দ্বিতীয় ভৈরব-তিতাস রেলসেতু

কাল উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা ও মোদি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০৩ | প্রিন্ট সংস্করণ

আগামীকাল বৃহস্পতিবার উদ্বোধন হতে যাচ্ছে দ্বিতীয় ভৈরব-তিতাস রেলসেতু। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সে এর উদ্বোধন করবেন। একই দিন চালু হচ্ছে খুলনা-কলকাতা রুটে বন্ধন এক্সপ্রেস।

এ ছাড়া ঢাকা-কলকাতা রুটে চলাচলকারী মৈত্রী এক্সপ্রেসের ইমিগ্রেশনের ব্যাপারেও নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হচ্ছে। অর্থাৎ ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়ার আগেই বাংলাদেশ অংশের ইমিগ্রেশন সম্পন্ন হবে। আর গন্তব্য শেষে কলকাতায় হবে সে দেশের ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস কার্যাদি। বর্তমানে দর্শনা ও গেদে সীমান্তে এসব সম্পন্ন করতে অন্তত ৩ ঘণ্টা অতিরিক্ত সময় ব্যয় হয়।

এ বিষয়ে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক আমাদের সময়কে বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান; দুটি রেলসেতু উদ্বোধন হচ্ছে ৯ নভেম্বর (আগামীকাল)। দ্বিতীয় ভৈরব ও তিতাস সেতুর মাধ্যমে যাত্রী এবং পণ্য পরিবহন আরও সহজ হবে। এ ছাড়া একই দিনে খুলনা-কলকাতা রুটে বন্ধন নামে নতুন ট্রেন চালু হচ্ছে। আর সীমান্ত স্টেশনের পরিবর্তে ট্রেন ছাড়ার আগে ও গন্তব্যে পৌঁছানোর পর ইমিগ্রেশন-কাস্টমস সম্পন্ন হলে যাত্রীদের সময় বাঁচবে ৩ ঘণ্টা। এটিরও উদ্বোধন হবে একই দিনে। ফলে এ দিনটি মাইলফলক হিসেবে থাকবে।

জানা গেছে, দ্বিতীয় মৈত্রী এক্সপ্রেসের নাম বন্ধন এক্সপ্রেস। এটি খুলনা-কলকাতা রুটে ৯ নভেম্বর থেকে পরীক্ষামূলকভাবে চলবে। আর ১৬ নভেম্বর থেকে নিয়মিত এ ট্রেন চলাচল করবে। এটিতে আসন থাকবে ১৫৬টি। থাকবে এসি সিট ও এসি চেয়ার। বন্ধন এক্সপ্রেসে এসি সিটের ভাড়া হবে ১৫০০ টাকা এবং এসি চেয়ারের ভাড়া ধরা হয়েছে ১ হাজার টাকা। ১৬ নভেম্বর থেকে এ ভাড়া কার্যকর হবে। খুলনা থেকে দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে ছাড়বে বন্ধন। বেনাপোল অতিক্রম করবে দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে, পেট্রাপোল যাবে ৩টা ১৫ মিনিটে এবং কলকাতায় পৌঁছবে সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে। আর কলকাতা থেকে রওনা হবে সকাল ৭টা ১০ মিনিটে এর পর পেট্রাপোল অতিক্রম করবে ৮টা ৫৫ মিনিটে এবং বেনাপোল পৌঁছবে ৯টা ২০ মিনিটে। এর পর খুলনায় পৌঁছাবে ১২টা ৫ মিনিটে।

এদিকে ডলারের মান বৃদ্ধির কারণে ঢাকা-কলকাতা রুটে পরিচালিত মৈত্রী এক্সপ্রেসে ভাড়ার হার পরিবর্তন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এসি সিটের ভাড়া ২৯০০ টাকা এবং এসি চেয়ারের ভাড়া ধরা হয়েছে ২ হাজার টাকা। আগামী ১০ নভেম্বর থেকে মৈত্রী এক্সপ্রেসের সময়সূচিতেও পরিবর্তন আসছে। ঢাকা থেকে সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে রওনা হয়ে দর্শনায় যাবে দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে। এর পর গেদে স্টেশন অতিক্রম করে বিকাল ৪টায় পৌঁছবে কলকাতা। একইভাবে কলকাতা থেকে সকাল ৭টা ১০ মিনিটে রওনা হয়ে ঢাকায় ফিরবে বিকাল ৪টা ৫ মিনিটে। দুদেশের দর্শনা-গেদে স্টেশনে ইমিগ্রেশন-কাস্টমস কার্যাদি বাদ দিয়ে আগামীকাল থেকে তা সম্পন্ন হবে ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকে। কলকাতার ক্ষেত্রে তা সম্পন্ন হবে সেখানকার টার্মিনালে।

রেল কর্মকর্তারা জানান, আগামীকাল দ্বিতীয় ভৈরব ও তিতাস সেতু উদ্বোধনের ফলে সময় কমবে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে। কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরবে ১৯৩৭ সালে নির্মিত হয় ভৈরব রেলসেতু। দীর্ঘ ৭৯ বছর ধরে ওই সেতু দিয়ে ট্রেন চলাচল করছে। পুরনো সেতুটি মেরামত ও সংস্কার করে ট্রেন চলাচলের উপযোগী করে রাখা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ২০১০ সালের ৯ নভেম্বর পুরনো এ সেতুর পাশাপাশি আরেকটি নতুন রেলতেু নির্মাণের প্রস্তাব অনুমোদন দেয় একনেক। সেটির নাম তিতাস। রেলওয়ে অ্যাপ্রোচসহ প্রায় এক হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে সেতু দুটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এর মধ্যে ১৩৩ কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে সরকারি তহবিল (জিওবি) থেকে। বাকি ৮২৬ কোটি ২০ লাখ টাকা অর্থায়ন করেছে ভারতীয় ঋণ সহায়তা (এলওসি)। আশুগঞ্জ-ভৈরবের মেঘনা নদীর ওপর ৬২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৯৮২ দশমিক ২ মিটার দীর্ঘ ডুয়েল গেজ রেলসেতুর নির্মাণকাজ করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। ২০১৩ সালের ২৫ ডিসেম্বর সেতুটির নির্মাণকাজ শুরু করে ইরকন ও এফকন জেভি নামে ভারতের দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে