ক্রিস্ট গার্ডনার

পাবলিক টয়লেটেও থাকতে হয়েছে যাকে

  অনলাইন ডেস্ক

১৫ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১৫ নভেম্বর ২০১৭, ১৯:১৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

তার ছিল যন্ত্রণাগ্রস্ত শৈশব। অধিকাংশের শৈশবের মতো তার ছোটবেলা অত মধুর ছিল না। তার মা-বাবা ছিলেন আলাদা। তার সৎবাবা ছিলেন মায়ের প্রতি এবং ভাইবোনদের প্রতি ভীষণ নিষ্ঠুর। বাবার কাছ থেকে তেমন কোনো ভালোবাসা পাননি তিনি। তার মা তার সৎবাবার অভিযোগের কারণে মিথ্যাভাবে দোষী সাব্যস্ত হন। তিনি এবং তার ভাইবোনদের যতœ নেওয়ার মতো কেউ ছিল না, তাই আট বছর বয়সে পালক থাকতে হয়েছে। তার প্রথম বিয়ে আংশিকভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তার পছন্দের মেডিক্যাল কর্মজীবন অনির্বাচন থেকে এবং সহধর্মিণী দ্বারা প্রতারিত হয়েছেন। শুধু চিকিৎসার সরঞ্জাম বিক্রেতা হিসেবে শোচনীয়ভাবে ব্যর্থ হয়নি, তার গার্লফ্রেন্ডও তাকে পরিত্যাগ করেছিলেন আর্থিক অবস্থার অবনতির কারণে। গৃহহীন এই ব্যক্তি তার ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে রাস্তা, পার্ক, এয়ারপোর্ট এমনকি পাবলিক টয়লেটে থেকেছেন।

পরের গল্পটা অবশ্য ঘুরে দাঁড়ানোর। ১৯৮২ সালে লাইসেন্সিং পরীক্ষায় পাসের পর তিনি ডিন রয়টারের পূর্ণকালীন কর্মী হয়ে যান। কাজ করতে থাকেন সেখানে। এর মধ্যে তিনি তার নিজস্ব প্রতিষ্ঠান ‘ব্রোকারেজ ফার্ম গার্ডনার রিচ কোং’ প্রতিষ্ঠা করেছেন, যা থেকে তিনি শেয়ারের ৭৫ শতাংশ পান। ২০০৬ সালে গার্ডনারের ছোট অংশ মাল্টিমিলিয়ন ডলারের চুক্তিতে বিক্রি করে দেন। তিনি কে? কার কথা বলছি এতক্ষণ?

তিনি আর কেউ নন; তিনি হলেন ক্রিস্ট গার্ডনার। ক্রিস্টোফার গার্ডনার ইন্টারন্যাশনাল হোল্ডিংসের প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও। হলিডে ফিল্মে তার জীবন চিত্রিত হয়েছে, যা শুধু ব্লকবাস্টারই হয়নি; বিশ্বব্যাপী দর্শকদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে