বিএনপি নির্বাচনে যাবে তো

  হাসান শিপলু

১৮ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০১৮, ১৫:৫২ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার কিছুদিন পর ঢাকার একটি অভিজাত ক্লাবে গিয়েছিলেন দলটির এক নেতা। সেখানে তাকে দেখেই ইউরোপের একটি দেশের কূটনীতিক কুশল বিনিময় করেন। তার পর তাদের মধ্যে আলোচনার এক ফাঁকে রাজনীতি প্রসঙ্গ আসে। তিনি প্রশ্ন করেনÑ বিএনপি নির্বাচনে যাবে কিনা? ওই নেতার উত্তরের মধ্যে ছিল পাল্টা প্রশ্নÑ বেগম জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানোর পর সেই পরিবেশ কি আর আছে?
ঢাকার কূটনীতিক মহলের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ আছে দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়ালের। কূটনীতিক পাড়ায় তাকে প্রায়ই একই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হচ্ছে।
এ বিষয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর সঙ্গে আলাপ হয়। তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, কূটনৈতিক পাড়ায় যে কোনো অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেলে তিনি অংশ নেন; এটা তার দীর্ঘদিনের ‘প্র্যাকটিস’। গত কয়েক মাসে যত অনুষ্ঠানে গেছেন, কূটনীতিকদের সঙ্গে আলোচনার কোনো কোনো সময় বিএনপি নির্বাচনে যাবে কিনা তা জিজ্ঞেস করেছেন? যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, নেদারল্যান্ডস ও অস্ট্রেলিয়ার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশেষ করে পশ্চিমারা বেশ কয়েকবার এ প্রশ্ন করেছেন।
কী জবাব ছিল তার? জানতে চাইলে আউয়াল মিন্টু বলেন, একটা বিষয় পরিষ্কার; আমাদের এখন একটিই লক্ষ্যÑ তা হলো খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা। এ মুহূর্তে অন্য কোনো ভাবনা নেই। নেত্রী মুক্ত হলে, তার নেতৃত্বে সিদ্ধান্ত হবে কোন পরিবেশে বিএনপি নির্বাচনে যাবে? এ বিষয়গুলো কূটনীতিকদের প্রশ্নের জবাবে স্পষ্ট করে বলেছি।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন আমাদের সময়কে বলেন, খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচন কি অংশগ্রহণমূলক হতে পারে? পারে না। তা হলে কী করে তাকে ছাড়া নির্বাচন সম্ভব? খালেদা জিয়াকে ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে যাবে না।
অবশ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ আমাদের সময়কে বলেন, বিএনপির নির্বাচনে না যাওয়ার বিষয়টিকে চূড়ান্ত বলা যাবে না। যতক্ষণ পর্যন্ত খালেদা জিয়ার সঙ্গে পরামর্শ করে দলের স্থায়ী কমিটি আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত না জানায়; ততক্ষণ পর্যন্ত এটিকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ধরা যাবে না।
গত ৪ মার্চ মার্কিন প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা লিজা কার্টিজের সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী এবং ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু। লিজা কার্টিজ দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞও। তার সঙ্গে বৈঠকেও নির্বাচনের বিষয়টি উঠে আসে। লিজা কার্টিজ বিএনপি নেতাদের বলেছেন, অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে কাজ করবে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু বিএনপি কি নির্বাচনে যাবে? জবাবে বিএনপি খালেদা জিয়ার সাজা দেওয়াসহ নানা বিষয় তুলে ধরেন।
এদিকে সম্প্রতি দলের স্থায়ী কমিটির এক সদস্যের সঙ্গে এক বৈঠকে চীনের কূটনীতিক জানিয়েছেন, বাংলাদেশে সব দলের অংশগ্রহণে সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে কাজ করবে চীন।
দলের নেতারা বলছেন, বিএনপির নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে বিদেশিদের বারবার প্রশ্ন প্রমাণ করে, তারা বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন। বিশেষ করে, খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানোর পর বিষয়টি নিয়ে তাদের উদ্বেগ আরও বেড়েছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে বেশিরভাগ আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় এ প্রশ্ন শুনতে হচ্ছে তাদের।
বিএনপি নেতারা বলেন, সম্প্রতি যেসব দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে, সেখানে বিদেশিরা স্পষ্ট করে বলেছেন; গতবারের মতো দেশে একতরফা নির্বাচন হবে না। ভারতের সঙ্গে ওইসব দেশের আলোচনায় তারা গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পক্ষে কথা বলেছেন। ভারতও সেই ধরনের নির্বাচন করতে চায় বলে বিদেশিদের জানিয়েছেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশে সুষ্ঠু, অংশগ্রহমূলক গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের বিষয়ে কাজ করতে চান পশ্চিমা দেশসহ অনেকে। কিন্তু সেখানেও তাদের প্রশ্ন, যে নির্বাচনের জন্য বিদেশিরা কাজ করবেন, সেই নির্বাচনে বিএনপি যাচ্ছে কিনা?
গত ২২ মার্চ গুলশানে চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার কূটনীতিকদের ব্রিফ করে বিএনপি। এক কূটনীতিক প্রশ্ন করেন বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা? জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়া হয়েছে। জামিনযোগ্য হলেও তাকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না। তাদের সভা-সমাবেশ করতে দেওয়া হয় না। বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় নির্বাচনের পরিবেশ কি আছে? কোনো পরিবেশ নেই। রাজধানীর একটি হোটেলে গত সোমবার বিএনপির তরুণ নেতারা ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানেও নির্বাচনে যাওয়া-না যাওয়া নিয়ে আলোচনা হয় বলে জানা গেছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে