যেমন পোশাক তেমন সাজ

  কেয়া আমান

১৩ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চলছে ঈদের শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। এরই মধ্যে হয়তো অনেকের ঈদের পোশাক কেনা হয়ে গেছে। এখন ভাবনা সাজ নিয়ে। ঈদের দিন ছেলেমেয়ে অনেকেই এখন একেক বেলায় একেক পোশাক পরে। পোশাক যখন বেলায় বেলায় পরিবর্তন হয়, তখন এক সাজে কি আর সারা দিন মানায়! একেক পোশাকের সঙ্গে সাজটাও তাই হওয়া চাই একেক রকম। কোন পোশাকে কেমন

সাজ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ জানাচ্ছেনÑ কেয়া আমান

সুতি শাড়িতে স্নিগ্ধতা

হালকা নকশার সুতি শাড়ি পরতে পারেন ঈদের সকালে। পরতে পারেন সুতি কুর্তি-কামিজও। সকালে সুতি শাড়ি কিংবা কুর্তি-কামিজ পরলে এর সঙ্গে সাজ ন্যাচারাল রাখার পরামর্শ দিলেন রূপ বিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা রীতা। জানালেন, ‘আবহাওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখে ঈদের সব ধরনের পোশাকের সঙ্গে একটি আরামদায়ক সাজ বেছে নিলে গরমের ঈদেও স্বস্তিতে ঘোরাফেরা করা যাবে। সকালে সুতি শাড়ি, কামিজের সঙ্গে ত্বকের একশেড উজ্জ্বল প্রাইমার লাগিয়ে শুধু ফেসপাউডার লাগিয়ে নিন। ন্যাচারাল সাজ মানে যে একেবারেই মেকআপ করা যাবে না তা কিন্তু নয়, ন্যাচারাল মেকআপে স্কিন টোনের কাছাকাছি হালকা মেকআপ করুন। এতে সাজটাও ফুটবে, স্নিগ্ধ পরিপাটিও লাগবে। বেস মেকআপ শেষে চোখে হালকা বাদামি শ্যাডো দিন। সকালে শাড়ির সঙ্গে আইলাইনার, মাশকারা না দিয়ে বরং একটু ভারী করে কাজল পরুন। চাইলে স্কিন টোনের চেয়ে একশেড গাঢ় ব্লাশন ব্যবহার করতে পারেন। সবশেষে ন্যুড রঙের লিপস্টিক দিন।’ ভিন্নতা আনতে সুতি শাড়ির সঙ্গে হাত খোঁপা আর সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে পনিটেইল করে গুঁজে দিতে পারেন বেলি ফুলের মালা। সুতি শাড়ির সঙ্গে মুক্তা, লম্বা মাটির মালা ভালো লাগবে।

জমকালো শাড়ির সঙ্গে ঝলমলে সাজ

‘ঈদের জমকালো শাড়িটি তুলে রাখুন রাতের জন্য। জমকালো শাড়ির সঙ্গে সাজটা রাখুন ঝলমলে। এই বেলায় প্রাইমার, লিকুইড ফাউন্ডেশন, ফেসপাউডার এবং কনসিলার ব্যবহার করুন। চোখের সাজে থাকুক রঙের বাহার। রঙবাহারে চোখে ব্রাউন, শিমার ব্রাউন, গোল্ডেন ব্রাউন শেডের আইশ্যাডো ভালো লাগবে। চোখে স্মোকি লুক এনে চোখের পাতাজুড়ে একটু গ্লাসি শ্যাডো লাগিয়ে নিলেও জমকালো শাড়ির সঙ্গে সাজটা বেশ ঝলমলে হবে।

কামিজের সঙ্গে খোলা চুল

ঈদের দিন সালোয়ার-কামিজ পরতে পারেন দুপুর কিংবা রাতে। দুপুরে হালকা নকশার বৈচিত্র্যময় প্যাটার্নের সালোয়ার-কামিজ আর রাতে গার্জিয়াস সালোয়ার-কামিজ মানাবে বলে জানান ডিজাইনার তাহসীনা শাহীন। সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে ঈদের সাজ প্রসঙ্গে রূপ বিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন বলেন, ‘সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে দিনের বেলায় ন্যাচারাল বেস মেকআপ আরামদায়ক হবে। দিনের সাজে শুধু ফেসপাউডার দিয়ে বেস করুন। চোখের সাজে সালোয়ার-কামিজের মধ্যকার যে কোনো একটি রঙের হালকা টোনের আইশ্যাডো ব্যবহার করুন। ঘন করে মাশকারা দিন। এরপর হালকা ব্লাশন ছুঁয়ে দিন। সঙ্গে ন্যুড রঙের লিপস্টিকে বেশ লাগবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘রাতে সালোয়ার-কামিজ পরলে একটু ভারী বেস করুন। সে ক্ষেত্রে বেস হিসেবে প্রাইমার, বিবি ক্রিম ও ফেসপাউডার ব্যবহার করতে পারেন। দাগ ঢাকতে কনসিলার দিন। উজ্জ্বল দেখাতে ব্লাশনের ওপর হাইলাইটার ব্যবহার করতে পারেন। রাতে ঠোঁটজোড়া কোনো উজ্জ্বল রঙে রাঙিয়ে নিন।’ গরম থাকলেও ক্যারি করতে পারলে সালোয়ার-কামিজের সঙ্গেও হাওয়ায় চুল উড়িয়ে উপভোগ করতে পারেন ঈদের আনন্দ। করতে পারেন ব্লো-ডাই, পনিটেইলও। গহনা বেছে নিন অ্যান্টিক কিংবা জাংক জুয়েলারি।

চোখে অনেকেই এখন হাইলাইটার খুব পছন্দ করছেন’ বলে জানালেন আফরোজা পারভীন। বলেন, ‘রাতে মোটা করে কাজল, আইলাইনার ও মাশকারা দিন। সঙ্গে আইল্যাশ পরুন। আইল্যাশ সাজকে অনেক বেশি জমকালো করে তোলে। ব্লাশনের ক্ষেত্রেও বেছে নিন শিমার, গ্লসি ব্লাশন। সবশেষে লাগিয়ে নিন পছন্দমতো উজ্জ্বল রঙের লিপস্টিক’। রাতে শাড়ির সঙ্গে কার্লিং টং দিয়ে চুলটা হালকা কার্ল করে নিলে ভালো লাগবে। অ্যান্টিক, স্টোন সব ধরনের গহনাই মানাবে জমকালোর শাড়ির সঙ্গে।

ওয়েস্টার্নে পার্টি লুক

গাউন, সারারা ধরনের ওয়েস্টার্ন পার্টি পোশাকের সঙ্গে ন্যাচারাল বেস করুন। চোখের সাজে ভালো লাগবে স্মোক আই কিংবা কন্ট্রাস্ট শ্যাডো। ওয়েস্টার্ন পার্টি পোশাকের সঙ্গে মোহক হেয়ার স্টাইল খুব মানায়। মোহক স্টাইলে বাঁ দিকের চুল একটু পাফ করে এলোমেলোভাবে ছেড়ে দিন। তিনটি চিকন বেণি করে ডান দিকে রাখুন। কার্ল করে একটু উঁচু ঢঙেও চুল বাঁধতে পারেন।

সাজবে ছেলেরাও

সকালে হালকা নকশার পাঞ্জাবি কিংবা কাবলি সেটের সঙ্গে পায়ে মোকাসিন চটি কিংবা ট্রেডিশনাল কোলাপুরি স্যান্ডেল মানাবে। ঈদের রাতের পার্টিতেও গর্জিয়াস পাঞ্জাবি কিংবা শেরওয়ানি ভালো লাগবে। জমকালো লুক আনতে রাতে পাঞ্জাবির সঙ্গে মিলিয়ে কোটি কিংবা প্রিন্স কোট পরার পরামর্শ দিলেন কান্ট্রিবয়ের স্বত্বাধিকারী ও ডিজাইনার বিটু খান। দুপুরের গরমে কিংবা বিকালে বন্ধুদের আড্ডায় ক্যাজুয়াল শার্ট, টি-শার্ট, পোলো টি-শার্ট আরামদায়ক হবে। উজ্জ্বল রঙের প্রিন্টের শার্ট, টি-শার্টের সঙ্গে জিন্স কিংবা গ্যাবার্ডিনে ক্যাজুয়াল সাজেও হয়ে উঠবেন গর্জিয়াস। হালকা রঙনকশার শার্টের সঙ্গে ভালো লাগবে মেরুন, জলপাইয়ের মতো উজ্জ্বল রঙের গ্যাবার্ডিন প্যান্ট এবং পায়ে রঙিন কনভার্স কিংবা স্নিকার। একহাতে ঘড়ির সঙ্গে, অন্য হাতে পরুন ব্রেসলেট কিংবা রিস্টব্যান্ড এবং চোখে সানগ্লাস। ঈদের দিন সকালে টমেটো রস দিয়ে ত্বক ম্যাসাজ করে ধুয়ে নিলে ফ্রেশ লাগবে। দিনের সাজে চুলে জেল দিয়ে সেট করতে পারেন। রাতের সাজে ভালো লাগবে ব্যাক ব্রাশ।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে