চিকিৎসককে সব খুলে বলুন

  আলহাজ ডা. এমএন ইসলাম

১৪ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যাপিতজীবনে আমরা এমন কিছু গোপন রোগে আক্রান্ত হই, পরিবার তো দূরের কথা, চিকিৎসকের কাছেও গোপন রাখার চেষ্টা করি। বিশেষ করে নারীরা পুরুষ ডাক্তারের সম্মুখীন হলে আর পুরুষ রোগী নারী ডাক্তারের শরণাপন্ন হলে। নারীদের অনেক ধরনের সমস্যা থাকে। গাইনি চিকিৎসকের কাছে যেতেই হয় মাঝে মধ্যে। কিন্তু পুরুষ ডাক্তারের কাছে তথ্য জানাতে শঙ্কোচবোধ করে নারীরা। তথ্যগুলো না জানানোয় অধিকাংশ সময় সঠিকভাবে রোগ নির্ণয় সম্ভব হয় না। তবে যেসব রোগের ক্ষেত্রে নারীদের তথ্য গোপন করা উচিত নয় তা হলোÑ পিরিয়ডে অনিয়ম। অনিয়মিত পিরিয়ড, দীর্ঘ সময় ধরে পিরিয়ড ইত্যাদি বিষয় ডাক্তারের কাছে বলতে লজ্জা না পাওয়াই ভালো। কারণ অধিকাংশ গাইনি সমস্যা পিরিয়ডের ওপর প্রভাব ফেলে। অনাকাক্সিক্ষত সন্তান নিতে না চাইলে অনেকেই গর্ভপাত করিয়ে ফেলেন। কিন্তু পরে কোনো গাইনি সমস্যা হলে চিকিৎসকে গর্ভপাতের কথা জানাতে চান না। গর্ভপাতের কারণে বিভিন্ন ধরনের গাইনি সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। যদি স্বাভাবিক যৌন আকাক্সক্ষা না থাকে; অনুভব করে ঘাটতি, তা হলে চিকিৎসকের সঙ্গে আলোচনা করে নেওয়া ভালো। কোন পদ্ধতিতে জন্মনিয়ন্ত্রণ করেন, ঘন ঘন আই-পিল খেয়েছেন কিনা, এসব তথ্য অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে আলোচনা করা উচিত। বিষয়টি এড়িয়ে গেলে শারীরিক সমস্যাটি নির্ণয় করা চিকিৎসকের জন্য সত্যি কঠিন হয়ে পড়ে।

লেখক : হোমিও চিকিৎসক। চেম্বার: এইচ-২৩ আমতলী, মহাখালী, ঢাকা

০১৯৭০৫৫৫৯১৯, ০১৭৫২১১৭১৬১

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে