেয়ের জীবনে কতটা প্রভাব ফেলে আর একটা মেয়ে একটা ছেলের জীবনে কী পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারে, তাই দেখা যাবে ছবিতে।

এদিকে এই লড়াইটা শুধু মিম আর পূজার নয়। এটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং শাপলা মিডিয়ারও লড়াই। ‘আমি নেতা হব’ ছবির জন্য চালু হচ্ছে ৫০টি বন্ধ সিনেমা হল। ছবির প্রযোজক সেলিম খান বলেন, “দেশের হলমালিকরা এই ছবি চালাতে আগ্রহী। যেসব সিনেমা হল বন্ধ রয়েছে, সেখান থেকে ৫০টি হল আবার চালু হচ্ছে শুধু ‘আমি নেতা হবো’ ছবি প্রদর্শনের জন্য।”

যখন চলচ্চিত্র পরিবার শাকিব খানকে বয়কট করে, ঠিক সে সময়ে তাকে নিয়ে পাঁচটি চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় আসে এই শাপলা মিডিয়া। সে সময়ই জাজ মাল্টিমিডিয়াকে প্রকাশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছিলেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান। তিনি বলেন, ‘জাজ ছাড়া ইন্ডাস্ট্রি চলে, এটা আমি প্রমাণ করে দেব। এখন থেকে জাজ যে কটি ছবি বানাবে, আমি তার ডাবল ছবি নির্মাণ করব। যত টাকা লাগে বিনিয়োগ করব। এটা শুধু আমার চ্যালেঞ্জ নয়, আমি নতুন করে ঘোষণা দিলাম। আমি কোনো যৌথ প্রযোজনায় ছবি নির্মাণ কিংবা টাকা লগ্নি করব না। বাংলাদেশের শিল্পী ও সংস্কৃতি নিয়েই ছবি বানাব।’ মানে দাঁড়াচ্ছে ‘আমি নেতা হব’ ও ‘নূর জাহান’ দেশের দুই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সম্মানের লড়াইও।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে