হতে চাইলে প্রকাশক

  অনলাইন ডেস্ক

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পুস্তক প্রকাশনা হলো বিশ্বজুড়ে এক নন্দিত সৃজনশীল পেশা। সৃজনশীল কাজের প্রতি আগ্রহ থাকলে যে কেউ এটিকে পেশা হিসেবে বেছে নিতে পারেন। আর্থসামাজিকভাবে পরিচিত হতে পারেন সফল পুস্তক ব্যবসায়ী হয়ে। বিস্তারিত জানাচ্ছেনÑ শামীম ফরহাদ

যোগ্যতা

প্রকাশনা একটি শৈল্পিক পেশা। এটি আর সব পেশার মতো নয়। এখানে শুধু বিনিয়োগ করলেই হবে না। প্রকাশক হতে হলে তাকে একজন শিল্পীর মন নিয়ে আসতে হবে। তবে কেবল শিল্প হলেই হবে না, মনে রাখতে হবে এটি একটি পেশাও। কোনো একজন যখন পেশা হিসেবে প্রকাশনাকে বেছে নেবেন, মনে রাখতে হবে যেহেতু তার ওপর নির্ভর করে আছে তার নিজের পরিবার। পাশাপাশি তার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আর সবাই, যারা সেখানে কাজে নিযুক্ত। তাই কেবল শিল্প ভেবে গা ছেড়ে দেওয়ার কোনো অবকাশ নেই। সেই সঙ্গে থাকতে হবে একজন ব্যবসায়ীর পর্যবেক্ষণক্ষমতা। তবেই একজন সফল প্রকাশক হওয়া সম্ভব। পাশাপাশি তাকে হতে হবে একজন সাহিত্য রুচিবোধসম্পন্ন মানুষও। প্রকাশক হতে হলে প্রথমে দৃঢ়ভাবে সংকল্প ও পরিকল্পনা নিয়ে সামনে অগ্রসর হতে হবে। প্রকাশনা শিল্পে প্রকাশককে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা তো থাকতেই হবে। তা না হলে কী করে এ শিল্পকে তিনি পরিচালনা করবেন? ন্যূনতন এসএসসি থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রিধারী ব্যক্তিরাই বর্তমানে প্রকাশনা শিল্পে সম্পৃক্ত রয়েছেন।

প্রশিক্ষণ

বাংলাদেশ সৃজনশীল পুস্তক প্রকাশনা সংস্থা ও বাংলা একাডেমির যৌথ উদ্যোগে রয়েছে প্রকাশনা শিল্পে কাজ করার নানা প্রশিক্ষণ কর্মসূচি। চাইলে বছরের নির্দিষ্ট সময়ে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে নেওয়া যেতে পারে প্রকাশনাবিষয়ক প্রশিক্ষণ।

মূলধন

যে কোনো ব্যবসার ক্ষেত্রে পুঁজি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রকাশকের মূলধনের চেয়ে বেশি দরকার লেখকদের সঙ্গে পারস্পরিক যোগাযোগ। প্রকাশক-লেখক সম্পর্ক যত আন্তরিক হবে, প্রকাশনা ব্যবসার ততই সুবিধা। তবে বই প্রকাশনা, প্রেসের খরচ, বাজারজাতকরণ এবং যেটি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ লেখক সম্মানীÑ সব মিলিয়ে প্রকাশনা ব্যবসা শুরু করতে হলে ন্যূনতম ৫ লাখ টাকার মূলধন দরকার।

প্রকাশনার ধরন

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সাধারণত দুই ধরনের প্রকাশনা লক্ষণীয়। ক. পাঠ্যপুস্তকসংবলিত ও খ. সৃজনশীল। ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড’ (এনসিটিবি) ছাত্রছাত্রীদের জন্য ক্লাসের পাঠ্যবই প্রকাশ করে থাকে। সৃজনশীল প্রকাশনাগুলো বিশেষ করে মানুষের ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ জীবনের বাস্তব ও জীবনধর্মী ঘটনাগুলো মনের মাধুরী মিশিয়ে প্রবন্ধ, গল্প, নাটক ও উপন্যাসের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলে পাঠক সমাজের কাছে। এ ছাড়া বাংলার ঐতিহ্য, ইতিহাস ও সংস্কৃতি নিয়েও প্রকাশিত হয় সৃজনশীল বই।

বাজারজাতকরণ

সাধারণত প্রকাশিত বই নিজস্ব লাইব্রেরিতে অথবা পরিবেশকের মধ্যমে বিক্রি করা হয়। এ ছাড়া বিভাগীয়, জেলা ও থানা পর্যায়ে প্রতিনিধির মাধ্যমে প্রচার ও প্রসারের মাধ্যমে পাইকারি মূল্যে বিক্রয় করা যায়। সৃজনশীল বই প্রকাশ করলে একুশের বইমেলায় স্টল নিতে হবে। ওয়েবসাইটের মধ্যমেও বই বিক্রি করা হয়।

খ্যাতি ও লাভ

একজন প্রকাশকের আর্থিকভাবে লাভের সঙ্গে সঙ্গে মেলে যশ ও খ্যাতি। মেলে

পাঠকের ও শুভানুধ্যায়ীদের কাছ থেকে অভিনন্দন ও ভালোবাসা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে