তারকাদের প্রিয় গোল

  অনলাইন ডেস্ক

১২ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১২ জুলাই ২০১৮, ০০:৫০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গোলের খেলা ফুটবল। তাই গোলের মুহূর্তটিই মনের ফ্রেমে বন্দি হয়ে যায়। আর সেই গোল যদি হয় প্রিয় খেলোয়াড়ের পা থেকে, তা হলে তো কথাই নেই। এর মধ্যে কিছু গোল থাকে অবিশ্বাস্য। এবারের বিশ্বকাপেও তেমন কিছু গোলের মুহূর্ত অনেকের চোখ ধাঁধিয়ে দিয়েছে। তেমন কিছু গোল নিয়ে কথা বলেছেন বিনোদন অঙ্গনের তারকারা...

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে লিওনেল মেসির গোলটি প্রিয় জাহিদ হাসানের। মাঝমাঠ থেকে এভার বানেগা পাস দিয়েছিলেন তাকে। দুর্দান্তভাবে বাঁ উরু দিয়ে নামিয়েছেন সেই উড়ন্ত বলটি। তার পর বাঁ পায়ের আলতো টোকায় বলটাকে সামনে নিয়ে ডান পায়ে চোখে ধাঁধানো এক শট। নাইজেরিয়ার গোলকিপার হয়তো চিন্তাও করতে পারেননি মেসি ডান পায়ে শট নেবেন। তাই তার তাকিয়ে থাকা ছাড়া কিছুই করার ছিল না। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে মেসির গোলটি ছিল এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপের শততম গোল। ম্যাচের ১৪ মিনিটের মাথায় মেসির এই গোল থেকেই এগিয়ে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা।

স্পেনের বিপক্ষে রোনালদোর ফ্রি কিকে মুগ্ধ অপূর্ব। তার মতে পুরো বিশ্বকাপের সেরা গোলের তালিকায় জায়গা করে নিতে পারে দারুণ এই গোলটি। ম্যাচের ৮৮ মিনিট চলছে, পর্তুগাল তখনো ৩-২ গোলে পিছিয়ে। ঠিক সেই সময় ডিবক্সের বাইরে থেকে ডান পায়ের ট্রেডমার্ক শটে ফ্রিকিক থেকে সরাসরি পরাস্ত করেন ডি গিয়াকে। এমন নিখুঁতভাবে শটটা নিয়েছেন রোনালদো, সার্জিও বুস্কেটস সর্বোচ্চ উচ্চতায় লাফিয়েও বলে মাথা ছোঁয়াতে পারেননি। স্পেনের বিপক্ষে প্রথমার্ধে দুই গোল করে হ্যাটট্রিকের ইঙ্গিতটা দিয়ে রেখেছিলেন রোনালদো। দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে অসাধারণ ফ্রি কিক করে দুর্দান্ত গোল করে ২১তম বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটটিক করলেন পর্তুগালের এ ফরোয়ার্ড।

সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে কোটিনহোর গোলে নেচেছেন বিদ্যা সিনহা মিম। তার মতে, এ বিশ্বকাপে ব্রাজিলকে একাই টেনেছেন ফিলিপে কোটিনহো। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে তার করা গোলটি ব্রাজিল সমর্থকদের চোখে লেগে থাকবে অনেক দিন। বক্সের অনেকটা বাইরে থেকে ডান পায়ের বাঁকানো শটে পরাস্ত করেন সুইস কিপার সমারকে।

অভিনেত্রী পরীমনির অনেক গোলই চোখ জুড়িয়েছে। তিনি আর্জেন্টিনার ভক্ত। কিন্তু তার নেইমারের খেলাও ভালো লাগে। তবে এবারের বিশ্বকাপে তার মন খারাপ করে দিয়েছে লুকা মদ্রিচের গোল! কারণ অসাধারণ গোলটি তিনি করেছেন আর্জেন্টিনার বিপক্ষে। তখনো ম্যাচে ফেরার সব রকম সম্ভাবনাই ছিল আর্জেন্টিনার। কিন্তু দারুণ এক শটে সেই সম্ভাবনা শেষ করে দেন ক্রোয়েশিয়ার অধিনায়ক। তিন ডিফেন্ডারের মধ্য থেকে ফাঁকা জায়গা খুঁজে নিয়ে অসাধারণ দূরপাল্লার শটে কাবায়েরোকে পরাস্ত করেন এই তারকা।

সুইডেনের বিপক্ষে জার্মানির টনি ক্রুসের গোলটি অবাক করেছে সাবিলা নুরকে। ইনজুরি টাইমের শেষ মিনিট। খেলা বাকি মাত্র ২৭ সেকেন্ড। দল পিছিয়ে আছে ২/১ গোলে। ঠিক তখনই ফ্রি কিক থেকে টনি ক্রুস যে গোলটি করেছেন, তা শুধু অভাবনীয় নয়; অবিশ্বাস্য। সহ-খেলোয়াড়ের পায়ে বল ঠেকিয়ে তার পর কিক নেওয়া এবং বল বাঁক খেয়ে গোলপোস্টের কোনা দিয়ে ঢুকে যাওয়ার এই দৃশ্য চিরকালের জন্য ফ্রেমবন্দি হয়ে গেছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
ashomoy-todays_most_viewed_news