শুয়েবসে নেট ব্রাউজিং করবেন না

  ডা. এম ইয়াছিন আলী

০৮ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতীকী ছবি
ইদানীং ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সীদের অনেকেই আছেন, যারা ব্যথার কারণে ঘাড় ঘোরাতে পারেন না। এমনকি ব্যথা পিঠের ওপরের অংশ ও কারো কারো হাত পর্যন্ত ছড়িয়ে যায়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে হাত ঝিন ঝিন বা অবশ অবশ ভাব অনুভূত হয়। হাতে শক্তি কম পান। যারা কোমরে ব্যথার উপসর্গ নিয়ে আসেন, তাদের বেশিরভাগেরই কণ্ঠে উচ্চারিত হয়, দীর্ঘক্ষণ বসে থাকার পর উঠতে গেলে সহজে আর উঠতে পারেন না।

কোমরের মাংসপেশি টেনে ধরে। খানিকক্ষণ বাঁকা হয়ে থেকে ধীরে ধীরে সোজা হতে পরেন। কিছু কিছু রোগীর বক্তব্য এমন, দীর্ঘক্ষণ উপুড় হয়ে শুয়ে ল্যাপটপ কিংবা মোবাইলে ফেসবুকিং বা ইন্টারনেট ব্রাউজিং করছিলেন, ওঠার সময় আর বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না, তীব্র ব্যথা অনুভূত হয়। এ সমস্যার কারণ অসচেতনতা বা অসতর্কতা।

এর থেকে মুক্তি পেতে যা মেনে চলবেন একটানা এক ঘণ্টার বেশি সময় বসে কিংবা শুয়ে কম্পিউটিং বা ব্রাউজিং করবেন না। প্রয়োজন হলে এক ঘণ্টা পর পর ১০-১৫ মিনিট বিশ্রাম নিন বা হাঁটাহাঁটি করুন। তারপর আবার বসুন। দীর্ঘক্ষণ উপুড় হয়ে শুয়ে বই পড়বেন না কিংবা ল্যাপটপ চালাবেন না। কম্পিউটারের মনিটর চোখের লেভেলে রাখুন, যাতে সামনের দিকে ঝুঁকতে না হয়। বসার চেয়ার ও টেবিলের উচ্চতা এমন হতে হবে, যেন সোজা হয়ে কোমরের পেছনে সাপোর্ট অবস্থায় বসে কম্পিউটার চালাতে পারেন। নিয়মিত ঘাড় ও কোমরের মাংসপেশির শক্তি বজায় রাখতে ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যায়াম করুন।

লেখক : চেয়ারম্যান ও চিফ কনসালট্যান্ট, ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতাল ধানমন্ডি, ঢাকা। ০১৭৮৭১০৬৭০২

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে