শীতের পোশাকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে

  রওনক বিথী

১০ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শীতকাল মানেই আলমিরা আর ওয়্যারড্রোবভর্তি সোয়েটার, চাদর, মাফলার, টুপিতে ঠাসাঠাসি। তবে শীতের কাপড়গুলো ব্যবহার হয় বছরের মাত্র দুই থেকে তিন মাস। তাই শীতের পোশাক পরিষ্কার করার সময় একটু সচেতন থাকলে শীতের পোশাকের রঙ ও উজ্জ্বলতা ভালো থাকবে দীর্ঘদিন।

লেদারের পোশাক ধোয়ার পদ্ধতি

লেদারের পোশাক খুব দামি হয়। তাই লেদারের জ্যাকেট কিংবা অন্যান্য পোশাক ড্রাইক্লিন করাই সব থেকে ভালো। বাড়িতে ধুতে চাইলে সমপরিমাণ ভিনিগার ও জল মিশিয়ে তাতে তোয়ালে ভিজিয়ে তা দিয়ে লেদারের পোশাক পরিষ্কার করুন। এ ছাড়া হালকা গরম জলে ১-২ চামচ ডিশ ওয়াশার মিশিয়ে তাতে তোয়ালে ভিজিয়ে লেদারের পোশাক পরিষ্কার করে রোদে শুকিয়ে নিন।

উলেন পোশাক ও কাশ্মীরি শাল

কাশ্মীরি শাল বেবি শ্যাম্পুতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে আলতো হাতে ধুয়ে ফেলুন। উলের পোশাক ধোয়ার আগে কিছুক্ষণ ঠা-া পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তার পর মাইল্ড ডিটারজেন্ট, বেবি শ্যাম্পু বা হ্যান্ডসোপ ঠা-া পানিতে মিশিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ববলিন উঠবে না। সবচেয়ে ভালো হয় যদি উলের পোশাক ধোয়ার পর এক বালতি পানিতে সামান্য গ্লিসারিন বা ল্যাভেন্ডার অয়েল দিয়ে তাতে ডুবিয়ে নেন, এতে পোশাকের নরম এবং চকচকে ভাব বজায় থাকবে। উল বা পশমি কাপড় এক ঘণ্টার বেশি পানিতে ভিজিয়ে না রাখাই ভালো। হাত ও পা মোজার দুর্গন্ধ দূর করতে এক মগ পানি ও ২ টেবিল চামচ সাদা ভিনেগার একসঙ্গে ফুটিয়ে তাতে মোজা ভিজিয়ে রাখুন। এর পর ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গন্ধ থাকবে না। ধোয়ার পর বড় তোয়ালের মধ্যে জড়িয়ে দুই হাত দিয়ে চেপে পানি ঝরিয়ে ছায়ায় বা ফ্যানের বাতাসে মেলে দিন। উলের পোশাক রোদে শুকানো উচিত নয়। এতে উলের পোশাকের উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়ে যায়।

কোট, ব্লেজার

কোট কিংবা ব্লেজার বাড়িতে না ধুয়ে দোকানে দিয়ে ড্রাই ওয়াশ করানোই সবচেয়ে ভালো। কিছু ভেলভেট ফেব্রিকসের ব্লেজার আছে, যেগুলো অবশ্যই ড্রাইক্লিন করা প্রয়োজন। আবার ক্রাশড ভেলভেটের মতো ভেলভেটগুলো মেশিনে ধোয়া ভালো।

জিন্সের পোশাক

শীতে অনেকেই জিন্সের প্যান্ট, জ্যাকেট, শার্ট ইত্যাদি ব্যবহার করেন। জিন্সের পোশাক প্রথমবার ধোয়ার সময় কোনোরকম ডিটারজেন্ট বা সাবান ব্যবহার করা উচিত নয়। এতে জিন্সের চকচকে ভাব নষ্ট হয়ে যায়। প্রথমবার শুধু পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। অনেকেই জিন্সের পোশাক ধোয়ার আগে ১-২ ঘণ্টা ডিটারজেন্টে ভিজিয়ে রাখেন। এটা উচিত নয়। এতে জিন্সের রঙ নষ্ট হয়ে যায়। জিন্স পোশাক ১৫-২০ মিনিটের বেশি ডিটারজেন্টে ভিজিয়ে রাখা যাবে না। জিন্সের পোশাক ধুতে হবে ঠা-া পানি দিয়ে আর ধোয়ার পর পানি ঝরিয়ে উল্টো করে রোদে দিতে হবে।

শীতের পোশাকে দাগ লাগলে

উল বা শীতের অন্যান্য পোশাকে দাগ লাগলে সঙ্গে সঙ্গে পানিতে ধুয়ে নিন। তার পর স্পঞ্জে ভিনেগার লাগিয়ে দাগের ওপর বৃত্তাকারভাবে ঘষুণ। দাগ চলে যাবে। যদি দাগ না যায় তবে ড্রাই ক্লিনারে দিতে পারেন।

সতর্কতা

উলের পোশাক পরিষ্কার করার জন্য সঠিক ব্রাশ ব্যবহার করুন। উলের কাপড়ে সহজেই ধুলাবালি আটকে থাকে। তাই প্রতিদিন সোয়েটারটি খুলে ইলেক্ট্রিক ব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করুন।

উজ্জ্বলতা ঠিক রাখতে পশমি ও উলের কাপড় ইস্ত্রি করার সময় উল্টে নিন এবং এর ওপরে সুতি পাতলা কাপড় বিছিয়ে নিন।

উলের জামাকাপড় বেশি ড্রাইক্লিনিং না করাই ভালো।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে