আমবয়ানে শুরু বিশ্ব ইজতেমা

  গাজীপুর ও টঙ্গী প্রতিনিধি

১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:২২ | প্রিন্ট সংস্করণ

টঙ্গীর তুরাগতীরে কড়া নিরাপত্তায় শুরু হয়েছে ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আনুষ্ঠানিকতা। শুক্রবার ফজরের নামাজের পর জর্ডানের মাওলানা শেখ ওমরের বয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হয়। বয়ানের বাংলা তরজমা করেন বাংলাদেশের মাওলানা আবদুল মতিন। শতাধিক দেশের কয়েক হাজার বিদেশি মেহমান ছাড়াও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ১৬ জেলার মুসল্লিরা এই পর্বে অংশ নিচ্ছেন। ইজতেমা দুই পর্বে হওয়ায় অনেকটা আরাম-আয়েশে ইবাদত-বন্দেগি করছেন মুসল্লিরা।

ইজতেমার মূল বয়ানমঞ্চ থেকে জ্যেষ্ঠ মুরব্বিরা বিভিন্ন ভাষায় আল্লাহ ও তার রাসুলের নির্দেশিত ইসলামি বিধানের ওপর দিকনির্দেশনামূলক গুরুত্বপূর্ণ বয়ান করছেন। বিদেশি মেহমানসহ ১৬ জেলার মুসল্লিরা ২৮টি খিত্তায় অবস্থান করে ভোর থেকেই বয়ান শুনছেন।

সরেজমিন দেখা গেছে, কনকনে শীত উপেক্ষা করে লাখো মুসল্লি বয়ান, তাশকিল, তসবিহ-তাহলিলে কাটাচ্ছেন। শীতের তীব্রতায় বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া নির্ধারিত খিত্তার বাইরে যাচ্ছেন না কেউ। প্রচ- শীত আর টানা শৈত্যপ্রবাহ ও কুয়াশায় ঠা-াজনিত নানা রোগেও আক্রান্ত হচ্ছেন মুসল্লিরা।

বৃহত্তম জুমার নামাজ : দুপুরে ইজতেমা মাঠে অনুষ্ঠিত হয় বৃহত্তম জুমার নামাজের জামাত। এ জন্য সকাল থেকেই সড়কপথ, রেলপথ, নৌপথসহ সব পথেই টঙ্গীর তুরাগতীরে ঢল নামে মুসল্লিদের। গাজীপুরসহ আশপাশের অঞ্চলগুলো থেকে বিপুলসংখ্যক মুসল্লি জুমার নামাজ আদায় করতে ইজতেমা ময়দানে আসেন। এ বছর ইজতেমায় মাওলানা সাদকে নিয়ে জটিলতা আর তীব্র শীত থাকায় চটের বিশাল শামিয়ানার নিচে মুসল্লিদের তেমন ঠাসাঠাসি ভিড় নেই। বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মুসল্লিদের অনেকে মূল প্যান্ডেলের নিচেই জুমার নামাজ আদায়ের সুযোগ পান। দুপুর ১২টার দিকে ইজতেমার পুরো ময়দান পূর্ণ হয়ে যায়। জুমার নামাজে অংশ নেন মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ হাসান রাসেল। নামাজে ইমামতি করেন কাকরাইল মসজিদের ইমাম হাফেজ জোবায়ের। বাদ জুমা বাংলাদেশের মাওলানা মোহাম্মদ হোসেন, বাদ আসর মাওলানা আব্দুল বার ও বাদ মাগরিব মাওলানা মোহাম্মদ রবিউল হক বয়ান করেন।

গাজীপুর জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, বিশ্ব ইজতেমায় সরকারি-বেসরকারি ৭৫টি সংস্থা কাজ করছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ ইজতেমার পরিবেশ রক্ষায় প্রতিদিন ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। এবারের ইজতেমা ময়দানে ১৭টি প্রবেশপথ রয়েছে।

বিদেশি মুসল্লি : প্রথম পর্বে ৭৯টি দেশের ৩ হাজার ৯১৯ মুসল্লি ইজতেমা মাঠে পৌঁছেছেন। দেশের ১৬ জেলার মুসল্লির পাশাপাশি ভারত, পাকিস্তান, ইরান, ইরাক, জর্ডানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন। গাজীপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে বিশেষ শাখার পরিদর্শক (ডিআই-২) মো. মমিনুল ইসলাম জানান, বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে অংশ নিতে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত বিশ্বের ৭৯টি দেশের ৩ হাজার ৯১৯ মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে এসে পৌঁছেছেন।

দুই মুসল্লির মৃত্যু : সড়ক দুর্ঘটনা ও রোগাক্রান্ত হয়ে গতকাল দুইজন মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার রাতে টঙ্গীর স্টেশন রোড এলাকায় আব্দুল মামুন ওরফে মনা নামের এক যুবক রাস্তা পারাপারের সময় গাড়িচাপায় ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহত মামুন ঢাকার পশ্চিম আগারগাঁও এলাকার কেরামত আলীর ছেলে। এ ছাড়া শ^াসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে আজিজুল হক নামে অপর এক মুসল্লি মারা যান। মৃত আজিজুল হক মাগুরার শালিখা থানার হবিশপুর গ্রামের বাসিন্দা। ফজরের নামাজের পর ইজতেমা ময়দানে জানাজা শেষে তার লাশ গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দেন ইজতেমা কর্তৃপক্ষ।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে