সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণে গুগল

  আনিসুর সুমন

২৬ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গুগল বলছে, মূলত তারা ভুয়া সংবাদ ঠেকাতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে। পাঁচ দিনের এ প্রশিক্ষণ

শিবিরে সাংবাদিকরা শিখবেন নিজেদের খবর নিরাপদ কিনা। অর্থাৎ ক্রস চেকিংয়ের একটা পাঠ থাকছে এ প্রশিক্ষণে, যা খবরকে নিরাপদ রাখবে। ভুল বা ভুয়া খবর বেরিয়ে যাবে না। ভুয়া খবরের শিকার হওয়া থেকে বাঁচার জন্য এবার সার্চইঞ্জিন গুগল এক বড় উদ্যোগ নিল। লিখেছেনÑ আনিসুর সুমন

তথ্যপ্রযুক্তি বিশ্বের সার্চ জায়ান্ট গুগল। গুগল এবার আট হাজার সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে। শুরুতে প্রতিষ্ঠানটি ভারতে এ প্রশিক্ষণটি পরিচালনা করছে। এর মধ্যে প্রথমে ২০০ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে তোলার পর তাদের মেন্টর হিসেবে কাজ করাবে প্রতিষ্ঠানটি। এর পর তারা বাকিদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করবে। প্রশিক্ষণে প্রধান ভাষা হবে ইংরেজি। ইংরেজির পাশাপাশি মোট ছয় ভাষায় প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলেগু, বাংলা ও কান্নাডা ভাষায় সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে গুগল ইন্ডিয়া। প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য সম্পর্কে গুগল বলছে, মূলত তারা ভুয়া সংবাদ ঠেকাতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে। পাঁচ দিনের এ প্রশিক্ষণ শিবিরে সাংবাদিকরা শিখবেন নিজেদের খবর নিরাপদ কিনা। অর্থাৎ ক্রস চেকিংয়ের একটা পাঠ থাকছে এ প্রশিক্ষণে, যা খবরকে নিরাপদ রাখবে। ভুল বা ভুয়া খবর বেরিয়ে যাবে না। ভুয়া খবরের শিকার হওয়া থেকে বাঁচার জন্য এবার সার্চ ইঞ্জিন গুগল এক বড় উদ্যোগ নিল। তারা জানিয়েছে, আগামী এক বছরের মধ্যে ইংরেজি এবং অন্যান্য ছয়টি ভাষা মিলিয়ে তারা মোট আট হাজার ভারতীয় সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ দেবে। সেখানে তাদের এ ভুয় খবর কীভাবে চিনতে হয় সেটা শেখানো হবে। গুগল নিউজ ল্যাবের প্রধান এরিনে জায় লিউ বলেন, ‘ভুল তথ্যের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাংবাদিকদের এ প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তার জন্য ইন্টারনিউজ, ডাটা লিডস এবং বুম লাইভের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধা হয়েছে। আমাদের লক্ষ্য ২০০ প্রশিক্ষক তৈরি করা। যারা আট হাজার সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দেবেন। গুগল নেটওয়ার্ক সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, সাংবাদিকরা এই প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর তা অন্যান্য সাংবাদিকদেরও শেখাবেন। দু’দিন, একদিন এবং অর্ধদিবস সেই প্রশিক্ষণ দেবেন সাংবাদিকরা। ফলে তারা কতটা শিখেছেন তাও ঝালিয়ে নেওয়া যাবে। ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, বাংলা, মারাঠী এবং কন্নড় ভাষায় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণের মূল ফোকাস হবে ফ্যাক্ট চেকিং, অনলাইন ভেরিফিকেশন, এবং সাংবাদিকদের জন্য ডিজিটাল হাইজিন। এই প্রশিক্ষণ দেওযার জন্য বিশেষজ্ঞরা থাকবেন। যারা সাংবাদিকদের ফার্স্ট ড্রাফট, স্টোরিফুল, অল্ট নিউজ, বুম লাইভ, ফ্যাক্ট চেকার এবং ডাটা লিডস সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দেবেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে