sara

নীতিগল্প

চকচক করলেই সোনা হয় না

  রেজাউল হক রেজা

০৫ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছোট্ট এক শহরে সুস্মিদের বাড়ি। বেশ ছিমছাম-পরিপাটি শহর। এর পাশ দিয়ে বয়ে গেছে ছোট্ট একটি নদী। তার গা ঘেঁষে সুস্মিদের বাড়ি। অদূরে বিশাল এক পাহাড়। কালের সাক্ষী হয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। সুস্মি তার মা-বাবার একমাত্র মেয়ে। খুব বড়লোক নয় ওরা। তবে সচ্ছল ও সুখী পরিবার।

চারদিকে অসংখ্য গাছপালা। ছায়াঘেরা পাখি ডাকা এই বনের ভেতরে সুস্মিদের ছোট্ট একটি বাড়ি। কাঠের তৈরি। একটি মাত্র ঘর। বাড়িটি সুস্মির খুব একটা পছন্দ নয়। সে মনে করে তাদের বাড়িটি খুবই ছোট এবং খুব একটা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন নয়। তবে পাহাড় খুব লাগে তার। এই পাহাড়ের চূড়ায় একটি বাড়ি আছে। ওটিই তার খুব পছন্দ। ওই বাড়িতে রয়েছে একটি সোনালি জানালা। সব সময় চকচক করে। প্রায়ই ওই জানালার দিকে চেয়ে থাকে সুস্মি। আর মনে মনে ভাবে আহ! এমন একটি বাড়ি হতো আমাদের। কতই না মজা হতো। ওই বাড়ির দিকে চায় আর নিজের বাড়ির প্রতি আরও ঘৃণা এসে যায় সুস্মির।

সুস্মি অনেক ভালো এবং মিষ্টি একটি মেয়ে। সুন্দর চেহারা। দেখতে একেবারেই রাজকুমারী। ও বুঝে ওর পরিবারের অভাব। তাই সব কিছু নীরবে সহ্য করে। আর মনে মনে ভাবে, একদিন ওই পাহাড়ের চূড়ায় গিয়ে উঠব। সুন্দর ওই বাড়িটিতে যাব। ওর সব ঘর ঘুরে ঘুরে দেখব। বাহির থেকে দেখতে এত্ত সুন্দর, নিশ্চয় ওর ভেতরটাও আরও কত সুন্দর।

দিন যায় বছর যায় সুস্মিও বড় হয়। এখন ওর বয়স চলে ১২। আজ ছুটির দিন। স্কুল নেই। মাকে বলল, মা আজ আমি নদীর ধারে বেড়াতে যাব। বাগানে ঘুরব। মা বলল, ঘুরতে যাবে ঠিক আছে। যাও। কিন্তু সাবধান! খুব বেশি দূরে যাবে না। সুস্মি মনে মনে বলল, একবার তো বের হই। তারপর দেখি কী করি। এক্কেবারে পাহাড়ের চূড়ায় গিয়ে উঠব।

নিজের বাইসাইকেলটি নিল। বাড়ির আঙিনা থেকে বেরিয়ে নদীর ধারে গেল। তারপর আস্তে আস্তে রওনা হলো ওই বাড়ির দিকে। পাহাড়ের গা ঘেঁষা সরু বাঁকাবাঁকা পথ। অনেক কষ্টে সেই পথ বেয়ে উঠল এক্কেবারেই পাহাড়ের চূড়ায়। বাইসাইকেলটি রেখে প্রবেশ করল ওই স্বপ্নের বাড়িটিতে। কিন্তু একি! বাড়িতে কোনো মানুষ নেই। নোংরা আবর্জনায় ভরা। এর চেয়ে আমার বাড়িই অনেক ভালো, বলল সুস্মি। জানালার ধারে গিয়ে দেখল তারই ঘরের আলো এসে পড়ছে, তাতেই চকচক করছে সোনালি জানালা। আসলে এটি অত সুন্দর নয়। নোংরা আবর্জনায় ভরা একটি বাড়ি। এর চেয়ে আমার বাড়িই কত সুন্দর।

সুস্মির ভুল ভাঙল। সে বলল, চকচক করলেই সোনা হয় না।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে