টাকমাথায় চুল গজানোর আধুনিক চিকিৎসা

  ডা. একেএম মাহমুদুল হক খায়ের

০৯ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:১৫ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতীকী ছবি
মাথায় ভরা চুল একজন পুরুষের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ মাথাভরা চুল পুরুষকে করে তোলে ব্যক্তিত্বসম্পন্ন। কিন্তু যৌবনে যখন চুল পড়ে গিয়ে মাথায় টাকের সৃষ্টি হয়, তখন সামাজিক জীবনযাপনে বয়ে আনে এক ধরনের অস্বস্তি।

কারণ বয়স না বাড়লেও পুরুষটির চেহারায় বার্ধক্যের ছাপ স্পষ্ট হয়ে ধরা দেয়। নিজেকে একদম অসহায় মনে হয়। টাক বলতে মাথায় বা শরীরের লোমশ যে কোনো অংশ হতে আংশিক বা ছড়ানো ছিটানো ও চুল পড়ে যাওয়া বোঝায়। টাক বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। যেমনÑ এলোপেসিয়া, এরিয়াটা, স্কারিং এলোপেসিয়া, হেরেডিটারি ইত্যাদি।

প্রচলিত চিকিৎসার সাফল্য টপকে আধুনিক বৈজ্ঞানিক কসমেটিক পিআরপি থেরাপি বর্তমানে টাক চিকিৎসায় এক যুগান্তকারী সাফল্য এনে দিয়েছে। যেন পুরুষকে নব যৌবন ও জৌলুসে পরিণত করে। আর এ চিকিৎসায় নেই কোনো পাশর্^প্রতিক্রিয়া। একটু ধৈর্য ও সময় নিয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে কাজ করতে হবে।

বর্তমানে এ চিকিৎসার সাফল্য ও জনপ্রিয়তা বহুলাংশে বেড়ে গেছে। এখন আর গাদা গাদা টাকা খরচ করে মানুষ হেয়ার ট্রান্সপ্লানটেশন করে না। রুচিশীল মানুষের চাহিদা অনুযায়ী দেশেই উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা রয়েছে। তবে যথাযথ চিকিৎসকের মাধ্যমে বুঝেশুনে চিকিৎসা নিলে ব্যয়ভার বহুলাংশে কমে আসবে।

লেখক : চর্ম, যৌন, অ্যালার্জি রোগ এবং কসমেটিক সার্জন

সিনিয়র কনসালট্যান্ট (এক্স) বিএসএমএমইউ

চেম্বার : ল্যাবএইড, কলাবাগান

ঢাকা। ০১৭৬৬৬৬১৩৩১

০২-৫৮১৫৩৭৩০

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে