ফেসবুকে আলোচিত ১০ ঘটনা

  আজহারুল ইসলাম অভি

১৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০ | আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:৪৮ | প্রিন্ট সংস্করণ

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক। তাদের মাসিক সক্রিয় গ্রাহক ১৭০ কোটিরও ওপরে। বছরজুড়ে নানা ঘটনার আলোচনা, সমালোচনা, বাগবিতণ্ডা জায়গা নিয়েছে সামাজিক মাধ্যমটিতে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে সেরা ১০ আলোচ্য বিষয়ের তালিকা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। আরও বিস্তারিত জানাচ্ছেন- আজহারুল ইসলাম অভি

মার্কিন নির্বাচন
২০১৬-এর প্রায় পুরোটা বছরই আলোচনার শীর্ষে ছিল মার্কিন নির্বাচন। রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্প ও ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারিকে নিয়ে আলোচনায় মেতে ছিলেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরাও। নির্বাচনের পরও থামেনি এ আলোচনা। এ নির্বাচন নিয়ে এত বেশি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার হাস্যরসাত্মক বক্তব্য, আচার-আচরণ, স্ক্যান্ডাল নিয়েই বেশি সরগরম ছিল ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। এমনও বলতে শোনা গেছে, এ রকম উদ্ভট কর্মকাণ্ডই তার জনপ্রিয়তার মূল কারণ।

ব্রাজিলের রাজনীতি
প্রেসিডেন্ট দিলমা রৌসেফ সে দেশের পার্লামেন্টে অভিশংসিত হয়েছেন গত ৩১ আগস্ট। আর এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ও বর্তমান ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট মাইকেল তেমার। তিনিও দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত। ২০১৮ সালের শেষ নাগাদ পরবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত তেমার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। তেমারের দুর্নীতি প্রমাণিত হলে প্রেসিডেন্ট পদ নেবেন যিনি সেই পার্লামেন্ট স্পিকারের বিরুদ্ধেও আছে মিলিয়ন ডলারের দুর্নীতি! এ যেন এক দুষ্টচক্রের মধ্যেই পাক খাচ্ছে দক্ষিণ আমেরিকার বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ ব্রাজিলের রাজনীতি। পুরো বিষয়টি গোটা লাতিন আমেরিকায় নতুন ধারার যে বামপন্থি রাজনীতির হাওয়া বইছিল তার বিরুদ্ধে স্রোতের সাজানো নাটক হিসেবেই দেখছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার
ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার ইউকে বৈষম্যের বিরুদ্ধে একটি আন্দোলন। পুলিশের গুলিতে লন্ডনের কৃষ্ণাঙ্গ ট্রাকচালক মার্ক দোগান মৃত্যুর পাঁচ বছর পূর্তিতে ব্রিটেনজুড়ে এই প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে তারা। আগস্ট মাসে ব্রিটেনের তিনটি বড় শহর লন্ডন, বার্মিংহ্যাম ও নটিংহ্যামের বিভিন্ন রাস্তায় অবস্থান নেন ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারের কর্মীরা। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বব্যাপী কৃষ্ণাঙ্গদের হত্যা ও ক্ষুদ্র সংখ্যালঘুদের বৈষম্যের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টি করতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন তারা। বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনকারী সংগঠন ‘দ্য ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার ইউকে’র বিক্ষোভকারীদের অবস্থানের কারণে লন্ডন সিটি এয়ারপোর্টে সাময়িক অচলাবস্থা তৈরি হয়। বন্ধ হয়ে যায় সব ধরনের বিমান চলাচল। কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত প্রভাবের বিষয়টিকে সামনে নিয়ে আসতে বিক্ষোভকারীরা একে অন্যের সঙ্গে গা ঠাসাঠাসি করে বিমানবন্দরের রানওয়ে দখল নেন। আর তাতেই বন্ধ হয়ে যায় সব ধরনের ফ্লাইট চলাচল। খবর বিবিসির। ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার ইউকের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘স্থানীয় ও বিশ্বের কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর যুক্তরাজ্যের পরিবেশগত প্রভাবকে সামনে নিয়ে আসতে তাদের বিক্ষোভকারীরা এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, যখন লন্ডন সিটি এয়ারপোর্টে অভিজাতরা বিমানে চলাচল করতে পারছেন, তখন শুধু ২০১৬ সালেই ৩ হাজার ১৭৬ জন অভিবাসী ভূমধ্যসাগরে নিখোঁজ হয়েছেন কিংবা মারা গেছেন। কৃষ্ণাঙ্গদেরই প্রথমে মরতে হয়, তারা সর্বপ্রথম বিমানে চড়তে পারে না। কৃষ্ণাঙ্গদের অধিকার নিয়ে এসব আলোচনাও স্থান পায় ফেসবুকে। শুধু স্থানই নয়, কৃষ্ণাঙ্গদের মানবাধিকার নিয়েও বেশ সরগরম থাকে ফেসবুক।

ব্রেক্সিট
চারদিকে যখন আমরা ঐক্যের জয়গান গাই, ঠিক তখনই ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে চার দশকের বন্ধন ছেঁড়ার পক্ষে রায় এসেছে যুক্তরাজ্যের ঐতিহাসিক গণভোটে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন গঠনের পর যুক্তরাজ্যই প্রথম দেশ, যারা ২৮ জাতির এই জোট ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছে। আর এই বেরিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়াকে সংক্ষেপে বলা হচ্ছে ব্রেক্সিট। বলা হচ্ছে, এই গণভোটের ফল কেবল যুক্তরাজ্যের ভাগ্য বদলাবে না, বদলে দেবে ইউরোপকে এবং আগামী প্রজন্মের রাজনীতিকে। প্রভাব পড়বে বিশ্বজুড়েই। ঐতিহাসিক এই সিদ্ধান্তের প্রথম বলি হলেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। বিচ্ছেদের বিরোধিতা করে আসা ক্যামেরন পদত্যাগের ঘোষণাও দিয়েছিলেন। বছরের অনেকটা সময়জুড়ে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা মেতেছিলেন ঐতিহাসিক এই ব্রেক্সিট নিয়ে।

অলিম্পিক
লাতিন আমেরিকায় বলা যায় প্রথমবারের মতো অলিম্পিকের এবারের আসরটি বসে ব্রাজিলে। গেল ৫ আগস্ট মারাকানায় এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পর্দা ওঠে গ্রেটেস্ট শো অন আর্থের ৩১তম আসরের। এরপর ১৬ দিনের জমজমাট মহাক্রীড়াযজ্ঞ শেষে মারাকানায় হাজারো দর্শকের সামনে বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টায় শুরু হয় বর্ণিল সমাপনী অনুষ্ঠানটি। ৩ ঘণ্টাব্যাপী আয়োজনে মুহুর্মুহু দৃষ্টিনন্দন আতশবাজির ঝলকানিতে রিওডি জেনিরোর পুরো আকাশ উদ্ভাসিত হয় অন্য আলোয়। এবারের আসরে বাংলাদেশের সাতজন অ্যাথলেট কোনো পদক অর্জন করতে না পারলেও সবাইকে চমকে দিয়ে স্বর্ণ জেতেন রিদমিক জিমন্যাস্টিক ইভেন্টে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রাশিয়ান অ্যাথলেট মার্গারিটা মামুন। ২০২০ সালে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসরের পরবর্তী আসরটি বসবে জাপানের টোকিওতে। ফেসবুকের একটা বিশাল জনগোষ্ঠী অলিম্পিক নিয়েও মেতেছিল উন্মাদনায়।

পোকেমন গো
এটি মূলত ‘ট্রেজার হান্ট’ ঘরানার অগমেন্টেড রিয়েলিটি গেম। এর বিশেষত্ব হলো, এতে ভার্চুয়াল আর বাস্তব জগতের মধ্যে একটা সমন্বয় করার চেষ্টা করা হয়েছে। মোবাইলের ডাটা ও জিপিএসের মাধ্যমে ঘরের বাইরে থাকা পোকেমনকে খুঁজে বের করা এ গেমের একটি অংশ। ঘরে বসে না খেলে বরং খেলোয়াড়কে ঘরের বাইরে আনাই ছিল এই গেমের মূল লক্ষ্য। একটি স্মার্টফোনে গেমটি খেলার সময় ‘পোকেমন গো’ খেলোয়াড় থেকে পোকেমন বা প্রতিদ্বন্দ্বী দল কত দূরে রয়েছে তার ক্রমাগত নোটিফিকেশন দিয়ে যেতে থাকে। গেমটি আসার পরই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে, ঘটেছে মজার মজার ঘটনাও। যেমন : নরওয়ের সংসদে বিতর্ক চলার সময় মোবাইল ফোনভিত্তিক ভিডিও গেম ‘পোকেমন গো’ খেলতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী এরনা সোলবার্গ। সংসদ অধিবেশন চলাকালে তিনি পোকেমন গো খেলায় মগ্নÑ এমন ছবি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে।

ডেভিড বাউয়ি
ব্রিটিশ পপতারকা ও অভিনেতা ডেভিড বাউয়ির মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছিল ফেসবুকেও। টানা ১৮ মাস ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করার পর মারা যান তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর। মৃত্যুর পরই তাকে নিয়ে শোকবার্তা প্রকাশ করতে থাকেন সব শ্রেণির ফেসবুক ব্যবহারকারীরা।

সুপারবোল
আমেরিকান ফুটবলে সুপার বোলের গুরুত্বই আলাদা। মার্কিন টেলিভিশনে সবচেয়ে জনপ্রিয় ইভেন্ট। রসদ ও চমকে সবাইকে ছাপিয়ে যায় সুপার বোল। দর্শকসংখ্যা ছাড়িয়ে যায় ১০ কোটি। ওই সময় যে কোনো মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেলে বিজ্ঞাপনের দাম বেড়ে যায় কয়েক গুণ। হলিউড সুপারস্টার থেকে সিনেটর... সুপার বোল নিয়ে আগ্রহ নেই, আমেরিকায় এমন মানুষ খুব কমই আছেন। আর ক্ল্যাস অব দ্য টাইটান্স হলে তো কথাই নেই। ম্যাচ চলাকালীন কার্যত স্তব্ধ হয়ে যায় আমেরিকা। ৩

ফিলিপিন্সের প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচন
ফিলিপিন্সে সাধারণ নির্বাচন নিয়েও আলোচনার শেষ ছিল না ফেসবুকে। এর মাধ্যমে দেশটিতে নতুন প্রেসিডেন্টের পাশাপাশি ভাইস প্রেসিডেন্ট, সিনেটর ও মেয়র নির্বাচিত হয়েছিল দেশটিতে। প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ক্ষমতাসীন বেনিনগো অ্যাকুইনো, রডরিগো দুটারটেসহ আরও অনেকে। নির্বাচনী প্রচার চালাতে গিয়ে এক মেয়রপ্রার্থীসহ এ পর্যন্ত ১৫ জন প্রাণ হারিয়েছেন। বিশেষ করে এসব উত্তেজনাই ফেসবুক গ্রাহকদের বাধ্য করেছে ফিলিপিন্সের নির্বাচন নিয়ে আলোচনা করতে।

মোহাম্মদ আলি
মারা গেছেন কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মাদ আলি। সর্বকালের সেরা বলে বিবেচিত এই বক্সার ফিনিক্সের একটি হাসপাতালে ৭৪ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এ খবর পাওয়ামাত্রই সারা বিশ্বসহ বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যেও দেখা গিয়েছিল শোকের মাতম। শতাব্দীর সেরা এই ক্রীড়াবিদের চলে যাওয়ায় প্রায় সারা পৃথিবীর মানুষই তাদের খারাপ লাগাকে ব্যক্ত করেছেন ফেসবুকে এসে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে