তিন সিটির ভোট যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয় : সিইসি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জাতীয় নির্বাচনের আগে রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয়, এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা।

গতকাল বৃহস্পতিবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে তিন সিটির নির্বাচন নিয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান সিইসি। জাতীয় নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ আছে উল্লেখ করে

বিএনপি এতে আসবে বলেও এ সময় আশা প্রকাশ করে তিনি।

সিইসি বলেন, এখন থেকে দুই মাসের মধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার প্রক্রিয়ার দিকে যাব। সুতরাং সেই প্রস্তুতির পূর্বকালে এই তিন সিটি নির্বাচন আমাদের নির্বাচন কমিশন, মাঠপর্যায়ে যারা এই নির্বাচন পরিচালনা করবেন এবং এই নির্বাচনে সহায়তাকারী সব কর্মকর্তাসহ সবার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, নির্বাচনে কোনো ঝুঁকি নেই। তিন সিটি নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কীভাবে নির্বাচন সুষ্ঠু করা যায়, এ বিষয়ে দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তারা আশা প্রকাশ করেছেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করা সম্ভব হবে।

তিন সিটি নির্বাচনে বাড়তি নিরাপত্তাব্যবস্থা প্রয়োজন হবে না উল্লেখ করে সিইসি বলেন, নির্বাচনী বিধিমালায় যেভাবে আছে, সেভাবেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সিটি নির্বাচন যাতে প্রশ্নবিদ্ধ না হয়, এ জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বাড়তি ব্যবস্থার প্রয়োজন হয় না। আইনের কোনো পরিবর্তন হয়নি। আইন অনুযায়ীই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জাতীয় নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ আছে জানিয়ে তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ আছে। বিএনপি নির্বাচনে আসবে। সবাইকে নিয়ে নির্বাচন করা হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সুষ্ঠু নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব পালন করবে।

নির্বাচনের লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড রয়েছে উল্লেখ করে সিইসি বলেন, জাতীয় নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। তবে খালেদা জিয়ার কারাগারে থাকার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের কিছু করার নেই। বিষয়টি আদালতের।

বৈঠকে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, কবিতা খানম ও নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া পুলিশ ও র্যাবের মহাপরিদর্শক, তিন বিভাগীয় কমিশনার, রিটার্নিং কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে