শীতের প্রসাধন কেনাকাটা

  আমান উল্লাহ

০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ষড়ঋতুর এ দেশে ঋতুর পালাবদলে শীতের আগমনটা চোখে অঁাঁচ করতে পারুন আর না-ই পারুন, আপনার টানটান ত্বক নিশ্চয়ই এরই মধ্যে তা অনুভব করতে পেরেছে। প্রকৃতির এ রুক্ষতায় ত্বক ও চুল সুরক্ষিত রাখতে প্রয়োজন আবহাওয়া উপযোগী প্রসাধন। আর তাই শীতের আগমন বার্তায় গরমের সময়কার প্রসাধন বদলে ব্যবহার করুন শীতের প্রসাধন। বাজার ঘুরে শীতের প্রসাধনসামগ্রীর খোঁজখবর জানাচ্ছেনÑ আমান উল্লাহ

ময়েশ্চারাইজার ক্রিম ও লোশন

সারাবছর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করলেও শীতের সময় ময়েশ্চারাইজার জরুরি। সাধারণত আমরা বছরের অন্যান্য সময় পানিযুক্ত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করি, যা শীতে খুব একটা কাজে দেয় না। শীতের জন্য প্রয়োজন তেলযুক্ত ময়েশ্চারাইজার। তেলযুক্ত ময়েশ্চারাইজারের উপাদানগুলো টেক্সচার ঠিক রেখে ত্বককে মসৃণ করে। তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীরা ব্যবহার করুন ময়েশ্চারাইজার লোশন আর শুষ্ক ত্বকের অধিকারীরা ব্যবহার করুন ময়েশ্চারাইজার ক্রিম। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ময়েশ্চারাইজার ক্রিমের মধ্যে নিভিয়া ২০০ মি.লি ২৮০ টাকা, নিউট্রিজিনা ময়েশ্চারাইজার লোশন ৯০০-১০০০ টাকা, আয়ুর হারবাল ময়েশ্চারাইাজার ক্রিম ৫০০ মি.লি ২০০ টাকা, ডাভ ক্রিম ও লোশন ১৭০-৩০০ টাকা, হিমালয়া হারবাল বডি লোশন ৪০০ মি.লি ২৫০ টাকা, ভ্যাসলিন ময়েশ্চারাইজার লোশন ১৫০-২৭০ টাকা, জনসন ময়েশ্চারাইজার সফট ক্রিম ২০০ গ্রাম ৩৪৫ টাকা, পন্ডস লোশন ৮০-৩০০ টাকা, বোরো প্লাস লোশন ৩০০ মি.লি ২৫০ টাকা, মেরিল বেবি লোশন ৫৫-১৭০ টাকা, জনসন বেবি লোশন আকারভেদে ৮০-৫০০ টাকা।

বডি ক্রিম ও লোশন

যাদের ত্বক বেশি শুষ্ক তারা শীতকালে বডি ক্রিম ব্যবহার করুন। হিমালয়া কোকো বাটার বডি ক্রিম পাওয়া যাবে ২৭০ টাকায়, নিভিয়া বডি ক্রিম ৬০ মি.লি ২১০ টাকা, নিভিয়া বডি লোশন ৫৫০-৬৫০ টাকা, নিভিয়া ময়েশ্চারাইজার বডি মিল্ক আকারভেদে ২৯০-৪৫৫ টাকা, পন্ডস বডি লোশন ৪০-১৩৫ টাকা, ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী বডি মিল্ক ১৩৫ টাকা, ভ্যাসলিন বডি মিল্ক ১০০ মি.লি ১০০ টাকা ও লোশন ২০০-৪০০ টাকা, নিভিয়া মেন ফেস-বডি-হ্যান্ড ক্রিম ৪৯৯ টাকা, পা ফাটা রোধে ক্র্যাক ক্রিম ১০০-১৫০ টাকা।

লিপবাম কিংবা পেট্রোলিয়াম জেলি

ঠোঁটের হাসিতে সজীবতা ধরে রাখতে শীতে ব্যবহার করুন লিপবাম। যাদের ত্বক খুব বেশি শুষ্ক কিংবা পা ফাটা সমস্যা আছে তারা রাতের ঘুমানোর আগে শরীরে কিংবা পায়ে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করতে পারে। বিভিন্ন রকম লিপবাম ও পেট্রোলিয়াম জেলির মধ্যে ম্যাক, ল’রিয়েল, ল্যাকমি, জর্ডানার দাম পড়বে ৩০০ থেকে ১ হাজার টাকা। স্বল্পমূল্যে ভ্যাসলিন পেট্রোলিয়াম জেলি আকারভেদে পাওয়া যাবে ১৫-৯০ টাকায়, মেরিল পেট্রোলিয়াম জেলি ১৫-৭৫ টাকা, জনসন পেট্রোলিয়াম জেলি ৮০-১৫০ টাকা।

অলিভ অয়েল

শুধু ত্বকের যতেœ নয়, চুলের যতেœও শীতে অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। অলিভ অয়েলের মধ্যে স্পান ও লুসি অলিভ অয়েল ২৩০ টাকা, স্পেনের আরএস কোম্পানির ২৫০ মি.লি আকারভেদে ১৫০-২৭০ টাকা, মেরিল ১৫০ মি.লি ২৫০ টাকা, মেরিল বেবি অলিভ অয়েল ১০০ মি.লি ২১০ টাকা।

গ্লিসারিন

শীতে ত্বকের যতেœ গ্লিসারিন খুবই উপকারী। মেরিল গ্লিসারিনের দাম আকারভেদে ৪৫-৭৫ টাকা, কিউট ৪০-৭০ টাকা।

শীতের সানস্ক্রিন ও সানব্লক

শীতের রোদ ত্বকের জন্য সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর। তাই এ ঋতুতে ঘরের বাইরে বেরোতে হলে মুখের ত্বকের জন্য ব্যবহার করুন সানস্ক্রিন। আর দেহের ত্বকের জন্য ব্যবহার করুন সানব্লক। মুখে তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীরা সানস্ক্রিন লোশন আর শুষ্ক ত্বকের অধিকারীরা সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহারের করুন। আমাদের দেশের আবহাওয়ায় সানস্ক্রিন কিংবা সানব্লকে এসপিএফ ১৫-৩০ যথেষ্ট। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মধ্যে নিউট্রিজিনা সানস্ক্রিন লোশন আকারভেদে ৮৫০-১৩০০ টাকা, ল্যাকমি ১৫০ টাকা, নিভিয়া সানস্ক্রিন লোশন ও ক্রিম ৫০০ টাকা, গার্নিয়ার সানস্ক্রিন ক্রিম ৩৭০ টাকা, ওলে ৮০০ টাকা, রেভলন সানস্ক্রিন ক্রিম ২২০ টাকা, লরিয়াল ক্রিম ২৫০ টাকা।

ফেসওয়াশ

শীতে ব্যবহার করুন সোপ-ফ্রি ফেসওয়াশ। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সোপ-ফ্রি ফেসওয়াশ মধ্যে লরিয়েলের সাবসিডিয়ারি কোম্পানি দ্য বডি শপের ফেসওয়াশ পাওয়া যাবে ১১৫৬ টাকায়। তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীরা শীতকালে হিমালয়ের নিউট্রিজিনা ডিপ ক্লিন কিংবা নিম জেল ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। এগুলো তৈলাক্ত ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার করে। এ ছাড়া সব ধরনের ত্বকের অধিকারীদের জন্য রয়েছে গার্নিয়ার, পন্ডস, এভার ইউথ প্রভৃতি ফেসওয়াশ।

কোথায় পাবেন

দেশের ছোট-বড় প্রায় সব মার্কেটেই শীতের প্রসাধান সামগ্রী পাওয়া যাবে। তবে যেখান থেকেই কিনুন না কেন, কেনার আগে দেখেশুনে ভালো মানের প্রসাধন কিনুন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে