x

সদ্যপ্রাপ্ত

  •  বিকালের মধ্যেই বিদ্যুৎ বৃদ্ধির ঘোষণা আসছে: বিইআরসি

স্মরণীয় বরণীয়

নাম তার সুকুমার রায়

  নজরুল ইসলাম নঈম

০২ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

‘ভালো রে ভালো’ শিরোনামে চমৎকার এ ছড়াটি কে লিখেছেন জানো? আমি বলে দিচ্ছিÑ সুকুমার রায়। তোমাদের জন্য সবাই লিখতে পারেন না। কিন্তু সুকুমার রায় পেরেছেন। পেরেছেন বলেই আমাদের শিশুসাহিত্যের ইতিহাসে আজও তিনি অদ্বিতীয়। সুকুমার রায় ১৮৮৭ সালের ৩০ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন বাংলাদেশের ময়মনসিংহ জেলার মসুয়া গ্রামে। বাবার নাম উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী আর মায়ের নাম বিধুমুখী দেবী। ছোটবেলা থেকেই সুকুমার রায় ছাত্র হিসেবে ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী। ১৯১১ সালে কলকাতা বিশ^বিদ্যালয় থেকে গুরুপ্রসন্ন ঘোষ বৃত্তি পেয়ে বিলেতে যান ছাপাখানা সম্পর্কে পড়াশোনা করতে। পড়েন ফটোগ্রাফি ও মুদ্রণ প্রযুক্তিবিদ্যায়। ১৯১৩ সালে দেশে ফিরে এসে দায়িত্ব নেন বাবার প্রতিষ্ঠিত ‘ইউ রায় অ্যান্ড সন্স’ এবং পরে ‘সন্দেশ’ পত্রিকার। সুকুমার রায়ের সম্পাদনায় ‘সন্দেশ’ পত্রিকা হয়ে উঠে আরও প্রাণময়। শুরু হয় বাংলা শিশুসাহিত্যের এক নতুন অধ্যায়। ছোটবেলায় বাবাকে দেখতেন আঁকছেন, লিখছেন এবং গান করছেন। বাবাকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে মাত্র আট বছর বয়সে ‘নদী’ নামে একটি দীর্ঘকবিতা লেখেন তিনি আর তা প্রকাশও হয়েছিল শিবনাথ শাস্ত্রী সম্পাদিত ‘মুকুল’ পত্রিকায়। তারপর বাবা উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী যখন ‘সন্দেশ’ পত্রিকা প্রকাশ শুরু করলেন, তখন থেকে সুকুমার রায় হয়ে গেলেন সন্দেশের নিয়মিত লেখক। তিনি ছোটদের জন্য লিখলেনÑ ছড়া, কবিতা, গল্প, নিবন্ধ এবং নানা রকম বিচিত্র বিষয় নিয়ে। শুধু লেখা নয়, সন্দেশে ছবিও আঁকতেন তিনি। তিনি ছোটদের জন্য লিখেছেন সাতটি নাটক। কিন্তু দুঃখের বিষয়, কোনো বই-ই তার জীবদ্দশায় প্রকাশিত হয়নি। ভারতীয় সাহিত্যে ননসেন্স রাইমের প্রবর্তক সুকুমার রায় ১৯২৩ সালের ১০ সেপ্টেম্বর আমাদের ছেড়ে চলে যান না ফেরার দেশে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে