ছাত্রলীগের সংঘর্ষে পাবনা মেডিক্যাল কলেজ বন্ধ

  পাবনা প্রতিনিধি

১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনা মেডিক্যাল কলেজে (পামেক) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদকও রয়েছেন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা ও তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে পামেক কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ ও কলেজ কর্তৃপক্ষ জানায়, আধিপত্য বিস্তার ও নতুন ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের বরণ করা নিয়ে পাবনা মেডিক্যাল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহাফুজ নয়ন ও সাধারণ সম্পাদক অদ্বিতীয় দে গ্রুপের মধ্যে কয়েক দিন ধরে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে ও শুক্রবার সকালে দুই গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে দুই দফা সংঘর্ষে সাবেক সভাপতি মীম ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অদ্বিতীয় দেসহ ১০ জন আহত হন। আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করে শুক্রবার বেলা ২টার মধ্যে ছাত্রছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে কলেজ প্রশাসন।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রাজ্জাক জানান, ক্যাম্পাসে নতুন শিক্ষার্থীদের বরণে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার ভোর পর্যন্ত পাবনা মেডিক্যাল কলেজে সংঘর্ষ হয়। খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বেশ কয়েকজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ক্যাম্পাসসহ হাসপাতাল চত্বরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

পাবনা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. রিয়াজুল হক রেজা জানান, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে